ঢাকা, বৃহস্পতিবার 22 August 2019, ৭ ভাদ্র ১৪২৬, ২০ জিলহজ্ব ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

প্রতিবেশীর কুকুরের সঙ্গে “অবৈধ সম্পর্ক'র অপরাধে শাস্তি হলো কুকুরের

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: কেরলের থিরুবনন্তপূরমের একটি বাজারে বওয়ারিশের মত ঘুরে বেড়াচ্ছিল সাদা ধবধবে একটি কুকুর।তবে তার গলায় ঝুলছিল মালয়ালাম ভাষায় লেখা চিরকূট।সেটি তার মালিকের লেখা। সেটি নজরে আসে এক মহিলার। তিনি কুকুরটির কাছে গিয়ে সেটির গলায় লাগানো চিরকূটটি পড়েন।এরপর রীতিমতো থ হয়ে যান। ওই চিরকূটটিতে লেখা, “প্রতিবেশীর এক কুকুরের সঙ্গে ‘অবৈধ সম্পর্ক' গড়ায় আমার পোষ্যকে আমি পরিত্যাগ (dog abandoned) করলাম”।কুকুরটির বয়স তিন বছর। 

চিরকূটটিতে আরো লেখাছিল, “কুকুরটিকে খুব সুন্দর করে ব্রিড করে নিয়ে আসা হয়। এর ব্যবহারও খুব ভাল। এর জন্যে খুব বেশি খাবারেরও প্রয়োজন পড়ে না। ওর কোনও রোগও নেই। প্রতি ৫দিন অন্তর ওকে স্নান করানো হয়। শুধু ও একটু বেশি ডাকে। গত ৩ বছরে ও কাউকে কামড়ায়নি। ওকে সাধারণত দুধ, বিস্কুট ও কাঁচা ডিম খাওয়ানো হয়। একে এই জন্যেই বাড়ি থেকে বের করে দিলাম কারণ এটি আমার প্রতিবেশীর কুকুরের সঙ্গে অবৈধ সম্পর্কে জড়িয়ে গেছিল”।

শামীন, যিনি এই কুকুরটিকে উদ্ধার করেছেন, সংবাদসংস্থা এএনআইকে জানান, একটি কুকুর এলাকায় ঘুরে বেড়াচ্ছে খবর পেয়ে তিনি সেখানে গিয়ে তাকে নিজের বাড়িতে নিয়ে আসেন।

তিনি  জানিয়েছেন, সাধারণত আহত হলে বা শারীরিকভাবে অসুস্থ হলে কুকুরদের বাতিল করে দেন মালিকরা, কিন্তু “অবৈধ সম্পর্ক” গড়ার অভিযোগে কোনও কুকুরকে তাঁর মালিক বাড়ি থেকে বের করে দিয়েছেন  এই ঘটনা তাঁর কাছে প্রথম।

ডিএস/এএইচ

 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ