ঢাকা, শনিবার 18 May 2019, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১২ রমযান ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

বান্দরবানে গোলা বিস্ফোরণে ২ সেনা সদস্য নিহত

 

স্টাফ রিপোর্টার: বান্দরবানের সুয়ালক এলাকায় সেনাবাহিনীর ভারি অস্ত্রের ফায়ারিং রেঞ্জের সময় পরিত্যক্ত গোলা বিস্ফোরণের ঘটনায় ২ জন সেনা সদস্যের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে সুয়ালক ইউনিয়নের আমতলী এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। সে সময়ই জাহিদুল ইসলাম (২৯) নামে এক সৈন্যের মৃত্যু হয়। আহত হন ১১ জন। হতাহত সেনা সদস্যরা কুমিল্লা সেনানিবাসের ১৬ প্যারা ব্যাটালিয়নের সদস্য বলে জানা গেছে। এদের মধ্যে রিপন চাকমাকে (২৭) হেলিকপ্টারে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) নেয়ার পথে মৃত্যু হয়। তার বাড়ি রাঙ্গামাটি জেলায়।

আহত অন্য ১০ সৈনিক বর্তমানে সিএমএইচে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তাদের মধ্যে ছয়জনের নাম জানা গেছে। তারা হলেন- সৈনিক আসাদ, রাজু, হাসান, তারেকুল, মোস্তাফিজ ও আরিফ। সেনাবাহিনীর ১৬ প্যারা ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মোস্তাফিজুর রহমান গণমাধ্যমকে এসব তথ্য জানিয়েছেন। তিনি আরও জানান, আজ শনিবার বিকেলে ওই এলাকায় ফায়ারিং হওয়ার কথা ছিল। এজন্য ঝোপ-জঙ্গল পরিষ্কারের কাজ চলছিল। এ সময় ওই বিস্ফোরণ ঘটে।

এদিকে নিহত সৈনিক জহিরুল ইসলামের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য বান্দরবান সদর হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষ হলে লাশ স্বজনের কাছে হস্তান্তর করা হবে। জহিরুল ইসলামের বাড়ি বান্দরবানের লামা উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নে।

সুয়ালক ইউপি চেয়ারম্যান উক্যনু মারমা জানান, বিকট শব্দে বিস্ফোণের আওয়াজ শুনেছি। কিন্তু ওই এলাকায় সাধারণ জনসাধরণেরর প্রবেশের নিষেধ থাকায় ঘটনার বিস্তারিত জানা যায়নি। তবে স্থানীয়রা আহতদের হাসপাতালে নিতে দেখেছেন বলে আমাকে জানিয়েছেন।

বান্দরবানের পুলিশ সুপার জাকির হোসেন মজুমদার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সাংবাদিকদের বলেন, পরিত্যক্ত সেল বিস্ফোরণে এক সেনা সদস্য নিহত ও কয়েকজন আহত হওয়ার খবর শুনেছি। বিস্তারিত পরে জানা যাবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ