ঢাকা, মঙ্গলবার 9 July 2019, ২৫ আষাঢ় ১৪২৬, ৫ জিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

গরুর মাংসের ভুনা খিচুড়ি

রিমঝিম শব্দে প্রচুর বৃষ্টি হচ্ছে। ঘর থেকে বের হতে পারছেন না। ঘরে বসে ভাবছেন, একটু ভুনা খিচুড়ি পেলে খারাপ হত না। তাই ভুনা খিচুড়ি তৈরির কয়েকটি রেসিপি দেখে নিন, আর ঝটপট বাসায় তৈরি করে ফেলুন ভুনা খিচুড়ি।
গরুর মাংসের ভুনা খিচুড়ি
ঘরে থাকা কিছু সাধারণ মসলা দিয়ে খুব সহজে তৈরি করতে পারেন গরুর মাংসের ভূনা খিচুড়ি। এটি খেতেও খুব সুস্বাদু ও মজাদার।
উপকরণ : সরিষার তেল, তেজপাতা, এলাচ, পিয়াজ কুঁচি, লং, রসুন বাটা, দারুচিনি, গরুর মাংস, মসুরের ডাল, জিরা গুঁড়ো, লবন, মরিচ গুঁড়ো, কাঁচা মরিচ, পোলাউ চাল ইত্যাদি।
প্রাণালী : প্রথমেই মাংস রান্না করতে হবে। একটি প্যানে ১/৩ কাপ পরিমাণ সয়াবিন তেল নিবেন। তেল গরম হলে ২ টুকরা দারুচিনি, ৩টি এলাচ, ৩টি লং, একটি তেজপাতা (ছিড়ে) দিয়ে ভেজে নিবেন। তারপর  ১ কাপ পরিমাণ পিয়াজ কুচি (পিঁয়াজ মোটা করে কাটতে হবে)  দিয়ে দিবেন। পিঁয়াজ নরম হয়ে গেলে দেড় চামচ পরিমাণ আদা বাটা এবং দেড় চামচ রসুন বাটা দিয়ে কিছু সময় অপেক্ষা করে হাফ কাপ পরিমাণ পানি দিতে হবে (এতে আদা রসুন বাটার কাঁচা গন্ধ চলে যাবে)। এবার গুঁড়ো  মসলা (১ চা চামচ হলুদের গুঁড়ো, দেড় চা চামচের পরিমাণ লাল  মরিচের গুঁড়ো, ১ চা চামচ পরিমাণ জিরা গুড়ো, স্বাদ মত লবন) দিয়ে ভালো ভাবে কষিয়ে নিবেন। মসলার তেল  উপরে উঠে আসলে হাড় চর্বি সহ কেটে রাখা গরুর মাংস মসলার সঙ্গে মিশিয়ে ঢাকা দিয়ে দিবেন। চুলার আঁচ মিডিয়ামে রেখেই মাংস কষিয়ে নিবেন আর মাঝেমাঝে নেড়ে চেড়ে (যাতে পুড়ে না যায়) দিতে হবে। তেল উপরে উঠে আসলে ঝোলের জন্য গরম পানি দিয়ে কম আঁচে রেখে ঢাকনা দিবেন ১ ঘণ্টার জন্য (পানি আপনাদের ইচ্ছা মতো দিতে পারেন তবে মাংস কিন্তু ভুনা ভুনা করতে হবে)। অবশ্যই খেয়াল রাখবেন মাংসে যেন পানি না থাকে। এভাবে মাংস সিদ্ধ করে রান্না করতে হবে।
একটি প্যানে ১/৩ কাপ পরিমাণ সরিষার তেল দিয়ে দিবেন। তেল গরম হলে কিছু গরম মসলা (তেজপাতা ১টি, এলাচ ৩টি, দারুচিনি ২ টুকরা) দিয়ে দিবেন (ফ্লেভারের জন্য)। পেয়াজ কুঁচি দেড় কাপ (হালকা ভেজে নিবেন), ১ টেবিল চামচ আদা বাটা, ১ টেবিল চামচ রসুন বাটা দিয়ে কষিয়ে নিবেন। এরপর একটু পানি দিয়ে গুড়া মসলা (হাফ চা চামচ পরিমাণ হলুদের গুঁড়ো, ১ চা চামচ পরিমাণ লাল মরিচের গুঁড়ো, স্বাদ মতো লবন) দিয়ে দিবেন। এবার ধুয়ে রাখা ৩ কাপ পোলাউয়ের চাল, হাফ কাপ মসুরের ডাল দিয়ে মসলার সঙ্গে একটু ভাজা ভাজা করে ৬ কাপ পানি পরিমাণ দিয়ে দিবেন (৩ কাপ চালে ৬ কাপ পানি, চালের দ্বিগুন পানি নিতে হবে)। চুলার আঁচ মিডিয়ামে রেখে ৫ মিনিট জ্বাল দিবেন। তারপর এর মধ্যে রান্না করা মাংস, গরম মসলার গুঁড়ো এবং ৫ -৬টি কাঁচা মরিচ দিয়ে মিশিয়ে নিবেন। অল্প আঁচে ঢাকা দিয়ে ৭-৮ মিনিটের মতো দমে রেখে দিবেন। কিছু সময় পর উপরের খিচুড়ি নিচে আর নিচের খিচুড়ি  উপরে দিয়ে (সমান ভাবে সিদ্ধ করার জন্য) আবার ৬ -৭ মিনিট দমে রেখে দিতে হবে। এভাবেই তৈরি হয়ে যাবে মজাদার গরুর মাংসের খিচুড়ি।
মুরগির মাংসের ভুনা খিচুড়ি
উপকরণ : পিঁয়াজ কুচি ৩ টেবিল চামচ, ১০ টি লবঙ্গ, ২ টুকরা দারুচিনি, ৫ টি এলাচ, ১টি তেজপাতা, আদা বাটা ১ টেবিল চামচ, রসুন বাটা ১ টেবিল চামচ, জিরা গুঁড়ো দেড় চা চামচ, হলুদ গুঁড়ো ১ টেবিল চামচ, ধনিয়া গুঁড়ো ১ চা চামচ, মুরগির মাংস, পোলাউ চাল ৩ কাপ, মুসরের ডাল ও  মুগ ডাল দেড় কাপ, আস্ত জিরা, কাঁচা মরিচ ইত্যাদি। 
প্রাণালী : একটি প্যানে ৩-৪ টেবিল চামচের মতো তেল নিয়ে ৩ টেবিল চামচের মতো পিয়াজ কুঁচি দিয়ে দিবেন। এবার গরম মসলা (১০টি লবঙ্গ, ৫ টি এলাচ, ২ টুকরা দারুচিনি, তেজপাতা ১টি) দিয়ে ভেজে নিবেন (ফ্লেভাবের জন্য)। একটু পানি দিয়ে ১ টেবিল চামচ আদা বাটা, ১ টেবিল চামচ রসুন বাটা, দেড় চা চামচ জিরা গুঁড়ো, ১ টেবিল চামচের মতো হলুদের গুঁড়ো, ১ চা চামচ ধনিয়া গুঁড়ো, দেড় চা চামচের মতো মরিচের গুঁড়ো দিয়ে কষিয়ে নিবেন। তেল উপরে উঠে আসলে স্বাদ মতো লবন দিয়ে মুরগির মাংস দিয়ে কষিয়ে নিবেন। এর সঙ্গে আস্ত জিরা দিতে পারেন যা চালের সঙ্গে খেতে ভালো লাগবে। এবার পোলায়ের চাল ৩ কাপ এবং দেড় কাপ পরিমাণ মুসরের ডাল ও মুগ ডাল (মুগ ডাল ভেজে নিতে হবে) দিয়ে ভেজে নিবেন। তারপর ৮ কাপ গরম পানি এবং হাফ কাপ পরিমাণ দুধ (চাল নরম করার জন্য) দিয়ে দিবেন। কিছু সময় ঢাকা দিয়ে রাখবেন যাতে পানি শুকিয়ে যায়। এবার ৫-৬টি কাঁচা মরিচ দিয়ে ৪ থেকে ৫ চা চামচ পরিমাণ ঘি দিবেন। তারপর খিচুরি আধা ঘণ্টার জন্য দমে দিয়ে মাঝে মাঝে একটু  নেড়ে দিবেন। সব শেষে চুলার আঁচ নিভিয়ে ১০ মিনিট অপেক্ষা করে নামিয়ে পরিবেষণ করবেন। এভাবেই খুব সহজে রান্না করতে পারবেন মুরগির মাংসের ভুনা খিচুড়ি।
স্বাদে ভরপুর ‘পটলের মালাইকারি’
পটলের তৈরি মালাইকারি খুবই সুস্বাদু একটি খাবার। যারা পটল খেতে পছন্দ করেন না, তারাও একবার এই খাবারটি খেলে এর স্বাদ ভুলতে পারবেন না। আর এটি খুব সহজে ও অল্প সময়ে তৈরি করা যায়। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক পটলের মালাইকারি তৈরির রেসিপিটি-
উপকরণ : পটল  ৮ থেকে ১০ টি, সামান্য হিং, ছোট এলাচ ৩টি, লবঙ্গ ৩টি,দারুচিনি ২ থেকে ৩ টুকরো, আদা-হলুদ-মরিচ বাটা আধা চা চামচ, নারকেল বাটা ১ টেবিল চামচ, লবণ ও চিনি স্বাদমতো, তেল ২ টেবিল চামচ, দই  ৫০ গ্রাম। 
প্রণালী : পটল খোসা ছাড়িয়ে আস্ত রেখে সামান্য একটু চিরে নিন। তেল গরম হলে হিং ও গরম মশলার ফোড়ন দিয়ে পটল গুলো দিয়ে দিন। তারপর লালচে করে ভাজুন। এবার আদা, হলুদ ও মরিচ বাটা দিয়ে পটলগুলো ভালো করে নাড়ুন। তারপর দই, লবণ ও চিনি দিয়ে আরো ২ থেকে ৩ মিনিট কষান। পানিটা শুকিয়ে এলে নারকেল বাটা দিয়ে সামান্য নাড়াচাড়া করে এক চামচ ঘি দিয়ে দিন। এবার নামিয়ে সুন্দর ছড়ানো পাত্রে ঢেলে খাবার টেবিলে পরিবেশন করুন সুস্বাদু পটলের মালাইকারি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ