ঢাকা, বৃহস্পতিবার 11 July 2019, ২৭ আষাঢ় ১৪২৬, ৭ জিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

বোচাগঞ্জে শত্রুতার জেরে গোয়াল ঘরে আগুন দিয়ে পশু হত্যা

ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) সংবাদদাতা : দিনাজপুরের বোচাগঞ্জ উপজেলার আটগাঁও ইউনিয়নের বিষ্টপুর গ্রামে পূর্ব শত্রুতার জেরে মো. লতিফুর রহমানের গোয়াল ঘরে আগুন দিয়ে একাধিক গরু ও ছাগল পুড়িয়ে হত্যা করা হয়েছে। 

জানা গেছে গতকাল ১০ জুলাই বুধবার আনুমানিক রাত ১টার দিকে মোঃ লতিফুর রহমানের গোয়াল ঘরে কে বা কারা অগ্নিসংযোগ করে পালিয়ে যায়। এসময় এলাকাবাসীর চিৎকারে লতিফুর রহমান ঘুম থেকে উঠে দেখে তার গোয়াল ঘরে আগুন জলছে এলাকাবাসী আগুন নিভাতে চেষ্টা করে। কিন্তু উক্ত গোয়াল ঘরের রক্ষিত ৩টি গরু ও ৩টি ছাগল আগুনে ঝলসে মারা যায়। যার অনুমানিক মূল্য প্রায় ২ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা। একটি গরু মারাত্মক অগ্নিদদ্ধ হয়। উক্ত ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন বোচাগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ ফকরুল হাসান, থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুর রৌফ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আফসার আলী, যুুগ্ম সম্পাদক এটি এম মামুন। এসময় ক্ষতিগ্রস্ত লতিফুর রহমান বলেন আমার শেষ অবলম্বন বলতে এই গরু ছাগলগুলোই ছিল এর মধ্যে অন্যের একটি গরু লালন পালন করছিলাম এই গরু ছাগল গুলো হারিয়ে আমি আজ পথের ভিখারী। কেউ শত্রুতামূলকভাবে এই ঘটনা ঘটাতে পারেন বলে তিনি জানান। ক্ষতিগ্রস্ত লতিফুর রহমান সরকারের সাহায্যে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেওয়ার আকুল আবেদন জানান।

দশ লক্ষ টাকার মালামাল চুরি : দিনাজপুরের বোচাগঞ্জ উপজেলার সেতাবগঞ্জ মিল রোডস্থ মেসার্স সাহা স্টোরসহ দুইটি দোকানে দুর্ধর্ষ চুরি সংগঠিত হয়েছে। গতকাল ১০ জুলাই বুধবার ভোর সাড়ে ৩টায় সেতাবগঞ্জ চিনিকল সড়কে অবস্থিত মেসার্স সাহা স্টোর ও দাস ষ্টোরে দূধর্ষ চুরি সংগঠিত হয়েছে। জানা গেছে অনুমানিক রাত সাড়ে ৩টা দিকে ৭/৮ জনের একটি চোরের দল নৈশ্য প্রহরি মোঃ আরিফ হোসেন, মোঃ লোকমান হোসেন ও মোঃ ভট্টুকে হাত পা বেধে পার্শ্ববর্তী আনন্দপাঠ বিদ্যালয়ের একটি কক্ষে আটকে রেখে মেসার্স সাহা ষ্টোরের তালা ভেঙ্গে নগদ আটলক্ষ টাকা সহ প্রায় দশলক্ষ টাকার মালামাল নিয়ে পালিয়ে যায়। এসময় চোরের দল সাহা ষ্টোরের সিসি টিভি ক্যামেরার ক্ষতি সাধন করে এবং ডিভিআরটি সংগে করে নিয়ে যায়। এসময় পার্শ্বের দাস ষ্টোরের ও চোরেরা ভাংচুর করে। এ ব্যাপারে মেসার্স সাহা ষ্টোরের স্বত্বাধিকারী বিশ্বজিত সাহা বলেন প্রতিদিনের ন্যায় ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে যাই ভোর বেলা মোবাইল ফোনের মাধ্যমে চুরির ঘটনা জানতে পেরে আমার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে গিয়ে দেখি বিভিন্ন আসবা পত্র ভাংচুর করে নগদ টাকা সহ প্রায় ১০ লক্ষ টাকার মালামাল চুরি হয়েছে। বোচাগঞ্জ থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ আব্দুর রৌফ ও বোচাগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফকরুল হাসান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এই চুরির ঘটনায় সেতাবগঞ্জের ব্যবসায়ীদের মাঝে চরম আতংক দেখা দিয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ