ঢাকা, সোমবার 8 July 2019, ২৪ আষাঢ় ১৪২৬, ৪ জিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

নড়াইল জেলা ও দায়রা জজের ক্ষমতা কেন কেড়ে নেয়া হবে না

স্টাফ রিপোর্টার: নড়াইল জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারকের (বিচারিক) ক্ষমতা কেন কেড়ে নেয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট।
একই সঙ্গে ওই জেলা ও দায়রা জজকে (বিচারককে) নড়াইল জেলার কালিয়ার এক হত্যা মামলার প্রধান আসামীর নাম বাদ দিয়ে চার্জ গঠনের কারণ দর্শানোর জন্য বলেছেন আদালত। আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে বিচারকসহ সংশ্লিষ্টদের এ রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।
নড়াইলের কালিয়ার এক হত্যা মামলার প্রধান আসামীর নাম চার্জশিট থেকে বাদ দিয়ে অভিযোগ গঠন করায় গতকাল রোববার হাইকোর্টের বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।
আদালতে রাষ্ট্রপক্ষের শুনানিতে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল নুসরাত জাহান ও সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল ইউসুফ মাহমুদ মোরশেদ। মামলার বাদী নাজমুল হুদার পক্ষে ছিলেন আইনজীবী আব্দুল আলীম।
 মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১৫ সালের ১০ ফেব্রুয়ারি নড়াইলের কালিয়ার চন্ডিনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনের সড়কের ওপর এনামুল নামে এক যুবককে গুলী করে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। ওই ঘটনার পরদিন মল্লিক মাঝহারুল ইসলাম ওরফে মাঝাসহ ৬৮ জনের নাম উল্লেখ করে নিহতের ভাই নাজমুল হুদা কালিয়া থানায় হত্যা মামলা করেন।
ওই মামলায় চলতি বছরের ১০ জুন নড়াইলের জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মামলার প্রধান আসামীর নাম বাদ দিয়ে অভিযোগ গঠন করেন। এরপর বিচারিক আদালতের ওই আদেশ বাতিল চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন করেন নিহত এনামুলের ভাই নাজমুল হুদা। যার ধারাবাহিকতায় আদালত মামলার নথি পর্যালোচনা করে নড়াইলের ওই বিচারকের বিচারিক এখতিয়ার (ক্ষমতা) কেন কেড়ে নেয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ