ঢাকা, শনিবার 6 July 2019, ২২ আষাঢ় ১৪২৬, ২ জিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

মহেশখালীর হাত-পা বিহীন সালাহ উদ্দিন মানুষ হওয়ার স্বপ্ন দেখেছে

প্রতিবন্ধী সালাহ উদ্দিন

সরওয়ার কামাল, মহেশখালী (কক্সবাজার) : মহেশখালী উপজেলা কালারমার ছড়া ইউনিয়নের উত্তর নলবিলা গ্রামের বাসিন্দা মো. জালালের আদরের ছেলে দুই হাত, দুই পা না থাকা প্রতিবন্ধী সালাহ উদ্দিন(১৫) সে জন্মগত ভাবে প্রতিবন্ধী।
কিন্তু একজন প্রতিবন্ধীর সামনে যে সামাজিক, পারিবারিক, পরিবেশগত প্রতিবন্ধকতা থাকে, এসব কিছুকে ডিঙিয়ে নিজেকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে দুর্বার গতিতে। দরিদ্র পরিবারের সন্তান তিনি। বাবা পেশায় একজন জেলে। এক ভাই ও পাঁচ বোনের সংসারে একমাত্র বাবা মুহাম্মদ জালালের আয় নিয়ে সংসার চলে। বলতে গেলে দিন আনে দিন খায় এরা। কিন্তু তীব্র দারিদ্রতা প্রতিবন্ধি সালাহ উদ্দীনের ইচ্ছা শক্তিকে থামাতে পারেনি। অত্যন্ত অমায়িক একটা ছেলে। হাত পাঁ বিহীন প্রতিবন্ধী হয়েও মোড়ানো পায়ের পেশীশক্তির উপর ভর করে লিখে তিনি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও মাধ্যমিক শিক্ষা লেবেলে দুটি সার্টিফিকেট অর্জন করেছেন। বর্তমানে কালারমার ছড়া ইউনিয়নের উত্তর নলবিলা উচ্চ বিদ্যালয়ে নবম শ্রেণির নিয়মিত ছাত্র প্রতিবন্ধী সালাহ উদ্দিন। স্থানীয় ইউপি সদস্য লিয়াকত আলী বলেন-বিচক্ষণ ও মেধাবী প্রতিবন্ধী সালাহ উদ্দিন কে নিয়ে বিভিন্ন এলাকায় গর্ব করা যায়। যে গ্রামে প্রতিবন্ধীত্ব জীবন কে হার মানিয়েছে সালাহ উদ্দিন। সে গ্রামে আমাদের নিজের জন্ম বলে গর্ববোধ করি। উত্তর নলবিলা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম বলেন-সালাহ্ উদ্দীন উত্তর নলবিলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে পিএসসি এবং উত্তর নলবিলা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে জেএসসি পরীক্ষায় যথাক্রম জিপিএ-এ গ্রেট (পিএসসি-৪.৩৬-জেএসসি-৪.০৬) পেয়ে সাফল্যর সাথে উত্তীর্ণ হয়েছেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ