ঢাকা, সোমবার 19 August 2019, ৪ ভাদ্র ১৪২৬, ১৭ জিলহজ্ব ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

ব্রেক্সিট সফল হচ্ছে: নতুন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: ব্রেক্সিট নিয়ে চলমান সংকটের মধ্যে ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েই বরিস জনসন ঘোষণা দিয়ে বলেছেন, আমরা দেশকে শক্তি দিতে যাচ্ছি। একইসঙ্গে ব্রেক্সিট (ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে ব্রিটেনের বের হয়ে যাওয়া) চুক্তি বাস্তবায়ন করতে যাচ্ছি।

ব্রেক্সিট; যে চুক্তির জঞ্জাল বা ব্যর্থতা নিয়ে কি-না টেরিজা মে’র পদত্যাগ করতে হয়েছিল, তীব্র সংকটে কাটাতে হয়েছিল প্রধানমন্ত্রিত্ব, এবার সেই ‘গলার কাঁটা’ সরাতে সফল পদক্ষেপ আসছে বললেন নবাগত প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন।

মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) স্থানীয় সময় দুপুর ১২টার দিকে এই ‘নিউ ট্রয় লিডার’ বলেন, একটি নতুন কর্মশক্তিতে চলতে পারে এবার দেশ।

মঙ্গলবার প্রায় দুইমাসের ভোট আনুষ্ঠানিতা শেষে বরিস জনসন দেশের নতুন প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন। দেশটির বর্তমান পররাষ্ট্রমন্ত্রী জেরেমি হান্টকে বিপুল ভোটের ব্যবধানে টপকে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর বাসভবন ও দপ্তর ‘১০ ডাউনিং স্ট্রিট’ নিজের দখলে নিয়ে নেন এই জনপ্রিয় ব্যক্তিত্ব।

ভোটের প্রাপ্ত ফলাফলে দেখা যায়, বরিস জনসন পেয়েছেন ৯২ হাজার ১৫৩ ভোট। অন্যদিকে জেরেমি হান্ট পেয়েছেন ৪৬ হাজার ৬৫৬ ভোট।

এর আগে বরিস জনসনের ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী হওয়া নিয়ে নানা বিতর্ক ওঠে। সমালোচকরা তাকে ব্রিটেনের ট্রাম্প হিসেবে অভিহিত করে থাকেন। নির্বাচনের আগে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বরিস জনসনকে প্রকাশ্যে সমর্থন দেয়ায় সমালোচনার ঝড় ওঠে।

ব্রেক্সিটে নিয়ে অচলাবস্থার সময় বরিস জনসন প্রধানমন্ত্রী হওয়া গুরুত্বপূর্ণ। থেরেসা মে সংকট সমাধানে ব্যর্থ হওয়ার পর দ্বায়িত্ব এখন তাঁর কাধে। সেটি পালনে তিনি কতটা সাফল্য দেখাতে পারেন তাই এখন দেখার বিষয়।

বরিস জনসন হওয়ায় তার নীতির সঙ্গে দ্বিমত পোষণ করেন এমন ব্রিটিশ মন্ত্রীরা পদত্যাগ করবেন।এদের মধ্যে রয়েছেন অর্থমন্ত্রী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রী।

ডিএস/এএইচ

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ