ঢাকা, শুক্রবার 31 May 2019, ১৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২৫ রমযান ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

ডাকসুর আজীবন সদস্য পদ দেয়া হলো প্রধানমন্ত্রীকে

সংগ্রাম ডেস্ক : ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) আজীবন সদস্যপদ দেয়া হয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে। গতকাল বৃহস্পতিবার ডাকসুর কার্যনির্বাহী পরিষদের এক সভায় এ সদস্যপদ দেয়া হয়। সভায় সংখ্যাগরিষ্ঠদের মতামতের ভিত্তিতে প্রধানমন্ত্রীকে এ পদ দেয়া হয়। কিন্তু এতে অসম্মতি দিয়েছেন সহ-সভাপতি (ভিপি) নুরুল হক নুর ও সমাজসেবা বিষয়ক সম্পাদক আখতার হোসেন।

ডাকসুর সভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে সাধারণ সম্পাদক (জিএস) গোলাম রাব্বানী বলেন, ‘সবার সম্মতিতে প্রধানমন্ত্রীকে ডাকসুর আজীবন সদস্যপদ দেয়া হয়েছে।’

সভায় ২০১৯-২০ অর্থবছরে ডাকসুর বার্ষিক বাজেট সর্বমোট ১ কোটি ৮৯ লাখ টাকা অনুমোদন দেয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

সভা সূত্রে জানা যায়, ১৯৭৩ সালের ২ জানুয়ারি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে ডাকসুর আজীবন সদস্যপদ প্রদানের স্মারকপত্র ছিঁড়ে ফেলার ঘটনায় নিন্দা প্রস্তাব উত্থাপন করেন ডাকসুর সদস্য রাকিবুল হাসান রাকিব। পরবর্তীতে নির্বাহী সভায় এ প্রস্তাব এজেন্ডাভুক্ত করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

এছাড়া সভায় শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যবীমা চালু করতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন উদ্যোগ নেবে বলে আশ্বস্ত করেন ডাকসুর সভাপতি অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান।

১১ মার্চ অনুষ্ঠিত ডাকসু নির্বাচন-সংক্রান্ত গঠিত তদন্ত কমিটির রিপোর্ট সভায় উপস্থাপন করা হয়।

ক্যাম্পাসে গণপরিবহন ও রিকশা ভাড়া নির্ধারণে একটি পলিসি ডায়ালগ আয়োজনের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

নূরের ওপর শিবির হামলা করেছে : ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ও ডাকসুর জিএস গোলাম রাব্বানী বলেছেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের ভিপি নুরুল হক নূরের ওপর হামলায় ছাত্রলীগ জড়িত নয়। গোলাম রাব্বানী বলেন, সেখানে শিবিরের লোকজনের উপস্থিতি ছিল। এ ঘটনায় ছাত্রলীগ জড়িত নয়। তবুও বিষয়টি আমরা তদন্ত করে দেখবো।

শিবিরের লোক থাকার যে দাবি ছাত্রলীগ করছে সে কারণেই হামলা করা হয়েছে কি-না প্রশ্ন করলে রাব্বানী বলেন, শুনেছি তিনি (ভিপি) রাজনৈতিক দল করবেন এবং সেটা তিনি করতেই পারেন। হামলার সঙ্গে এর কোনো সংশ্লিষ্টতা নেই। তিনি বলেন, বগুড়ার ঘটনায় তারা স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে তদন্ত করবেন ও সংগঠনের কেউ জড়িত থাকলে তারা ব্যবস্থা নেবেন।

ডাকসু ভিপির জনপ্রিয়তায় ছাত্রলীগ ভীত হয়ে পড়ছে কিংবা নির্বাচনের পরাজয় ছাত্রলীগ মেনে নিতে পারেনি, বলেই হামলা করছে বলে যে অভিযোগ উঠেছে তাও প্রত্যাখ্যান করেন রাব্বানী।

তিনি বলেন, ডাকসু ভিপি থাকবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে। তিনি ব্রাক্ষ্মণবাড়িয়ায় যেখানে গিয়েছেন সেখানে শিবিরের লোকজনের উপস্থিতি ছিল বলে খবর আসছে। আমরা সংগঠন থেকে কোনভাবেই কোনো বাধা বা হামলার কোনো নির্দেশনা দেইনি। সেখানে হয়তো শিবিরের লোক থাকায় কোন ঘটনা ঘটেছে। আর বগুড়ার ঘটনার খবর আমরা শুনেছি। আমাদের কেউ তাতে জড়িত ছিল না। তারপরেও আমরা নিজ থেকেই তদন্ত করবো। সূত্র: শীর্ষ নিউজ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ