ঢাকা, শুক্রবার 20 September 2019, ৫ আশ্বিন ১৪২৬, ২০ মহররম ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

এই মুহূর্তে বন্ধ করা হোক ফেসবুক: সহ-প্রতিষ্ঠাতা ক্রিস হিউজেস

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: এখনই বন্ধ করে দেওয়া উচিত ফেসবুক। সম্প্রতি নিউ ইয়র্ক টাইমস পত্রিকায় প্রকাশিত এক নিবন্ধে এমনই চমকে দেওয়ার মতো মন্তব্য করেছেন মার্ক জুকেরবার্গের প্রাক্তন রুমমেট তথা ফেসবুক ইনকর্পোরেটিভ সংস্থার সহ-প্রতিষ্ঠাতা ক্রিস হিউজেস। 

হিইজেসের মতে, 'আমরা এমনই এক দেশ যেখানে একচ্ছত্র আধিপত্যে লাগাম দেওয়া হয়েছে, তা সে যতই সৎ উদ্দেশ্য থাক কোনও সংস্থার মালিকের। মার্কের ক্ষমতা প্রশ্নাতীত এবং অ-আমেরিকান সুলভ।' 

উল্লেখ্য, বিশ্বের বৃহত্তম সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট ফেসবুকের বর্তমান গ্রাহক সংখ্যা ২০০ কোটিরও বেশি। এছাড়া, সংস্থার মালিকানাধীন হোয়াট্‌সঅ্যাপ, মেসেঞ্জার এবং ইনস্টাগ্রামের প্রতিটিতে ১০০ কোটির বেশি ইউজার রয়েছেন। 

২০০৪ সালে হারভার্ডে সংস্থার চিফ একজিকিউটিভ অফিসার মার্ক জুকেরবার্গ এবং ডাস্টিন মস্কোভিৎজের সঙ্গে ফেসবুকের জন্ম দেন ক্রিস হিউজেস। ২০০৭ সালে তিনি সংস্থা ত্যাগ করেন এবং পরে লিংকেডিন সাইটে এক পোস্টের মাধ্যমে জানান, তিন বছর ফেসবুকের সঙ্গে কাজ করার ফলে তিনি ৫০ কোটি ডলার উপার্জন করেছেন।

হিউজেস জানিয়েছেন, '১৫ বছর হয়ে গেল হারভার্ডে আমি ফেসবুক সহ-প্রতিষ্ঠা করি। এটাও সত্যি যে গত এক দশকে আমি ওই সংস্থার জন্য কোনও নকাজ করিনি। তিন্তু তবু আমি ক্ষোভ ও দায়িত্ববোধে ভুগি।' 

তাঁর মন্তব্য সম্পর্কে ফেসবুকের তরফে এখনও কোনও প্রতিক্রিয়া জানানো হয়নি। 

উল্লেখ্য, এর আগে ফেসবুকের বিরুদ্ধে তার ৮.৭০ কোটি ইউজারের গোপন তথ্য ফাঁসের অভিযোগ উঠেছিল। অভিযোগ, অধুনালুপ্ত ব্রিটিশ রাজনৈতিক উপদেষ্টা সংস্থা কেমব্রিজ অ্যানালিটিকাকে সেই সমস্ত তথ্য সরবরাহ করেছিল ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। 

তবে সে সবের আগে ২০১৭ সালে জুকেরবার্গের সঙ্গে শেষ দেখা হয়েছিল হিউজেসের। তাঁর কথায়, 'মার্ক অত্যন্ত ভালো ও দয়ালু মানুষ। কিন্তু উন্নয়নের দিকে নজর থাকায় ক্লিক বাড়াতে গিয়ে নিরাপত্তা ও শিষ্টতা সে ভুলে গিয়েছে। ওর আশপাশে এমন কিছু মানুষ ও কর্মী সব সময় ঘিরে থাকে, যারা ওর এই বিশ্বাসকে চ্যালেঞ্জ না করে তাতে ইন্ধন জোগায়।' 

তবে ফেসবুকের বিরুদ্ধে এমন মন্তব্য হিউজেসের আগেও অনেকেই করেছেন। এঁদের মধ্যে রয়েছেন একাধিক মার্কিন জনপ্রতিনিধিও। 

ডিএস/এএইচ

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ