ঢাকা, মঙ্গলবার 23 July 2019, ৮ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৯ জিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

আজ থেকে ৫ বিভাগে ত্রাণ বিতরণ ও চিকিৎসা সেবা দেবে বিএনপি

গতকাল সোমবার বিএনপি চেয়ারপার্সনের গুলশান কার্যালয়ে ত্রাণ কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর -সংগ্রাম

স্টাফ রিপোর্টার : বানভাসী মানুষের পাশে দাঁড়াতে রাজশাহী, রংপুর, সিলেট, ময়মনসিংহ ও ফরিদপুর বিভাগে ৫টি আলাদা ত্রাণ কমিটি গঠন করে আজ মঙ্গলবার থেকেই কার্যক্রম শুরু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিএনপি। গতকাল সোমবার বিকেলে বৈঠকের পর দলের কেন্দ্রীয় ত্রাণ কমিটির আহ্বায়ক বিএনপির স্থায়ী কমিটি সদস্য ইকবাল হাসান মাহমুদটুকু এই সিদ্ধান্তের কথা জানান।
তিনি বলেন, সারাদেশে যে ভয়াবহ বন্যা শুরু হয়েছে তাদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য আমরা দলের জাতীয় ত্রাণ কমিটি প্রতিটি বিভাগে ত্রাণ কমিটি পরিচালনার জন্য একটি করে কমিটি গঠন করেছি। সেই কমিটিগুলোর নেতৃত্ব দেবেন দলের সিনিয়ন নেত্বৃৃন্দ এবং এবং তাদের সঙ্গে সমন্বয়কারী হিসেবে থাকবেন সাংগঠনিক সম্পাদকবৃন্দ। এছাড়া প্রতিটি জেলাও একটি করে ত্রাণ কমিটি থাকবে। আগামীকাল (মঙ্গলবার) থেকে রিলিফ কমিটি কাজ শুরু করবে। এই টিমের সাথে একটা করে মেডিকেল টিম থাকবে, আমরা ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প করব।
বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন ময়মনসিংহে, দলের চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য মিজানুর রহমান মিনু রাজশাহী ও খন্দকার মোক্তাদির সিলেটে, দলের যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল রংপুরে ও খায়রুর কবির খোকনকে ফরিদপুর বিভাগের আহবায়ক করে বিভাগীয় ত্রাণ কমিটি গঠন করা হয়।
গতকাল বিকেলে গুলশানে চেয়ারপার্সনের কার্যালয়ে দলের ২১ সদস্যের কেন্দ্রীয় ত্রাণ কমিটির বৈঠক হয়। বৈঠকে লন্ডন থেকে স্কাইপেতে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান যুক্ত হন এবং ত্রাণ কার্যক্রম চালাতে যথাযথ নির্দেশনাও দেন। বৈঠকে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরও উপস্থিত ছিলেন।
কেন্দ্রীয় ত্রাণ কমিটির বৈঠকে আরো উপস্থিত ছিলেন, দলের ভাইস চেয়ারম্যান বরকতউল্লাহ বুলু, মোহাম্মদ শাহজাহান, চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা মনিরুল হক চৌধুরী, জয়নুল আবদিন ফারুক, যুগ্ম মহাসচিব মজিবুর রহমান সারোয়ার, হারুনুর রশীদ, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, আসাদুল হাবিব দুলু, সাখাওয়াত হাসান জীবন, সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, বিলকিস জাহান শিরিন, শামা ওবায়েদ, কেন্দ্রীয় নেতা মীর সরফত আলী সপু, আবদুল লতিফ জনি, হালিমা নেওয়াজ আরলি, রফিকুল ইসলাম, আমিরুল ইসলাম খান আলীম, মইনুল হাসান সাদী, আমিনুল ইসলাম, তাজভীরুল ইসলাম, রিয়াজউদ্দিন নসু, আবদুল খালেক, জাকির হোসেন বাবু, রাবিকুল করীম পাপ্পু প্রমুখ। রংপুর বিভাগে ত্রাণ কমিটি আগামী ২৭ জুলাই লারমনিহাট ও কুড়িগ্রাম এবং ২৮ জুলাই গাইবান্ধায় ত্রাণ কার্যক্রম শুরু করবে বলে জানিয়েছে জাতীয় ত্রাণ কমিটি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ