ঢাকা, বুধবার 15 May 2019, ১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ৯ রমযান ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

পাপ থেকে মুক্ত থাকার জন্য সকল ক্ষেত্রে মিথ্যা বন্ধ করার আহ্বান

গতকাল মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্ট বার মিলনায়তনে ইসলামী ল ইয়ার্স কাউন্সিল আয়োজিত মাহে রমজানের তাৎপর্য শীর্ষক আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলে বক্তব্য রাখেন সাবেক প্রধান নির্বাচন কমিশনার বিচারপতি আব্দুর রউফ -সংগ্রাম

স্টাফ রিপোর্টার : সাবেক প্রধান বিচারপতি আব্দুর রউফ বলেছেন, পবিত্র কুরআন জীবন্ত। কুরআন কথা বলে। প্রশ্ন করা হলে কুরআন জবাব দেয়। সৃষ্টির আদি অন্ত সবই পবিত্র কুরআনে বলা হয়েছে। বর্তমান সমাজ পাপে ভরপুর হয়ে গেছে। চারদিকে মিথ্যা ছড়িয়ে পড়ছে। মিথ্যা হলো সকল পাপের মা। সকল স্তরে এ মিথ্যা বন্ধ করে সকল পাপ থেকে মুক্ত থাকার জন্য তিনি সকলের প্রতি আহ্বান জানান।
গতকাল মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী অডিটোরিয়ামে ‘রমজানের তাৎপর্য’ শীর্ষক আলোচনা ও ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন। বাংলাদেশ ইসলামিক ল ইয়ার্স কাউন্সিলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এডভোকেট নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে প্রধান আলোচকের বক্তব্য রাখেন বিআইইউ’র ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের চেয়ারম্যান ড. আ ন ম রফিকুর রহমান আল মাদানী। অন্যদের মধ্যে বক্তৃতা করেন সংগঠনের কোষাধ্যক্ষ অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ জসীম উদ্দিন সরকার, আইনজীবী নেতা অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ মতিউর রহমান আকন্দ, এডভোকেট আব্দুর রকীব, অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন খান, অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ আব্দুর রাজ্জাক, অ্যাডভোকেট এস এম কামাল উদ্দিন প্রমুখ।
বিচারপতি আব্দুর রউফ বলেন, ইসলাম শ্বাশত জীবন বিধান। আল্লাহ সৃষ্টির শুরুতেই গাইডলাইন তৈরী করে দিয়েছেন। আর তা-ই হলো ইসলাম। হিন্দু, বৌদ্ধ, খৃষ্টান সবাই আল্লাহর গাইডলাইন অনুযায়ী জন্ম গ্রহণ করে। তারাও ইসলামের বাইরে নয়। কিন্তু জন্মের পর সঠিক পথে থাকে না।
তিনি বলেন, আল্লাহ পবিত্র কুরআনের মাধ্যমে মানুষকে জ্ঞানার্জন করার তাগিদ দিয়েছেন। মানুষ সৃষ্টিকে ভিত্তি করে তিনি জ্ঞানের প্রসার করেছেন। আল্লাহ জ্ঞানের উৎস্য, তিনি কুরআনের মাধ্যমে জ্ঞান বিতরন করেছেন। পবিত্র কুরআনে সৃষ্টির শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত  সকল কিছু বলা আছে। বিজ্ঞানে ভিত সৃষ্টি করেছে পবিত্র কুরআন। তাই মুসলমানদেরকে কুরআনে আদর্শে আদর্শবান হওয়ার জন্য তিনি সকলের প্রতি আহ্বান জানান।
প্রধান আলোচকের বক্তব্যে ড. আ ন ম রফিকুর রহমান আল মাদানী বলেন, রমযানের উদ্দেশ্য হলো মানুষকে চরিত্রবান হিসেবে গড়ে তোলা। রোজা মানুষকে চরিত্রবান করে গড়ে তোলে। পবিত্র রমযান মাসে চরিত্র গঠন করতে না পারলে শুধু উপবাস থেকে কোনো লাভ হবে না। পবিত্র রমযানে কুরআনের আলোকে চরিত্রবান মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। রোযা অবস্থায় সকল ক্ষেত্র থেকে মিথ্যাকে বিদায় করতে হবে। মিথ্যা বলা বর্জন করতে হবে, মিথ্যা মামলা, মিথ্যা রায়সহ সকল স্থান থেকে মিথ্যা বর্জন করার জন্য তিনি সকলের প্রতি আহ্বান জানান।
সভাপতির বক্তব্যে এডভোকেট নজরুল ইসলাম বলেন, আল্লাহর নির্দেশে আমরা রোযা পালন করি। আল্লাহ যেন রোযা কবুল করে ইহ ও পরলৌকিক মুক্তি দেন এ জন্য তিনি আল্লাহর কাছে দোয়া করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ