ঢাকা, বৃহস্পতিবার 16 May 2019, ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১০ রমযান ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

ওপেনিং জুটিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিশ্ব রেকর্ড

মোহাম্মদ জাফর ইকবাল : ওয়ানডে ক্রিকেটের উদ্বোধনী জুটিতে এতদিন সর্বোচ্চ রানের রেকর্ডটি ছিল অঘটন ঘটন পটিয়সী হিসেবে পরিচিত দেশ পাকিস্তানের দেশ। এবার সেটির হাত বদল হয়েছে। তবে এবারের রেকর্ডটা বেশ আলোচিত। ওয়ানডেতে ধুকতে থাকা আরেক দেশ ওয়েস্ট ইন্ডিজের দখলে যারা কিনা দীর্ঘদিন ধরে ভালো কোনো পারফরমেন্স দেখাতে পারছেনা। এবার তারা তখনই ইতিহাস গড়ে নিজেদের জাত চেনালেন যখন বিশ্বকাপ ক্রিকেটের ক্রাউনডাউন চলছে।
রেকর্ডের জন্মই তো ভাঙার জন্য। ক্রিকেটে তবু মাঝে মধ্যে এমন সব কীর্তিময় ঘটনা ঘটে যেটি বিশ্বাস করতে ভ্রম হয়। ওয়ানডেতে গ্রেটস সাঈদ আনোয়ারের ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড যেমন এক সময় ভেঙেছিলেন জিম্বাবুইয়ের চার্লস কভেন্ট্রি। আরেক সাবেক পাকিস্তান সুপার স্টার শহীদ আফ্রিদির দ্রুত সেঞ্চুরির রেকর্ড ম্লান করে দিয়েছিলেন নিউজিল্যান্ডের কোরি এ্যান্ডারসন। তিনি তখনও অতটা পরিচিত হয়ে ওঠেননি। এবার ওয়ানডে ক্রিকেটে ওপেনিং জুটির নতুন রেকর্ড গড়লেন অল্প পরিচিত দুই ওয়েন্ট ইন্ডিয়ান জন ক্যাম্পবেল ও শাই হোপ। হোপ তবু প্রতিষ্ঠিত নাম কিন্তু ক্যাম্পবেল তো একেবারে আনকোড়া। তাদের ব্যাটিং তান্ডবে আয়ারল্যান্ডে চলমান ত্রিদেশীয় সিরিজের উদ্বোধনী ওয়ানডের ওপেনিং জুটিতে নতুন বিশ্বরেকর্ড গড়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ৪৮তম ওভারের দ্বিতীয় বলে প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে ক্যাম্পবেল (১৭৯) যখন আউট হন দলের স্কোর তখন ৩৬৫! তার অনেক আগেই রেকর্ডে উঠে গেছে দুই ক্যারিবিয়ানের নাম। গত বছর বুলাওয়েতে জিম্বাবুইয়ের বিপক্ষে পাকিস্তানের ইমাম-উল হক ও ফখরুজামানের ৩০৪ রান ছিল এতদিন ওয়ানডে ওপেনিংয়ে সর্বোচ্চ রান। এদিন সেটি ভেঙে দেন দুই ক্যারিবিয়ান ব্যাটসম্যান।
তবে অল্পের জন্য যে কোন উইকেট জুটিতে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ডটা মিস করেছেন ক্যাম্পেল ও হোপ। ৩৭২ রান নিয়ে যেখানে সবার ওপরে উইন্ডিজেরই দুই তারকা ক্রিস গেইল-মারলন স্যামুয়েলস। সম্প্রতি আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৩ উইকেটে ৩৮১ রানের পাহাড় গড়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ব্যক্তিগত ১৭০ রান করে ফেরেন শাই হোপ। ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) খেলা থাকায় ক্রিস গেইলসহ ওয়েস্ট ইন্ডিজের বেশিরভাগ তারকা ক্রিকেটারই এই সিরিজে নেই। ফলে ব্যাট হাতে ওপেনিংয়ে নামেন ক্যাম্পবেল ও শাই হোপ। তবে ডাবলিনের ক্যাস্টল এভিনিউয়ে ঝড় তোলেন দুই নবীন ব্যাটসম্যান। দেখে শুনে শুরুর পর ক্রমশ আইরিশ বোলারদের নিয়ে ছেলেখেলায় মেতে ওঠেন তারা। ১৩৭ বলে ১৫ চার ও ৬ ছক্কায় ১৭৯ রান করে মিডিয়াম পেসার ব্যারি ম্যাকার্থির বলে প্রতিপক্ষ অধিনায়ক উইলিাম পোর্টারফিল্ডের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন ক্যাম্পবেল। ষষ্ঠ ওয়ানডের ক্যারিয়ারে ২৫ বছর বয়সী ব্যাটসম্যানের এটি প্রথম সেঞ্চুরি। উইন্ডিজের হয়ে চতুর্থ ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ। সর্বোচ্চ গেইলের ২১৫। একই ওভারের চতুর্থ বলে সতীর্থ শাই হোপ আউট হন ১৭০ রান করে। ৫০তম ওয়ানডেতে তুলে নেয়া পঞ্চম সেঞ্চুরিটি তিনি সাজিয়েছেন ২২ চার ও ২ ছক্কা দিয়ে।
৩৮১/২Ñওয়েস্ট ইন্ডিজের রেকর্ড হয়েছে দলীয় সর্বোচ্চ রানের ক্ষেত্রেও। আগে ব্যাট করে এটিই ক্যারিবীয়দের সর্বোচ্চ স্কোর। আর পরে ব্যাট করে ৩৮৯/১০, গত ফেব্রুয়ারিতে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে। মাত্র একদিন আগে ওয়ানডেতে পূর্ণশক্তির ইংল্যান্ডকে কাঁপিয়ে দিয়েছিল আইরিশরা। ইয়ন মরগানের দল জিতেছিল ৪ উইকেটে। অথচ তারকাবিহীন উইন্ডিজ ব্যাটসম্যানদের কাছে কি বেদম মারটাই না খেল পোর্টারফিল্ডের দল। আর বিশ্বকাপের আগে প্রস্তুতির সিরিজে ক্যারিবীয়দের শুরুটা হলো দুর্দান্ত। অন্তত ব্যাটিংয়ে। উল্লেখ্য, ত্রিদেশীয় এই সিরিজের অপর দল বাংলাদেশ। বাংলাদেশ-উইন্ডিজ দু-দলের জন্যই সিরিজটা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। বিশ্বরেকর্ড গড়া জুটির পর আয়ারল্যান্ডের সামনে ৩৮২ রানের বিশাল লক্ষ্য বেঁধে দিয়েছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। সেই লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে মাত্র ১৮৫ রানে অলআউট আইরিশরা। ফলে ১৯৬ রানের বড় ব্যবধানে জয় দিয়েই ত্রিদেশীয় সিরিজ শুরু করে আসন্ন বিশ্বকাপের ডার্কহর্স ওয়েস্ট ইন্ডিজ।
জন ক্যাম্পবেল আর সাই হোপ মিলে ওপেনিং জুটিতে গড়েছেন ৩৬৫ রানের বিশাল ইনিংস। ১৭৯ রানে জন ক্যাম্পবেল এবং ১৭০ রান করে আউট হন শাই হোপ। ৩৮২ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরু থেকেই ক্যারিবীয় পেসের সামনে ল ভ হতে থাকে আইরিশদের ব্যাটিং-লাইন। শুরু থেকেই উইকেট। তবে মাঝে কেভিন ও’ব্রায়েন কিছুটা লড়াই গড়ে তোলেন। অভিজ্ঞ আয়ারল্যান্ড ব্যাটসম্যান করেন ৭৭ বলে ৬৮ রান। ৩০ রান করেন গ্যারি উইলসন। ২৯ রান করে আউট হন এন্ডি বালবিরনি। অধিনায়ক উইলিয়াম পোর্টারফিল্ড আউট হন কেবল ১২ রান করে। ক্যারিবীয় অফ স্পিনার এ্যাশলে নার্স ৭.৪ ওভারে ৫১ রান দিয়ে নেন ৪ উইকেট। শ্যানন গ্যাব্রিয়েল নেন ৩টি। কেমার রোচ নেন ২টি এবং ১টি নেন শেলডন কটরেল।
ওয়ালটন ত্রিদেশীয় ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচে আসলে দুর্দান্ত সেঞ্চুরি করেছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের শাই হোপ ও জন ক্যাম্পবেল। পাশাপাশি ৩৬৫ রানের উদ্বোধনী জুটিতে বেশকিছু রেকর্ড গড়েছেন এই দুজন। ডাবলিনে রবিবার আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ৫০ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ তোলে ৩৮১ রান। ৪৮তম ওভারে চার বলের মধ্যে আউট হন ক্যাম্পবেল ও হোপ। ক্যাম্পবেল ১৩৭ বলে ১৫ চার ও ৬ ছক্কায় করেছেন ১৭৯ রান। আর হোপ ১৫২ বলে ২২ চার ও ২ ছক্কায় করেছেন ১৭০।
ওয়ানডেতে সবচেয়ে বড় উদ্বোধনী জুটির নতুন বিশ্ব রেকর্ড এটি। গত বছরের জুলাইয়ে বুলাওয়েতে জিম্বাবুইয়ের বিপক্ষে পাকিস্তানের ফখরুজামান ও ইমাম উল হক জুটির ৩০৪ রান ছিল আগের রেকর্ড। ওয়ানডেতে তিন শ’ রানের উদ্বোধনী জুটি এই দুটিই। ওয়ানডেতে যে কোন উইকেটেই এটি দ্বিতীয় বড় জুটি। ২০১৫ বিশ্বকাপে ক্যানবেরায় জিম্বাবুইয়ের বিপক্ষে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিস গেইল ও মারলন স্যামুয়েলসের ৩৭২ রান সবচেয়ে বড় জুটির রেকর্ড। ওয়ানডেতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের তিন শ’ রানের জুটি এই দুটিই। ওয়ানডেতে এই প্রথম ওয়েস্ট ইন্ডিজের দুই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান একই ম্যাচে সেঞ্চুরি করলেন। ওয়ানডে ইতিহাসে এই প্রথম দুই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান একই ম্যাচে দেড়শ’ করলেন।
**ওয়ানডেতে দ্বিতীয়বারের মতো ওয়েস্ট ইন্ডিজ পেল দুই শ’ বা এর বেশি রানের উদ্বোধনী জুটি। প্রথমবার ১৯৯৭ সালে, ব্রিজটাউনে ভারতের বিপক্ষে অবিচ্ছিন্ন ২০০ রানের উদ্বোধনী জুটি গড়েছিলেন গ্রেট শিবনারায়ণ চন্দরপল ও তার সঙ্গী স্টুয়ার্ট উইলিয়ামস।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ