ঢাকা, মঙ্গলবার 23 July 2019, ৮ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৯ জিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

বঙ্গোপসাগরে ট্রলারডুবি, ভেসে এলো ৬ লাশ

ফাইল ফটো

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: কক্সবাজার সমুদ্রসৈকতের সিগাল পয়েন্ট থেকে ছয় ব্যক্তির মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ বুধবার ভোরে এসব লাশ জোয়ারে ভেসে সৈকত ভেড়ে। পরে সকাল সাতটার দিকে ভাসমান একটি ট্রলারের পাশ থেকে মুমূর্ষু অবস্থায় দুজনকে উদ্ধার করে পুলিশ। এখনো অন্তত সাতজন নিখোঁজ।

উদ্ধার করা ব্যক্তিরা হলেন ভোলার চরফ্যাশনের মো. জুয়েল (২২) ও মনির আহমদ (৫০)। তাঁদের কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। হতাহত ও নিখোঁজ ব্যক্তিরা সবাই জেলে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কক্সবাজার সদর থানা পুলিশের ওসি (তদন্ত) মো. খায়রুজ্জামান। তবে নিহতদের পরিচয় এখনো শনাক্ত করা যায়নি।

ওসি খায়রুজ্জামান বলেন, রাতে বিচে থাকা কর্মীরা সৈকতে মরদেহ ভেসে আসার খবর দিলে পুলিশ সীগাল পয়েন্টে গিয়ে ছয়জনের মরদেহ উদ্ধার করে। তারা রোহিঙ্গা নাকি জেলে এটি নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তাদের একটু অদূরে একটি মাছ ধরার নৌকাও উদ্ধার হয়। যাতে মাছ ধরার জালও রয়েছে। তাই নিহতরা জেলেও হতে পারেন।

তিনি জানান, নিহতদের মরদেহ কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। তাদের পরিচয় শনাক্তের কাজ চলছে। মরদেহের সংখ্যা বাড়তে পারে। সাগরে আরও ভাসমান মরদেহ দেখা যাওয়ার তথ্য এসেছে। পুলিশের টিম ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে স্থানীয়রা জানান, মাছ ধরার নিষেধাজ্ঞা চললেও পেটের তাগিদে হয়ত জেলের দল রাতের আঁধারে ছোট বোট নিয়ে সাগরে মাছ ধরতে নামে। বৈরি আবহাওয়ায় বোট উল্টে তাদের মৃত্যু হতে পারে।

ডিএস/এএইচ

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ