ঢাকা, বুধবার 24 July 2019, ৯ শ্রাবণ ১৪২৬, ২০ জিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

যুক্তরাজ্যের নতুন প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন

সংগ্রাম ডেস্ক : যুক্তরাজ্যে ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ দলের নেতা নির্বাচিত হয়েছেন সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরিস জনসন। দলের সদস্যরা চার দফা ভোটের পর গতকাল মঙ্গলবার তাকে নতুন নেতা নির্বাচিত করেছেন। দেশটির সংবিধান অনুযায়ী ক্ষমতাসীন দলের শীর্ষনেতাই প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন। সেই নিয়ম অনুযায়ী আজ বুধবার বিকেলে প্রধানমন্ত্রীর শপথ নেবেন বরিস জনসন। গতকাল মঙ্গলবার শেষ দিনের মতো পূর্ণ কর্মদিবস দায়িত্ব পালন করবেন বিদায়ী প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে। বাংলাট্রিবিউন
ব্রেক্সিট ইস্যুতে সমঝোতায় পৌঁছাতে ব্যর্থ হয়ে মে মাসে পদত্যাগের ঘোষণা দেন যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে। ৭ জুন যুক্তরাজ্যের ক্ষমতাসীন দলের নেতার পদ থেকে থেরেসার সরে দাঁড়ানোর পর নতুন নেতা নির্বাচনের প্রক্রিয়া শুরু করে রক্ষণশীল দল। গত ১৩ জুন থেকে শুরু চার দফার ভোটের প্রায় সবক’টিতেই এগিয়ে ছিলেন বরিস জনসন।
নির্বাচিত হয়ে বিদায়ী প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে এবং তার মূল প্রতিদ্বন্দ্বী জেরেমি হান্টের প্রতি সম্মান জানিয়েছেন বরিস জনসন। তিনি বলেন, জেরেমির দারুণ কিছু পরিকল্পনা আছে। সেগুলো নিয়ে নিজেও কাজ করতে চান বলে জানিয়েছেন তিনি। এছাড়া বিদায়ী প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মেকেও তাদের দেশের প্রতি অবদানের জন্য সম্মান জানান।
ইতোমধ্যে বরিস জনসনকে অভিনন্দন জানিয়েছেন থেরেসা মে। এক টুইট বার্তায় তিনি বলেন, ‘কনজারভেটিভদের নেতা নির্বাচিত হওয়ায় বরিস জনসনকে অনেক অভিনন্দন। এখন আমাদের সবাইকে মিলে ব্রেক্সিট ইস্যুতে এমনভাবে কাজ করতে হবে, যেন তা সর্বোচ্চ ফলপ্রসূ হয়। আর জেরেমি করবিনকে এসব প্রক্রিয়ার বাইরে রাখতে হবে। আপনার সরকারের প্রতি পূর্ণ সমর্থন আছে আমার।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ