ঢাকা, বুধবার 24 July 2019, ৯ শ্রাবণ ১৪২৬, ২০ জিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

বগুড়ায় উপনির্বাচনে ইভিএমে ভোটগ্রহণ চলছে

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: বগুড়া-৬ (সদর) আসনের উপ-নির্বাচনে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। সোমবার সকাল ৮টা থেকে একটানা বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ চলবে। বগুড়া সদর আসনের ১৪১টি কেন্দ্রের সবগুলোতে ইভিএম মেশিনে ভোট গ্রহণ চলছে। সকাল থেকে বিভিন্ন কেন্দ্রে ভোটাররা আসতে শুরু করেছেন। তবে পৌনে ৯টা পর্যন্ত কোনো কেন্দ্রে অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি। বগুড়ায় আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সাড়ে তিন হাজার সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ধানের শীষ প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে প্রায় দেড় লাখ ভোটের ব্যবধানে মহাজোটের প্রার্থী নুরুল ইসলাম ওমরকে হারিয়ে বিজয়ী হন। পরে মির্জা ফখরুল শপথ না নেয়ায় আসনটি শূন্য ঘোষণা করা হয়। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী এই আসনে আজ ইভিএমে ভোটগ্রহণ চলছে। নির্বাচনে ৩ লাখ ৮৭ হাজার ৪৫৮ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন।

নির্বাচনের মাঠে ছয়জন প্রার্থী থাকলেও মূল লড়াই হবে বড় দুই দল আওয়ামী লীগ এবং বিএনপির দলীয় প্রতীক নৌকা ও ধানের শীষের প্রার্থীদের মধ্যে। ধানের শীষের প্রার্থী জিএম সিরাজ এর আগে বগুড়ার অন্য একটি আসন থেকে বিএনপির মনোনয়নে টানা তিন দফা সংসদ সদস্য নির্বাচিত হলেও নৌকার প্রার্থী টি জামান নিকেতা এবারই প্রথম সংসদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

আওয়ামী লীগের নির্বাচনী প্রচারণায় সরকারের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে নৌকায় ভোট চাওয়া হয়েছে। অন্যদিকে দলীয় চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি, তারেক রহমানকে দেশে ফেরানো ছাড়াও জিয়া পরিবারের অত্যন্ত মর্যাদার এই আসন ধরে রাখতে ধানের শীষে ভোট চাইছে বিএনপি। তবে দুই দলই এবারের এই নির্বাচনকে মর্যাদার লড়াই হিসেবে দেখছে। ভোটারদের কাছেও ভোট প্রার্থনা করা হয়েছে সেভাবেই।

এই নির্বাচনে আওয়ামী লীগের টি জামান নিকেতা (নৌকা), বিএনপির গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ (ধানের শীষ), জাতীয় পার্টির নুরুল ইসলাম ওমর (লাঙ্গল), মুসলিম লীগের রফিকুল ইসলাম (হারিকেন), বাংলাদেশের কংগ্রেসের মুনসুর রহমান (ডাব) ও মিনহাজ মণ্ডল (আপেল) প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

জেলা পুলিশের বিশেষ শাখা সূত্রে জানা গেছে, বগুড়া-৬ (সদর) আসনের নির্বাচনে ১১১টি কেন্দ্র ‘অতি গুরুত্বপূর্ণ বা ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। এসব ভোটকেন্দ্রে যেকোনো ধরনের গোলযোগ ও সহিংসতা এড়াতে তিন স্তরের নিরাপত্তাবলয় প্রস্তুত করার কথা জানিয়েছেন বগুড়ার পুলিশ সুপার মো. আলী আশরাফ ভূঞা। প্রতিটি ভোটকেন্দ্রে পুলিশ, র‌্যাব, বিজিবিসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর তিন স্তরের কঠোর নিরাপত্তাবলয় থাকবে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের সঙ্গে কাজ করবেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ