ঢাকা, রোববার 12 May 2019, ২৯ বৈশাখ ১৪২৬, ৬ রমযান ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

খোদাভীতির মাধ্যমে দুর্নীতি ও অনাচার মুক্ত দেশ গড়া সম্ভব -মাওলানা আতাউল্লাহ হাফেজ্জী

গতকাল শনিবার বিকালে রাজধানীর কামরাঙ্গীরচর মাদরাসায় বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের কেন্দ্রীয় ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়

বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের আমীরে শরীয়ত মাওলানা শাহ আতাউল্লাহ হাফেজ্জী বলেছেন, পবিত্র রমযান আল্লাহর পক্ষ থেকে জাতির জন্য অমূল্য উপহার। কল্যাণ, ক্ষমা ও মুক্তির বার্তা নিয়ে রমযান মাস আমাদের মাঝে সমাগত। কোরআন নাজিল, আত্মশুদ্ধি ও তাকওয়া অর্জনের এ মাস বিশ্ব মুসলমানদের জন্য বয়ে আনে মুক্তির বার্তা। সিয়াম সাধনার মাধ্যমে দেশের জনগণের মধ্যে খোদাভীতি সৃষ্টি হলে দুর্নীতি ও অনাচার মুক্ত আদর্শ বাংলাদেশ গড়া সক্ষম হবে। এ সিয়াম সাধনার মাধ্যমে সঠিক প্রশিক্ষণ নিলে মদ-জুয়া সুদ-ঘুষ, ও অশ্লীলতাসহ সকল অপরাধ বন্ধ হবে। তিনি আরো  বলেন, রমযান মাস এলেই দ্রব্যমূল্যের দাম বেড়ে যায়, যানজটের কারণে রোযাদারদের দুর্ভোগ পোহাতে হয়। সরকারের উচিত রমযানে  দ্রব্যমূল্য কমানো, যান-জটে নিরসনে কার্যকর ব্যবস্থা নেয়া।
গতকাল শনিবার বিকালে রাজধানীর কামরাঙ্গীরচর মাদরাসায় বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের কেন্দ্রীয় ইফতার মাহফিলে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। সভায় বক্তব্য রাখেন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য, সাবেক মন্ত্রী কাজী ফিরোজ রশিদ এমপি, দলের মহাসচিব মাওলানা হাবিবুল্লাহ মিয়াজী, নায়েবে আমীর মাওলানা মুজিবুর রহমান হামিদী, বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা জালালুদ্দিন আহমদ, জমিয়তে ওলামায়ে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা ফজলুল করিম কাসেমী, খেলাফত মজলিসের সাংগঠনিক সম্পাদক ড. তাফাজ্জুল হক মিয়াজী, নেজামে ইসলাম পার্টির যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মুসা বিন ইজহার, খেলাফত আন্দোলন সাংগঠনিক সম্পাদক মুফতি সুলতান মহিউদ্দীন, আতিকুর রহমান নান্নু মুন্সি, মাওলানা ইউসুফ সাদেক হক্কানী, মাওলানা সানাউল্লাহ, হাজী জালাল উদ্দিন বকুল, মাওলানা সাজেদুর রহমান ও মো: আব্দুর রকীব প্রমুখ।
কাজী ফিরোজ রশিদ এমপি বলেন, খুন-ধর্ষণ, সুদ-ঘুষ ও দুর্নীতির কারণে জাতি অতিষ্ঠ। দ্বীন থেকে সরে যাওয়ার কারণে আমাদের এ দুরাবস্থা। কুরআন-সুন্নাহর অনুশাসন মেনে চললে আমাদের সমাজে শান্তি ফিরে আসবে। মুসলমানদের অনৈক্যের কারণে সারা দুনিয়ার মুসলমানগণ নির্যাতিত, নিপিড়িত। সকলে ঐক্যবদ্ধ ভাবে সকল জুলুমের মোকাবেলায় ইসলামী হুকুমত প্রতিষ্ঠার চেষ্টা চালাতে হবে। হাফেজ্জী হুজুর এ আহবানই রেখে গেছেন। প্রেসবিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ