ঢাকা, বুধবার 24 April 2019, ১১ বৈশাখ ১৪২৬, ১৭ শাবান ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

কুড়িগ্রামে ইউনিসেফ-এর সহায়তায় কিশোর-কিশোরী সম্মেলন অনুষ্ঠিত 

গতকাল ২৩ এপ্রিল মঙ্গলবার কুড়িগ্রাম জেলার স্বপ্নকুঁড়ি মিলনায়তনে ইউনিসেফ এর সহায়তায় জেলা প্রশাসনের স্বপ্নকুঁড়ি’ সেন্টারের উদ্যোগে প্রথমবারের মতো কিশোর-কিশোরী সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এই অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট জিলুফা সুলতানা। এই অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে ইউনিসেফ এর শিশু সুরক্ষা কর্মকর্তা জেসমিন হোসেন এবং যোগাযোগ কর্মকর্তা মনজুর আহমেদ, কুড়িগ্রাম প্রেস ক্লাবের সভাপতি আহসান হাবিব নিলু এবং সহকারী কমিশনার হাসিবুল ইসলাম বক্তব্য রাখেন। কুড়িগ্রাম জেলার বিভিন্ন উপজেলা থেকে আগত কিশোর- কিশোরী এবং শিক্ষক প্রতিনিধি অংশগ্রহণ করেন।   সম্মেলনে বক্তারা জেলায় বাল্য বিয়ে প্রতিরোধে অভিভাবকসহ সমাজের সম্মিলিত প্রয়াসের ওপর গুরুত্তারোপ করেন। ইউনিসেফ প্রতিনিধিগণ সমাজের বাল্য বিয়ের প্রবণতাকে কিশোর- কিশোরীদের বিকাশের পথে মারাত্মক হুমকি হিসেবে আখ্যায়িত করে জেলা প্রশাসন সহ সরকারি বেসরকারি উদ্যোগের ওপর গুরুত্ব দেন। সম্মেলনে উপস্থিত শিশু- কিশোর-কিশোরীদের সাথে জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা এবং ইউনিসেফ প্রতিনিধিবৃন্দের প্রাণবন্ত মতবিনিময় অনুষ্ঠিত হয়।    সংলাপে উপস্থিত কিশোর-কিশোরীরা যৌন নিপীড়ন, ইভটিজিং, দারিদ্র্য, মেয়ে শিশুর নিরাপত্তাহীনতা, বাল্যবিয়ের আধিক্য, মাদকাসক্তি, শিশু শ্রম ও বাল্য বিয়ে বন্ধ করতে আরও সচেতনতামূলক কার্যক্রম চালানোর ওপর গুরুত্ব দেয়। সেই সাথে প্রশাসনিক পদক্ষেপ নেয়ার আহবান জানান। সম্মেলন শুরুর পূর্বে সন্ত্রাসীদের আগুনে নির্মমভাবে প্রাণ হারানো নোয়াখালীর নুসরাত জাহান রাফির স্মরণে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।   ইউনিসেফ এর সহায়তায় কুড়িগ্রামের স্বপ্নকুঁড়ি সেন্টারের মাধ্যমে সচেতনতামুলক কার্যক্রম, ক্যাম্পেইন, প্রশিক্ষণ কর্মসূচি, শিশু-কিশোর-কিশোরীসহ স্থানীয় জনগণের সাথে উন্নয়ন সংলাপ ও মতবিনিময় আয়োজন করা হচ্ছে। স্বপ্নকুঁড়ি এর মাধ্যমে কুড়িগ্রামে শিশু-কিশোর-কিশোরীসহ স্থানীয় জনগণের জীবনমান উন্নয়নে স্বাস্থ্য, শিক্ষা, পুষ্টি, দুর্যোগ প্রস্তুতি, নিরাপদ পানি- পয়ঃনিষ্কাশন সহ বাল্য বিয়ে ও শিশু শ্রম রোধসহ শিশু সুরক্ষা কার্যক্রম জোরদার করা হচ্ছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ