ঢাকা, বুধবার 15 May 2019, ১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ৯ রমযান ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

অল্পের জন্য রক্ষা পেলেন জেলে

১৪ মে, ইন্টারনেট : মাঝ সমুদ্রে দেখা দিল হামবাক প্রজাতির একটি বিশালাকার তিমি। ক্যালিফোর্নিয়ায় সাগরের মাঝখানে একটি ছোট নৌকার সামনে হঠাৎ করেই পানির উপরে লাফিয়ে ওঠে তিমিটি। এটি হঠাৎ করেই এমন ভয়ঙ্কর লাফ দিয়েছিল যে সামনের নৌকাতে আঘাত লাগতে পারত। তিমিটি কিছুটা দূরে ছিল বলেই অল্পের জন্য বেঁচে গেলেন ওই নৌকায় থাকা জেলে।

তিমির দেখা পাওয়ার জন্য সবচেয়ে জনপ্রিয় ক্যালিফোর্নিয়ার মনটেরে উপসাগর। তিমি দেখতে সেখানে প্রচুর মানুষ ভিড় জমায়। কিন্তু বাজা সুয়েনো নামের ওই জেলে ভাবতেই পারেননি যে, তার ছোট্ট নৌকার সামনেই হাজির হবে বিশালাকার তিমি।

সে সময় আরও অনেকগুলো মাছ ধরার নৌকা সেখানে ছিল। পানির নিচ থেকে লাফিয়ে উঠছে তিমি এমন ছবিটি তুলেছেন ডোগলাস ক্রফট (৬০) এবং কেট কামিংস। তারা তিমি দেখার জন্যই সেখানে এসেছিলেন।

ডোগলাস ক্রফট বলেন, এটা সত্যিই খুব উত্তেজনাকর ঘটনা। হঠাৎ করে পানির উপরে চলে আসে বিশাল তিমিটি। আমরাও সঙ্গে সঙ্গে তিমিটির ছবি তুলে ফেলি।

তবে তিমিটি খুব বেশি সময় পানির উপরে ছিল না। এটি একদিক থেকে উঠে আবার অন্যদিকে ঘুরেই পানির নিচে হারিয়ে গেছে। তিমিটি নৌকার পেছন দিক থেকে ভেসে উঠেছিল। এতে করে সহজেই এর আকৃতি বোঝা গেছে।

ডোগলাস ক্রফট বলেন, নৌকার কাছে থাকা তিমিটিকে অনেক বড় দেখা যাচ্ছিল। এটা সত্যিই অনেক বড় ছিল। আমি যদি ওই জেলের জায়গায় থাকতাম তাহলে খুব ভয় পেতাম।

হামপবাক তিমি এবং নীল তিমি একই প্রজাতির। তবে বিশ্বের সবচেয়ে বড় প্রজাতির এই তিমি ছাই রংয়ের এবং এর দুই পাখনার রং সাদা।

এই প্রজাতির মেয়ে তিমি ৫০ ফুট পর্যন্ত লম্বা হয় এবং এদের ওজন হয় ২৫ থেকে ৩০ মেট্রিক টন। যা একটি প্রাপ্তবয়স্ক পুরুষ আফ্রিকান হাতির পাঁচগুণ। কেট কামিংস পুরো ঘটনাটি ভিডিও করেছেন। তিনি বলেন, এটা ধারণ করা সত্যিই খুব আনন্দের ছিল।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ