ঢাকা, শুক্রবার 19 July 2019, ৪ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৫ জিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

ঢাবিতে ৭ কলেজের অধিভুক্তি  বাতিলের দাবিতে ফের  শাহবাগে অবরোধ

 

স্টাফ রিপোর্টার : সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিলের দাবিতে বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় দিনের মতো শাহবাগ মোড় অবরোধ করেছে ঢাবি শিক্ষার্থীরা।

গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের প্রায় পাঁচশ শিক্ষার্থী সড়কে অবস্থান নিলে রাজধানীর অন্যতম ব্যস্ত মোড়টি দিয়ে চতুর্মুখী যান চালাচল বন্ধ হয়ে যায়। আগের দিনের মতো এদিনও বেলা ২টার দিকে আন্দোলন অব্যাহত রাখার ঘোষণা দিয়ে সড়ক ছেড়ে দেয় তারা।

আন্দোলনের মুখপাত্র ব্যবস্থাপনা বিভাগের মোহাম্মদ শাকিল বলেন, আগামী রোববার একই সময়ে তারা আবারও শাহবাগে অবস্থান নেবেন।

বিক্ষোভরতদের ভাষ্য, ২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারিতে সাত কলেজ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধিভুক্ত হওয়ার পর কাজের চাপে তাদের সংশ্লিষ্ট প্রশাসনিক ও শিক্ষা কার্যক্রমে ধীরগতি দেখা দিয়েছে। নিয়মিত পাঠদান, ফলাফল প্রকাশ ব্যাহত হওয়ার পাশাপাশি সেশনজটে পড়তে হচ্ছে।

২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষ থেকেই অধিভুক্তি বাতিলের দাবি তোলার পাশাপাশি এর আগে পর্যন্ত ভিন্ন রং ও নকশাসহ কলেজের নাম উল্লেখ করে সাত কলেজের শিক্ষার্থীদের আলাদা সার্টিফিকেট দেওয়ার দাবি জানান বিক্ষোভরতরা।

এর আগে মঙ্গলবার খাতা মূল্যায়ন যথাযথ না হওয়ার অভিযোগে ও মানোন্নয়নের নিয়ম নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করে সাড়ে তিন ঘণ্টা নিউ মার্কেট মোড় অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখিয়েছিল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত সাত সরকারি কলেজের শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভের বিষয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. গোলাম রাব্বানী গণমাধ্যমকে  বলেন, শাহবাগ অবরোধ করে জনভোগান্তি  তৈরি করার সঙ্গে আন্দোলনের কোনো সম্পর্ক নেই। আমরা শিক্ষার্থীদের দাবিগুলো সম্বন্ধে অবগত। আলোচনার মাধ্যমে যে কোনো সমস্যার সমাধান করতে আমরা প্রস্তুত। কিন্তু তারা আমাদের সাথে আলোচনা না করেই রাস্তা অবরোধ করে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে এখন সেশনজট নেই দাবি করে তিনি বলেন, শিক্ষার্থীরা এমন কোন কর্মসূচি কেন হাতে নেব, যাতে তাদের শিক্ষাজীবন ব্যাহত হয়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে আবার সেশনজট ফিরে আসে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ