ঢাকা, বৃহস্পতিবার 04 July 2019, ২০ আষাঢ় ১৪২৬, ৩০ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

ভারতের মহারাষ্ট্রে বাঁধ ভেঙে বন্যা ॥  নিহত ৬

৩ জুলাই, এনডিটিভি : ভারতের মহারাষ্ট্র রাজ্যে ভারী বৃষ্টিপাতে বাঁধ ভেঙে অন্তত ছয় জন নিহত ও ১৮ জন নিখোঁজ রয়েছেন। মঙ্গলবার স্থানীয় সময় রাত সাড়ে ৯টায় রাজ্যের রত্নাগিরি জেলায় এ ঘটনা ঘটে।

বাঁধ ভেঙে নিম্নাঞ্চলের সাতটি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে এবং পানির তোড়ে বাঁধের কাছের অন্তত ১২টি বাড়ি ভেসে গেছে।

মুম্বাই থেকে প্রায় ২৭৫ কিলোমিটার দক্ষিণের ওই এলাকাটিতে ভারতের জাতীয় দুর্যোগ মোকাবিলা বাহিনীর (এনডিআরএফ) কয়েকটি টিম উপস্থিত হয়ে উদ্ধার অভিযান শুরু করেছে। তাদের সঙ্গে সরকারি কর্মকর্তারা, পুলিশ ও স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবীরাও যোগ দিয়েছেন। 

বর্ষাকাল শুরু হওয়ার পরপরই মহারাষ্ট্র রাজ্য ও এর রাজধানী মুম্বাইয়ে ব্যাপক বৃষ্টিপাত হচ্ছে। টানা কয়েকদিন ধরে চলা এ বৃষ্টি সময়ের সঙ্গে সঙ্গে আরও তীব্র হচ্ছে। মঙ্গলবার ১২ ঘণ্টার মধ্যে শুধু মুম্বাইয়ে ৩০০ থেকে ৪০০ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে বলে রাজ্যটির মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফাডনাভিস জানিয়েছেন। 

মুম্বাইয়ের নিকটবর্তী থানে, পালঘর ও রাইগাড জেলায়ও ভারী বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। রাজ্যের নাশিক, রত্নাগিরি, সিন্ধুদুর্গ ও পশ্চিমাংশেও ব্যাপক বৃষ্টিপাত হয়েছে।

এক সংবাদ সম্মেলনে ফাডনাভিস বলেছেন, “গত ১২ ঘণ্টায় মুম্বাইয়ে নজিরবিহীন ৩০০ থেকে ৪০০ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে, গত এক দশকের মধ্যে এটাই সর্বোচ্চ। নগরীর ড্রেনেজ ব্যবস্থা এ ধরনের ভারী বৃষ্টিপাতের উপযোগী নয়, এর মধ্যে বিকালে (মঙ্গলবার) আবার পূর্ণ জোয়ার ছিল।”

 সোমবার রাত থেকে মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত বৃষ্টির মধ্যে মুম্বাই ও আশপাশে কয়েকটি শহর এলাকায় দেয়াল ধসে অন্তত ২৮ জন নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার রাতে মুম্বাইয়ে জলমগ্ন একটি আন্ডারপাসে আটকা পড়ে একটি এসইউভির দুই আরোহী মারা গেছেন।

সোমবার রাতে মুম্বাই বিমানবন্দরের মূল রানওয়েতে একটি উড়োজাহাজ পিছলে পড়ার পর থেকে রানওয়েটি বন্ধ রাখা হয়েছে। বৃহস্পতিবারের আগে সেটি চালু করা সম্ভব হবে না বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ পরিস্থিতিতে বিমানবন্দরটিতে বিমান ওঠানামায় বিঘ্ন ঘটায় অন্তত ২০০ বিমানকে অন্যত্র পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে অথবা তাদের যাত্রা বিলম্বিত হয়েছে। 

মুম্বাইয়ের অনেকগুলো স্টেশন ও রেললাইন পানিতে ডুবে যাওয়ায় দীর্ঘ পাল্লার ট্রেন চলাচল প্রায় বন্ধ হয়ে আছে। অনেক ট্রেনের যাত্রা বিলম্বিত হচ্ছে বা বাতিল করা হচ্ছে। তবে আন্তঃনগর ট্রেন চলাচলের পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হয়েছে বলে ভারতের ওয়েস্টার্ন রেলওয়ে জানিয়েছে।

৪ ও ৫ জুলাই থানে ও পালঘরে ‘অতি ভারী’ বৃষ্টিপাত হতে পারে বলে সতর্ক করেছে আবহাওয়া দপ্তর। পাশাপাশি ৩ থেকে ৫ জুলাইয়ের মধ্যে মুম্বাইয়ে ‘গুরুতর বন্যার ঝুঁকি’ আছে বলে সতর্ক করেছে বেসরকারি আবহাওয়া সংস্থা স্কাইমেট।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ