ঢাকা, সোমবার 19 August 2019, ৪ ভাদ্র ১৪২৬, ১৭ জিলহজ্ব ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

প্রিয়া সাহার বক্তব্যের নিন্দা করেছে সম্প্রীতি বাংলাদেশ

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে বাংলাদেশের প্রিয়া সাহা’র বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়েছে সম্প্রীতি বাংলাদেশ। সংগঠনের আহ্বায়ক পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায় ও সদস্য-সচিব ডা. মামুন আল মাহতাব স্বপ্নীল এক বিজ্ঞপ্তিতে আজ বলেন, তার বক্তব্য দেশের শুভবোধসম্পন্ন সব মানুষের আবেগ ও অনুভূতিতে আঘাত হেনেছে।

সম্প্রীতি বাংলাদেশ নেতৃবৃন্দ বলেন, আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে বাংলাদেশের প্রিয়া সাহা যে সব কথা বলেছেন, তা বাংলাদেশের হাজার বছরের চেতনা বিরোধী এবং মহান মুক্তিযুদ্ধের দর্শনকে অস্বীকার ও অবজ্ঞা করার সামিল।

একইভাবে জঙ্গিবাদ ও সাম্প্রদায়িকতা প্রতিরোধ মোর্চার পৃথক এক বিবৃতিতে দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয় নিয়ে বহিঃশক্তির কাছে এ ধরনের হস্তক্ষেপ কামনা করাকে রাষ্ট্রদ্রোহিতামূলক অপরাধ হিসাবে অভিহিত করে এ বক্ত্যব মুক্তিযুদ্ধের দর্শনকে অস্বীকার ও অবজ্ঞা করার সামিল বলে মন্তব্য করা হয়েছে। সূত্র : বাসস

জঙ্গিবাদ ও সাম্প্রদায়িকতা প্রতিরোধ মোর্চার নেতৃবৃন্দ আজ এক যৌথ বিবৃতিতে দেশে হঠাৎ করে সাম্প্রদায়িক উস্কানি সৃষ্টি করে ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের পরিকল্পিত চক্রান্তে উদ্বেগ প্রকাশ করে যেকোনো মূল্যে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষা করার আহ্বান জানান।

সম্প্রীতির বিবৃতিতে বলা হয় , অন্য সবার মতো সম্প্রীতি বাংলাদেশ বিশ্বাস করে বাংলাদেশ ও বাঙালি জাতি দীর্ঘকাল ধরে অসাম্প্রদায়িকতা ও সর্ব ধর্মের সুসম্পর্কের ক্ষেত্রে দৃষ্টান্ত স্থাপন করে চলেছে। এটা আজ প্রমাণিত সত্য যে, সর্ব ধর্মের সম্প্রীতি ঐতিহাসিকভাবে অটুট বলেই জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে মহান মুক্তিযুদ্ধে আমরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে বিজয়ী হয়েছি।

তারা বলেন, তারই ধারাবাহিকতায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তার সরকার সব সাম্প্রদায়িক শক্তিকে কঠোর হাতে দমন করে প্রমাণ করেছেন ধর্ম যার যার বাংলাদেশ সবার।বিবৃতিতে দেশের সব মানুষ অসাম্প্রদায়িকতার চিরায়ত ঐতিহ্য ও দর্শনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল থাকবে বলে সম্প্রীতি বাংলাদেশ আশা প্রকাশ করে।

জঙ্গিবাদ ও সাম্প্রদায়িকতা প্রতিরোধ মোর্চার যৌথ বিবৃতিতে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টের যে কোনো চক্রান্ত রুখে দেয়ার আহবান জানিয়ে বলা হয় , “দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয় নিয়ে বহিঃশক্তির কাছে এ ধরনের হস্তক্ষেপ কামনা করা নিঃসন্দেহে রাষ্ট্রদ্রোহিতামূলক অপরাধ বলে আমরা পরিষ্কারভাবে মনে করি।”

এ ধরনের রাষ্ট্রবিরোধী অপতৎপরতাকে কেউ কেউ রাজনৈতিক সংস্কৃতিতেই পরিণত করেছে উল্লেখ করে বিবৃতিতে এ ধরনের সকল অপতৎপরতা বন্ধ করতে সংশি¬ষ্ট সবার প্রতি আহ্বান জানিয়ে একই সাথে এসব অপরাধের বিচার দাবিও করেন বিবৃতিদাতারা ।

তারা বলেন, আশঙ্কাজনক হলো, রাষ্ট্রে যখন একটি গণতান্ত্রিক আবহ বিরাজ করছে, পুরো বাংলাদেশ ও বাঙালি জাতি অপেক্ষা করে আছে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী পালনের জন্য, তখনই দেশে নতুন করে চক্রান্ত মূলক উস্কানি ও পরিকল্পিত অরাজকতা সৃষ্টির চেষ্টা করা হচ্ছে।

মোর্চার বিবৃতিতে স্বাাক্ষর করেছেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সহ-সভাপতি সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা, কবি ও সাংবাদিক অসীম সাহা, সম্প্রীতি বাংলাদেশ এর সদস্য সচিব ডা. মামুন আল মাহতাব স্বপ্নীল, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পুষ্টি ও খাদ্যবিজ্ঞান ইনস্টিটিউটের সহযোগী অধ্যাপক আব্দুজ জাহের, বাণী ইয়াসমিন হাসি, বাপ্পাদিত্য বসু ,এফ এম শাহীন, অর্ণব দেবনাথ প্রমুখ।
ডিএস/এএইচ

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ