ঢাকা, সোমবার 16 September 2019, ১ আশ্বিন ১৪২৬, ১৬ মহররম ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

‘মার খাওয়ার জন্যে ইরানের হাতের কাছে এসেছে যুক্তরাষ্ট্র’

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: ইরানে হামলার ছক নতুন করে সাজিয়েছে আমেরিকা। নতুন পরিকল্পনা অনুযায়ী রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রশাসন মধ্যপ্রাচ্যে ১ লাখ ২০ হাজার সেনা পাঠানোর কথা ভাবছে।

সোমবার (১৩ মে) এসব তথ্য নিউইয়র্ক টাইমস প্রকাশ করেছে বলে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

প্রশাসনের বিভিন্ন কর্মকর্তার বরাত দিয়ে নিউইয়র্ক টাইমস জানায়, গত ৯ মে ভারপ্রাপ্ত প্রতিরক্ষামন্ত্রী প্যাট্রিক শ্যানাহান ট্রাম্পের শীর্ষ নিরাপত্তা কর্মকর্তাদের কাছে ইরানে হামলার বিষয়ে নতুন পরিকল্পনা তুলে ধরেছেন।

সংবাদমাধ্যমটির মতে, সেদিনের বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন ট্রাম্পের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টন, সিআইএ পরিচালক গিনা হাসপেল, জাতীয় গোয়েন্দা বিভাগের পরিচালক ড্যান কোটস এবং জয়েন্ট চিফ অব স্টাফের চেয়ারম্যান জোসেফ ডানফোর্ড।

সেই বৈঠকে বিভিন্ন পরিকল্পনা বিশদভাবে করা হয়েছে বলেও জানায় নিউইয়র্ক টাইমস। বলে, “পরিকল্পনার মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্ব পায় ১ লাখ ২০ হাজার সেনা পাঠানোর বিষয়টি। আগামী কয়েক সপ্তাহ বা মাসের মধ্যেই সেসব সেনা পাঠানো হবে।”

তবে এসব বিষয় রয়টার্স তাৎক্ষণিকভাবে নিশ্চিত হতে পারেনি। বার্তা সংস্থাটির পক্ষ থেকে হোয়াইট হাউজে যোগাযোগ করা হলে তারা কোনো মন্তব্য করেনি। আর পেন্টাগন কোনো মন্তব্য করতে অস্বীকার করে।

২০১৫ সালে বিশ্বশক্তির সঙ্গে সম্পাদিত ইরানের পরমাণু চুক্তি থেকে গতবছর যুক্তরাষ্ট্র সরে আসার পর থেকেই মধ্যপ্রাচ্যের দেশটিকে বেশ চাপের মধ্যে ফেলে দেয় ট্রাম্প প্রশাসন। ইরানকে অর্থনৈতিকভাবে কাবু করতে দেশটির তেল ও ইস্পাত রপ্তানির ওপর চাপিয়ে দেওয়া হয়েছে অবরোধ। যুক্তরাষ্ট্রের লক্ষ্য- ইরানের পরমাণু কর্মসূচি পুরোপুরি বন্ধ করা।

ইরান এসব চাপের কাছে মাথানত না করে মার্কিন স্বার্থে পাল্টা আঘাতের হুমকি দিলে ইরানের জলসীমার কাছে রণতরী পাঠায় ট্রাম্প প্রশাসন। ইরানের নেতারা এ ঘটনাটিকে ‘মনস্তাত্ত্বিক লড়াই’ হিসেবে উল্লেখ করে বলেন, ‘মার খাওয়ার জন্যে ইরানের হাতের কাছে এসেছে যুক্তরাষ্ট্র।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ