ঢাকা, বুধবার 24 July 2019, ৯ শ্রাবণ ১৪২৬, ২০ জিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

মাশরাফির সামর্থ্য নিয়ে প্রশ্ন করার সময় এখন নয়: ওয়ালশ

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত প্রত্যাশা অনুযায়ী নৈপুণ্য দেখাতে না পারা মাশরাফি বিন মুর্তজার সামর্থ্য নিয়ে প্রশ্ন তোলার সঠিক সময় এখন নয় বলে শুক্রবার মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশের বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালশ।

বিশ্বকাপে এ পর্যন্ত বাংলাদেশের খেলা তিন ম্যাচে মাশরাফি উইকেট পেয়েছেন একটি। টাইগারদের চতুর্থ ম্যাচটি বৃষ্টিতে ভেসে গেছে।

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে মাশরাফি ছয় ওভার বল করে হজম করেন ৪৯ রান। পরের ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে পাঁচ ওভারে দেন ৩২ রান।

ইংল্যান্ডের সাথে তৃতীয় ম্যাচে মাশরাফি চলতি বিশ্বকাপে প্রথমবারের মতো পুরো ১০ ওভার বল করেন এবং ৬৮ রানের বিনিময়ে পান একটি উইকেট।

অধিনায়কের সামর্থ্যের তুলনায় আপাত দৃষ্টিতে দুর্বল এ নৈপুণ্য নিয়ে দেশের সমর্থকদের একাংশের মাঝে সমালোচনা দেখা দেয় এবং তারা তার সক্ষমতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেন।

এ বিষয়ে ওয়ালশ বলেন, ‘এটা (প্রশ্ন তোলা) অযথা। আমরা সবাই জানি যে মাশরাফি একজন লড়াকু খেলোয়ার।’

‘সামান্য কিছু ব্যাপারের কারণে সে এখনো ১০০ শতাংশ ফিট নয়। অধিনায়ক হিসেবে সে সব সময় সামনে থেকে দলকে নেতৃত্ব দিতে চায়। সম্প্রতি সে কিছু ভালো স্পেলে বল করেছে। তাই ওর সামর্থ্য নিয়ে প্রশ্ন তোলার সময় এখন নয়,’ যোগ করেন বোলিং কোচ।  

১৭ জুন টনটনে ওয়েস্ট ইন্ডিজের মুখোমুখি হওয়ার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে বাংলাদেশ। বিশ্বকাপের আগে আয়ারল্যান্ডে অনুষ্ঠিত ত্রিদেশীয় সিরিজে এই ওয়েস্ট ইন্ডিজকেই তিনবার হারিয়ে প্রথমবারের মতো এ ধরনের কোনো প্রতিযোগিতার ট্রফি জিতে বাংলাদেশ।

সিরিজের ফাইনালে হ্যামস্ট্রিং ইনজুরির শিকার হন মাশরাফি, যা বাংলাদেশ অধিনায়কের জন্য এখনো সমস্যা করছে।

ওয়ালশ বিশ্বাস করেন, ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে আরেকটি জয় তুলে নিতে টাইগাররা তাদের সম্ভাব্য সেরা মানসিকতায় আছেন।

‘সমর্থকরা সব সময় তাদের দলের জয় চায়...এখন, আমরা যদি কিছু ম্যাচ জিততে পারি তাহলে মানুষ বিশ্বাস করবে যে আমরা কত শক্তিশালী। ম্যাশ কয়েক দিন বিশ্রাম নিয়েছে। আমি মনে করি সে আগের চেয়ে ফিট আছে,’ বলেন তিনি।

একটি জয়, দুটি হার ও পরিত্যাক্ত এক ম্যাচ নিয়ে বাংলাদেশ এখন পয়েন্ট টেবিলে সাত নম্বরে আছে। সেমিফাইনালে যেতে হলে তাদের লিগ পর্বে প্রথম চারে জায়গা করে নিতে হবে।- ইউএনবি

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ