ঢাকা, বৃহস্পতিবার 16 May 2019, ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১০ রমযান ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

খুলনা মহানগর ও জেলা বিজেপি (পার্থ) কেন্দ্রের সাথে সকল সম্পর্ক ছিন্ন করেছে

খুলনা অফিস : বাংলাদেশ জাতীয় পার্টি (বিজেপি) চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার আন্দালিভ রহমান পার্থের ২০ দলীয় জোটের সাথে সম্পর্ক ছিন্ন করাকে অগণতান্ত্রিক ও গণমানুষের আকাক্সক্ষা বহির্ভূত বলে আখ্যায়িত করেছেন দলটির খুলনার নেতৃবৃন্দ। সে কারণে খুলনা নগর ও জেলা শাখা বিজেপির কেন্দ্রের সাথে সব ধরনের সম্পর্ক ছিন্ন করেছে। তারা স্থানীয় ২০ দলীয় জোটের সাথে সকল কর্মসূচি পালনের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। বিএনপি নেতৃত্বাধীন বিভিন্ন অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের ইফতার মাহফিলে বিজেপির অংশ গ্রহণের মধ্যদিয়ে তাদের অবস্থান স্পষ্ট করেছে।
দলীয় সূত্র মতে, জেলা ও নগর বিজেপি’র এক রুদ্ধদ্বার বৈঠক গত সোমবার অনুষ্ঠিত হয়। স্থানীয় শীর্ষ পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ বৈঠকে উপস্থিত থেকে দলীয় প্রধানের বিবৃতির সাথে দ্বিমত পোষণ করে সকল সম্পর্ক ছিন্ন করার সিদ্ধান্ত নেন।
তারা স্পষ্ট বলেছেন, রাজনৈতিক এই দুর্যোগের মধ্যে ২০ দলের শক্তি খর্ব হলে গণমানুষের গণতান্ত্রিক আন্দোলন সফল হবে না। এতে গণতন্ত্রমনা রাজনৈতিক দলগুলো ক্ষতির সম্মুখীন হবে। গত ৬ মে বিজেপি’র চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার আন্দালিভ রহমান পার্থ স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে ২০ দলীয় জোট ত্যাগের ঘোষণা দেয় দলটি। প্রতিষ্ঠাকালীন থেকে প্রয়াত চেয়ারম্যান নাজিউর রহমান মঞ্জু চারদলীয় জোটে এবং পরবর্তীতে তাঁর ছেলে আন্দালিভ রহমান পার্থের নেতৃত্বে ২০ দলীয় জোটে সক্রিয় ভূমিকা ছিল বিজেপি’র।
মহানগর বিজেপি’র সভাপতি এডভোকেট লতিফুর রহমান লাবু বলেন, ‘এ মুহূর্তে দলীয় প্রধানের বিবৃতি বৃহত্তর স্বার্থ ও গণতান্ত্রিক আন্দোলনের জন্য ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। যে সময়ে বিরোধী দল রাজনৈতিক হামলা-মামলার শিকার সেসময়ে দলীয় প্রধানের বিবৃতি সরকারের স্বার্থকে সংরক্ষু করেছে। দলীয় প্রধানের বিবৃতি গণমানুষের আন্দোলনের পরিপন্থী। সিটি কর্পোরেশন ও একাদশ জাতীয় নির্বাচনে মানুষ ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে না পারায় ক্ষুব্ধ হয়ে বিরোধী শিবিরে সমর্থন দিয়েছে। ১৫ কোটি মানুষের স্বার্থে আরো ত্যাগ স্বীকার এবং বিএনপি’র সাথে দূরত্ব কমানোর জন্য উদ্যোগ নেয়া দরকার।’
তিনি আরও বলেন, ‘এখন গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের লড়াই চলছে। বিরোধী দলের বিপর্যয়ের মধ্যে মান-অভিমান চলে না।’ তাদের এই বক্তব্যের সাথে জেলা শাখাও একমত পোষণ করেছে বলে জানান তিনি। ব্যারিস্টার আন্দালিভ রহমান পার্থের বিবৃতির পরও বিজেপি’র স্থানীয় নেতৃবৃন্দ বিএনপি’র সাথে সম্পর্ক রক্ষা করে চলছেন। বিএনপি’র সহযোগী সংগঠনগুলোর ইফতার মাহফিলের বিজেপি নেতাদের উপস্থিতি দেখা যাচ্ছে। স্থানীয় নেতৃবৃন্দের বক্তব্য স্পষ্ট-তারা ২০ দলীয় জোটের সাথে থাকবেন। এদিকে, গত সোমবার ২০ দলীয় জোটের বৈঠকে আমন্ত্রণ পেলেও উপস্থিত হননি বিজেপি’র চেয়ারম্যান আন্দালিভ রহমান পার্থ। তবে বিএনপি পৃথকভাবে ডাকলে সে ডাকে সাড়া দিবেন বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন তিনি। উল্লেখ্য, গেল বছরের ১৫ মে কেসিসি ও ৩০ ডিসেম্বরের একাদশ জাতীয় নির্বাচনে খুলনায় বিজেপির জেলা ও মহানগর শাখা জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ও ২০ দলের সাথে সক্রিয় ভূমিকা নেয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ