ঢাকা, শনিবার 10 August 2019, ২৬ শ্রাবণ ১৪২৬, ৮ জিলহজ্ব ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

ঈদে কাশ্মীরে ফেরার দরকার নেই বাবা

৯ আগস্ট, পার্সটুডে : ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে সীমিত পর্যায়ে টেলিফোন ব্যবস্থা পুনরায় চালু করা হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার শ্রীনগরের ডেপুটি কমিশনার বা ডিসির দফতরে দু’টি মাত্র ফোন ব্যবহার করে কাশ্মীরের বাইরে জরুরি ফোন করার অনুমতি দেয়া হয়েছে। সে সময়ে এক কাশ্মীরি মা পবিত্র ঈদ উল আযহায় ছেলেকে কাশ্মীরে ফিরতে মানা করেন।  ফোন করার জন্য শ্রীনগরের লাল চক এলাকায় ডিসি অফিসে জওহার নগর থেকে পায়ে হেঁটে যান এ দুর্ভাগা মা। নিজের পরিচয় দিতে যেয়ে তিনি বলেন, কাশ্মীরের অনেক মায়ের একজন বা ‘মৌজা আক।’ জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা কেড়ে নেয়া এবং ওই এলাকাকে ভারতের সঙ্গে একীভূত করে নেয়ার ঘোষণা দেয়ার পরপরই কাশ্মীরের সঙ্গে বাইরের  সব যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়া হয়। আপাতত শ্রীনগরের ডিসি অফিস থেকে সতর্ক নজরদারির ভিত্তিতে জরুরি ফোন করার অনুমতি দেয়াকে ভারতের কোনও কোনও সংবাদ মাধ্যম সেখানে আংশিক যোগাযোগ ব্যবস্থা চালু করা হয়েছে বলে উল্লেখ করেছে। ব্যাঙ্গালুরে অবস্থিত ছেলেকে তিনি বলেন, কাশ্মীরের পরিস্থিতি উত্তেজনাকর। এ অবস্থায় তার হিরের টুকরা ছেলের ঈদ করতে কাশ্মীরে ফেরার কোনও দরকার নেই। ছেলেটি মায়ের ফোন পেয়ে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েছিল বলেও জানান তিনি। পাশাপাশি বলেন, তাদের নিয়ে দুঃচিন্তা করতে নিষেধ করেন ছেলেকে। সাধারণ ভাবে কাশ্মীরীদের এক মিনিটের মধ্যে কথা শেষ করতে বাধ্য করা হয়। কি বিষয়ে কথা বলা হবে তাও আগে জানানোর পরই ফোন করার অনুমতি মিলেছে। শ্রীনগরের ডিসি অফিসের দু’টো ফোন থেকে বেশির ভাগ ক্ষেত্রে কাশ্মীরের বাইরে বসবাসরত সন্তানদের সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করা হয়েছে। শ্রীনগরের ডিসি অফিসে জরুরি ফোন করার জন্য যারা জড়ো হয়েছিলেন তাদের বেশির ভাগই নারী। ঘর থেকে বের হলে পুরুষরা ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনীর ব্যাপক তল্লাসির মুখে পড়েন বলে নিরুপায় কাশ্মীরী নারীরাই বের হতে বাধ্য হয়েছেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ