ঢাকা, বুধবার 10 July 2019, ২৬ আষাঢ় ১৪২৬, ৬ জিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

বেলকুচিতে মাও: রফিকুল ইসলাম খাঁনের মেঝ খালার দাফন সম্পন্ন

আব্দুস ছামাদ খান, বেলকুচি (সিরাজগঞ্জ) সংবাদদাতা : বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী'র সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল মাও: রফিকুল ইসলাম খাঁনের মেঝ খালা ও সিরাজগঞ্জের বিশিষ্ট  আলেমে দ্বীন প্রিন্সিপাল মরহুম মাও: আহম্মদুল্লাহর শাশুড়ি আম্মা,বিশিষ্ট সমাজ সেবক ও ব্যবসায়ী মরহুম আলহাজ আবুল হোসেন আকন্দের স্ত্রী বেগম কমেলা খাতুনের দাফন সম্পন্ন হয়েছে।
গত সোমবার রাত সাড়ে ১০ টার সময় তিনি বেলকুচি উপজেলার ধুকুরিয়াবেড়া গ্রামের নিজ বাসভবণে ইন্তিকাল করেন। ইন্নালিল্লাহি...........রাজিউন।
গতকাল মঙ্গলবার সকালে বেলকুচির ধুকুরিয়াবেড়া ঈদগাঁ মাঠে মরহুমার নামাযে জানাযা অনুষ্ঠিত হয়। জানাযা পূর্ব সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন; মোবাইলের লাউড স্পীকারে মাধ্যমে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী'র সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল মাও: রফিকুল ইসলাম খাঁন,কেন্দ্রীয় মজলিশে শু'রা সদস্য,
সিরাজগঞ্জ জেলা সিনিয়র নায়েবে আমীর, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ মোঃ আলী আলম, জেলা কর্মপরিষদ সদস্য,উল্লাপাড়া উপজেলা আমীর,সাবেক উপজেলা পরিষদ:ভাইস চেয়ারম্যান  অধ্যাপক মাও: শাহজাহান আলী,সদ্য বিদায়ী বেলকুচি  উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান (প্যানেল-০১) উপজেলা সেক্রেটারী আরিফুল ইসলাম সোহেল ও ধুকুরিয়াবেড়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান জামায়াত নেতা মাও: মাহবুবুর রশিদ শামীম প্রমুখ।
জানাযার নামাযে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ,ওলামে-কেরামসহ বিপুল সংখ্যক মুসল্লি অংশ নেয়। জানাযার নামায শেযে মরহুমাকে তাঁর পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল  ৮১ বছর। তিনি ৬ ছেলে ২ মেয়েসহ অসংখ্য নাতী-নাতনী রেখে গেছেন। মরহুমা দীর্ঘদিন বার্ধক্যজনিত কারনে বিভিন্ন রোগে ভুগছিলেন।
এদিকে মরহুমার ইন্তেকালে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন ; বাংলাদেশ  জামায়াতে ইসলামী'র সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল মাও: রফিকুল ইসলাম খাঁন,সিরাজগঞ্জ জেলা আমীর, কেন্দ্রীয় মজলিশে শু'রা সদস্য,অধ্যক্ষ মাও: শাহীনূর আলম, জেলা সেক্রেটারি অধ্যাপক মাও: জাহিদুল ইসলাম, বেলকুচি  উপজেলা আমীর অধ্যাপক নূর-উন-নবী সরকার ও সেক্রেটারি আরিফুল ইসলাম সোহেল প্রমুখ। নেতৃবৃন্দ, শোক-সন্তোপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান ও মরহুমার রুহের মাগফিরাত কামনা করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ