ঢাকা, বুধবার 17 July 2019, ২ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৩ জিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

স্বাস্থ্য খাতে বরাদ্দ বাড়ানোর দাবি -পাবলিক হেলথ ফাউন্ডেশন

স্টাফ রিপোর্টার : জাতীয় বাজেটে স্বাস্থ্য খাত বরাবরের মত এবারও বরাদ্দ কম হয়েছে। সাধারণ মানুষের স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করতে হলে এ খাতে বরাদ্দ আরও বাড়াতে হবে। তড়িঘড়ি করে বাজেট ব্যয় করার কারণেই সুবিধা বঞ্চিত হচ্ছে জনগণ।
গতকাল মঙ্গলবার সকালে জাতীয় প্রেস ক্লাবের ভিআইপি মিলনায়তনে পাবলিক হেলথ ফাউন্ডেশন আয়োজিত সেমিনারে বক্তারা এসব কথা বলেন।
সংগঠনের সভাপতি প্রফেসর ডা. কারমিন ইয়াসমিনের সভাপতিত্বে এসময় বক্তব্য রাখেন, অধ্যাপক ড. সৈয়দ আব্দুল হালিম, ড. শাফিউল নাহিদ শিমুল, অধ্যাপক ড. এম এস এ মনসুর আহমেদ, ডা. উরিদা আক্তার, ডা. আমিনুর রসুল, ডা.সমীর কুমার সাহা প্রমুখ। অনুষ্ঠানে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন, ড. শাফিউল নাহিদ শিমুল।
নাহিদ তার প্রবন্ধে বলেন,স্বাস্থ্য সংক্রান্ত ব্যয়ের কারনেই বছরে ৫০ লাখ দারিদ্র লোক নিজ খরচে চিকিৎসা গ্রহন করতে হচ্ছে। এতে করে দিন দিনে দেশের চিকিৎসা ব্যয় বেড়ে যাচ্ছে। সরকারের বাজার মনিটরিং না থাকার কারনেই লাগামহীনভাবেই ওষুধ দাম বাড়ছে।
তিনি আরও এ বাজেট দিয়ে এসডিজি বাস্তবায়ন করা সম্ভব নয়। বাজেট ব্যয়ে তড়িঘড়ি করে হওয়ার কারণেই মানুষ কাংখিত সেবা পায় না। সরকারি ব্যয়ে চিকিৎসা না হওয়ার কারনেই চিকিৎসা ব্যয় বাড়ছেই। এ নিয়ে কোন মনিটরিং নেই।
বক্তারা বলেন,স্বাস্থ্য নিয়ে সরকারকে আরও মনিটরিং বাড়াতে হবে। তা না হলে চিকিৎসা ব্যয় সাধারন মানুষের নাগালের বাহিরে চলে যাবে। বাজার মনিটরিং না থাকার কারণেই কোন কারন ছাড়াই ওধুষের দাম বাড়ছে। এ নিয়ে সরকারের পক্ষ থেকে আরও নজরদারি বাড়ানো দরকার।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ