ঢাকা, সোমবার 5 August 2019, ২১ শ্রাবণ ১৪২৬, ৩ জিলহজ্ব ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

সময়ক্ষেপণ না করে এডিস মশা নিধনে দ্রুত ওষুধ আমদানি করেন -ওবায়দুল কাদের

স্টাফ রিপোর্টার : এডিস মশা নিধনে ওষুধের কার্যকারিতার পরীক্ষা-নিরীক্ষায় সময়ক্ষেপণ না করে দ্রুত আমদানি করার জন্য দুই সিটি করপোরেশনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।
গতকাল রোববার রাজধানীর শান্তিনগরে ডেঙ্গু প্রতিরোধে আওয়ামী লীগের পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা অভিযানের অংশ হিসেবে আয়োজিত কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে এ আহ্বান জানান ওবায়দুল কাদের। এ সময় উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সাংসদ ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক শামীম, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সদস্য মির্জা আজম, এস এম কামাল, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ প্রমুখ।
এ সময় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘কার্যকর ওষুধের জন্য দুই সিটি করপোরেশন চেষ্টা করছে। আমরা আশা করছি, অনতিবিলম্বে বেশি পরীক্ষা-নিরীক্ষা না করে ডেঙ্গু রোগের যে ভয়ংকর বিস্তার ঘটেছে, তা প্রতিরোধ করার জন্য ইমিডিয়েটলি যা যা করণীয়, আপনাদের করতে হবে।’
ডেঙ্গু প্রতিরোধে এবং জনগণকে এ বিষয়ে তথ্য দিতে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোকে সমন্বিত উদ্যোগ গ্রহণের আহ্বান জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমি শুধু অনুরোধ করব, দুই সিটি করপোরেশনের মেয়র, স্বাস্থ্যমন্ত্রীসহ কর্মকর্তারা এবং স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়কে সমন্বিতভাবে কাজ করতে হবে। আপনাদের একেকজন একেক কথা বললে বিভ্রান্তি ছড়াবে। আমি আপনাদের অনুরোধ করব, আপনারা যা বলবেন, একসঙ্গে বসে সমন্বিতভাবে ঠিক করে দেবেন যে, কোন দিন কী বক্তব্য, কী আপডেট আপনারা জনগণকে দেবেন। এমন কোনো বিষয় একেকজন বলবেন না, যাতে আজকে জনমনে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়, বিভ্রান্তির সৃষ্টি হয়।’
সেতুমন্ত্রী আরো বলেন, ‘যত দিন পর্যন্ত আমরা প্রাণঘাতী ডেঙ্গু থেকে মানুষকে রক্ষা করতে পারব না, তত দিন পর্যন্ত আমাদের এই পরিচ্ছন্নতা অভিযান অব্যাহত থাকবে।’
এ সময় লোক দেখানো পরিচ্ছন্নতা অভিযান না করে ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে গিয়ে কার্যকর পদক্ষেপ নেওয়ারও আহ্বান জানান ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘লোক দেখানো প্রোগ্রাম করবেন না। ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে এই পরিচ্ছন্নতা অভিযান সফর করতে হবে। একটা মাইক লাগিয়ে কিছু লোক জড়ো করে পরীক্ষামূলক অনুষ্ঠান করে আমাদের দায়িত্ব শেষ করলে এডিস মশা দমন করা যাবে না।’
এ সময় গায়ে জ্বর থাকলে ঈদে বাড়ি যাওয়ার আগে রক্ত পরীক্ষা করার আহ্বান জানান সেতুমন্ত্রী।
শোকের মাসে কোনো অপশক্তি যেন দেশে অনাকাক্সিক্ষত ঘটনা ঘটাতে না পারে, সে জন্য নেতাকর্মীদের সতর্ক থাকারও আহ্বান জানান ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘এই শোকের মাসে আমরা ডেঙ্গু নিয়ে ব্যস্ত আছি। কিন্তু এই এডিস মশাদের চেয়েও বিপজ্জনক হচ্ছে এক অপশক্তি, অন্ধকারের শক্তি, এক কালো শক্তি। আগস্ট মাস এলেই এই অপশক্তির অশুভ তৎপরতা শুরু হয়। কাজেই ডেঙ্গুতে আমাদের ব্যস্ত রেখে এই অপশক্তি যাতে বাংলাদেশে কোনো রক্তাক্ত ট্র্যাজেডি ঘটাতে না পারে, সে জন্য আমাদের সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে।’
এ সময় ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. সাঈদ খোকন বলেন, সর্বশক্তি দিয়ে ডেঙ্গু মোকাবিলায় কাজ করছে সিটি করপোরেশন।
সাঈদ খোকন বলেন, আগামী সেপ্টেম্বর মাসের প্রথম সপ্তাহে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন এলাকা ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে থাকবে ইনশাআল্লাহ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ