ঢাকা,বৃহস্পতিবার 30 May 2019, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২৪ রমযান ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

বিশ্বকাপ ক্রিকেট মাঠে গড়াচ্ছে আজ

রফিকুল ইসলাম মিঞা : অপেক্ষার পালা শেষ। আজ থেকে মাঠে গড়াচ্ছে ক্রিকেটের সবচেয়ে জমজমাট আসর ‘বিশ্বকাপ ক্রিকেট’। এরই মধ্যে সব প্রস্তুতি শেষ হয়েছে। দল নিয়ে জল্পনা-কল্পনা আর কথার লড়াই শেষ। আজ থেকে শুরু হচ্ছে ১২তম ওয়ানডে বিশ্বকাপ ক্রিকেটের মাঠের লড়াই। এবারের বিশ্বকাপ হচ্ছে ইংল্যান্ড এন্ড ওয়েলসে। যা শেষ হবে ১৪ জুলাই। সর্বশেষ ১৯৯৯ সালে বিশ্বকাপ আয়োজন করেছিলো ইংল্যান্ড। এখন পর্যন্ত ইংল্যান্ড কখনো বিশ্বকাপ শিরোপা জয় করতে পারেনি। তবে হোম গ্রাউন্ডের কারণে এবারের আসরে ফেবারিটের তালিকায় আছে স্বাগতিকরা। লন্ডনের কেনিংটন ওভালে উদ্বোধনী ম্যাচে বাংলাদেশ সময় বিকাল সাড়ে তিনটায় মুখোমুখি হবে ইংল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকা। পুরো দেড় মাস ধরে সারা পৃথিবীর ক্রিকেট প্রেমীদের চোখ থাকবে ইংল্যান্ডে। ১৯৭৫ সালে শুরু হওয়ার পর এ পর্যন্ত মোট ১১ বার ক্রিকেট বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হয়েছে। ইংল্যান্ড এন্ড ওয়েলসে হতে হচ্ছে দ্বাদশ আসর। এই বিশ্বকাপে ১০টি দল অংশ নিবে। স্বাগতিক ইংল্যান্ড ছাড়াও থাকছে- বাংলাদেশ, ভারত, দক্ষিণ আফ্রিকা, অস্ট্রেলিয়া, পাকিস্তান, নিউজিল্যান্ড, শ্রীলঙ্কা, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও আফগানিস্তান। আইসিসি ওয়ানডে র‌্যাংকিং-এ শীর্ষ আট দল সরাসরি বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পায়। তবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও আফগানিস্তান বাছাই পর্ব খেলে মূল পর্বে জায়গা করে নেয়। এই দশ দলকে নিয়ে লিগ পর্ব অনুষ্ঠিত হবে। লিগ পর্ব শেষে পয়েন্ট টেবিলের সেরা চার দল খেলবে সেমিফাইনাল। সেমিফাইনাল শেষে ১৪ জুলাই হবে ফাইনাল। এবারের বিশ্বকাপ ১১টি ভেন্যুতে মোট ৪৮টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। আজ উদ্বোধনী ম্যাচে মাঠে নামছে স্বাগতিক ইংল্যান্ড। দলটির প্রতিপক্ষ দক্ষিণ আফ্রিকা। ২ জুন দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করবে বাংলাদেশ। ম্যাচটি হবে লন্ডনের ওভালে। এবারের বিশ্বকাপে বেশ কয়েকটি দল তাদের সেরা দল গঠন করলেও সাফল্য পাওয়া নিয়ে সংশয় রয়েছে। সেখানে বাংলাদেশকে নিয়ে একটু বেশিই আলোচনা হচ্ছে। অতীতকে ভুলিয়ে দিয়ে নতুন ইতিহাস গড়ার প্রত্যয়, এক বুক আশা নিয়ে বিশ্বকাপ মিশনে ইংল্যান্ড পাড়ি জমিয়েছে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল। মাশরাফি বিন মুর্তজার নেতৃত্বে ১৫ স্বপ্ন সারথী বিশ্বকাপের ময়দানে দেশের প্রতিনিধিত্ব করবেন। বড় কোনো বিতর্ক ছাড়াই গঠন করা হয়েছে বিশ্বকাপ দল। এবার টাইগারদের লক্ষ বিশ্বকাপে সেরা পারফরমেন্স। এবার পঞ্চমবারের মতো আইসিসি বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হচ্ছে ইংল্যান্ডে। স্বাগতিক হিসাবে ইংল্যান্ডই এবার অন্যতম ফেভারিট। পারফর্মের দিক থেকেও তারা দুর্দান্ত। বিশ্বকাপ শুরুর আগে ঘরের মাটিতে পাকিস্তানকে তারা পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে হোয়াইটওয়াশ করেছে। প্রস্তুতি ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার কাছে শেষ মুহূর্তে হেরে গেলেও আফগানিস্তানের বিপক্ষে বড় জয় তুলে নেয় ইংল্যান্ড। সম্প্রতি ইংলিশ অধিনায়ক ইয়ন মরগ্যান এবং পেসার মার্ক উড ছোট ইনজুরিতে আক্রান্ত হলেও উদ্বোধনী ম্যাচ খেলার জন্য তারা ফিট। বিশ্বকাপে ইংল্যান্ড তিনবার রানার্স আপ হলেও একবারও চ্যাম্পিয়ন হতে পারেনি। অন্যদিকে, দক্ষিণ আফ্রিকাও এবার শক্তিশালী দল নিয়ে বিশ্বকাপ খেলতে এসেছে। প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচে তারা শ্রীলঙ্কাকে ৮৭ রানে হারায়। পরে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ম্যাচটি বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত হয়। দক্ষিণ আফ্রিকার নামের সাথে ‘চোকার’ তকমাটি লেগে থাকলেও এবার ভালো করার ব্যাপারে আশাবাদী প্রোটিয়ারা। বিশ্লেষকরা বলছেন, দক্ষিণ আফ্রিকার সেমিফাইনালে  খেলার সম্ভাবনা রয়েছে। বিশ্বকাপে দক্ষিণ আফ্রিকার সর্বোচ্চ অর্জন সেমিফাইনাল। গত আসরে খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছিল বাংলাদেশ সময় সকালে। সেবার কর্মব্যস্ততার কারণে অনেকেই  খেলা উপভোগ করতে পারেননি। কিন্তু এবার হাতে গোনা কয়েকটি ম্যাচ ছাড়া বাকি সব শুরু হবে বাংলাদেশ সময় বিকাল সাড়ে তিনটায়। এবারের বিশ^কাপে বাগড়া দিতে পারে বৃষ্টি। গত ২৬ মে বৃষ্টির কারণে দুইটি ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়। ১৯৯৯ বিশ্বকাপের আয়োজক ছিলো ইংল্যান্ড। সেবার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে কিছু অনাকাক্ষিত ঘটনায় জাঁকজমকে ছিলো অপূর্ণতা। এরপর  থেকে তাই উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পক্ষে ছিলো না আইসিসি। তবে ব্যতিক্রমী হলেও এবারের বিশ্বকাপের উদ্বোধনী আগের রেকর্ডকে ছাড়িয়ে বেশ জাঁকজমকে করার চেস্টা করেছে স্বাগতিক ইংল্যান্ড। গতকাল বাংলাদেশ সময় রাত ১০টায় উদ্বোধনী এই অনুষ্ঠান হয় বাকিংহাম প্যালেসের সামনে ‘দ্য মল’ এ। ব্রিটিশদের ইতিহাস-ঐতিহ্যের সঙ্গে সম্পৃক্ত লন্ডনের ‘দ্য মল’ নামক স্থানটি। সাধারণত বড় অনুষ্ঠানের জন্য এই স্থানকে বেছে নেয় তারা। তাই এবারের আয়োজকদের পছন্দ এই জায়গাটিকে। পার্টি স্টাইলের এই অনুষ্ঠান স্থায়ী হয় প্রায় এক ঘণ্টা। উৎসবকে রাঙিয়ে দিতে থাকে লাইভ মিউজিক ও বিনোদন। তবে প্রথমবারের মতো উদ্বোধনী অনুষ্ঠান হয় মাঠের বাইরে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ