ঢাকা, শুক্রবার 30 August 2019, ১৫ ভাদ্র ১৪২৬, ২৮ জিলহজ্ব ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

‘ফররুখ আহমদ: শ্রেষ্ঠ শিশু-কিশোর সাহিত্য’

 মুহম্মদ মতিউর রহমান : আলোচ্য গ্রন্থটি কবি ফররুখ আহমদের বিভিন্ন শিশুতোষ গ্রন্থ থেকে নির্বাচিত ছড়া, কবিতা, গান ও  গল্পের সংকলন। এতে কবির প্রখ্যাত ‘পাখির বাসা’ শিশুতোষ গ্রন্থ থেকে ১৭টি, ‘হরফের ছড়া’ গ্রন্থ থেকে ২৬টি, ‘চিড়িয়াখানা’ গ্রন্থ থেকে ১৭টি, ‘ছড়ার আসর’ গ্রন্থ থেকে ৬টি, ‘ছড়া ছবির দেশে’ গ্রন্থ থেকে ৮টি, ‘ফুলের জলসা’ গ্রন্থ থেকে ১৮টি, ‘পাখির ছড়া’ গ্রন্থ থেকে ১৭টি, ‘কাগা-বগা ও হিজিবিজি’ গ্রন্থ থেকে ১৩টি ছড়া- কবিতা, ‘গীতিকাব্য’ গ্রন্থ থেকে ৯টি গান ও ‘সাত ডাকাত ও হাতেম তায়ী’ গল্পটি সংকলিত হয়েছে। উপরোক্ত ছড়া, কবিতা, গান ও গল্প সবই শিশু- কিশোরদের উপযোগী।

উপরোক্ত সংকলনটি কবি ফররুখ আহমদের শিশু- কিশোর রচনাবলির  প্রতিনিধিত্বমূলক একটি মূল্যবান গ্রন্থ। গ্রন্থটি পাঠ করলে ফররুখ আহমদের শিশুতোষ রচনাবলি সম্পর্কে একটি সুস্পষ্ট ধারণা লাভ করা সম্ভব। গ্রন্থটির প্রচ্ছদ ও অলঙ্করণে বাংলাদেশের প্রখ্যাত তিনজন গুণীশিল্পী সযতœ অবদান রেখেছেন। তাঁদের নিপুণ অঙ্কনশৈলীতে বিচিত্র রঙে সুশোভিত ও দৃষ্টিনন্দন হয়ে উঠেছে গ্রন্থটি। শিশু- কিশোরদের নিকট  অত্যন্ত আকর্ষণীয়ভাবে বাংলাদেশের একজন শ্রেষ্ঠ কবির অমূল্য কাব্য -সম্ভার সুন্দরভাবে প্রকাশের জন্য ‘দেশজ প্রকাশন ’কে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই। মানসম্মত কাগজে চার রঙে  নিখুঁতভাবে মুদ্রিত এ গ্রন্থটির মূল্য মাত্র ৫০০ টাকা।

 বাংলা সাহিত্যের অন্যতম শ্রেষ্ঠ মৌলিক প্রতিভাধর শক্তিমান কবি ফররুখ আহমদ (জন্ম:১০ জুন ১৯১৮- মৃত্যু ১৯ অক্টোবর ১৯৭৪)। তিনি সাহিত্যের বিভিন্ন শাখায় অবদান রাখলেও মূলত কবি হিসাবে সমধিক পরিচিত। বাংলা কাব্যের বিভিন্ন শাখায় তাঁর অবদান অপরিসীম। গীতি কবিতা, সনেট, ব্যঙ্গকবিতা, শিশুতোষ ছড়া-কবিতা, মহাকাব্য, গীতিনাট্য , কাব্যনাট্য ইত্যাদি বিভিন্ন রূপরীতিতে তিনি অনবদ্য কাব্য সম্ভার উপহার দিয়ে গেছেন। চল্লিশের দশকে তাঁর কাব্য -প্রতিভার উন্মেষ ঘটে। তাঁকে চল্লিশের শ্রেষ্ঠ কবি হিসাবে গণ্য করা হয়। প্রকৃতপক্ষে, জীবনকালে তিনি সমকালীন কবিদের মধ্যে সর্বাধিক প্রতিভাবান ও জনপ্রিয় কবি ছিলেন। তিনি আদর্শনিষ্ঠ, ঐতিহ্য- সচেতন, স্বদেশপ্রেমিক ও জাতীয় জাগরণের  বলিষ্ঠ কবিকণ্ঠ  হিসাবে সর্বজনস্বীকৃত। তাঁর রচিত গীতিকাব্য, মহাকাব্য,সনেট, ব্যঙ্গকাব্য, গীতিনাট্য, কাব্যনাট্য ইত্যাদি সম্পর্কে অনেকেই আলোচনা করেছেন। কিন্তু তাঁর রচিত শিশু- কিশোর রচনাবলি নিয়ে তেমন একটা আলোচনা হয়নি।

ফররুখ আহমদের শিশু- কিশোরদের উপযোগী গ্রন্থের সংখ্যা মোট ছাব্বিশটি। এগুলো যথাক্রমে- ১.পাখীর বাসা, ২. হরফের ছড়া, ৩.নতুন লেখা, ৪.ছড়ার আসর -১, ৫. চিড়িয়াখানা, ৬. ফুলের জলসা, ৭. কিসসা কাহিনী, ৮. ছড়ার আসর-২,  ৯. ছড়ার আসর-৩, ১০. সাঁঝ সকালের কিসসা, ১১. আলোকলতা,১২. খুশির ছড়া, ১৩. মজার ছড়া, ১৪. পাখির ছড়া, ১৫. রং মশাল,১৬ জোড় হরফের ছড়া, ১৭. পড়ার শুরু, ১৮. পোকামাকড়, ১৯. ফুলের  ছড়া,২০. দাদুর কিসসা,২১. সাঁঝ সকালের কিসসা, ২২. সাত ডাকাত ও হাতেম তায়ী।

উপরোক্ত শিশু- কিশোর গ্রন্থসমূহের মধ্যে কবির জীবনকালে মাত্র চারটি গ্রন্থ প্রকাশিত হয়। তাঁর ইন্তিকালের পর আরো তিন-চারটি গ্রন্থ প্রকাশিত হলেও বাকি গ্রন্থগুলো এখনো অপ্রকাশিত রয়েছে। এছাড়া, কবি শিশু- কিশোরদের পাঠ্যপুস্তক হিসাবে আরো চারটি গ্রন্থ রচনা করেন। এগুলো হলো- নয়া জামাত, প্রথমভাগ, দ্বিতীয়ভাগ, তৃতীয়ভাগ ও চতুর্থভাগ। এগুলো যথাক্রমে বিভিন্ন শিশু শ্রেণিতে একসময় পাঠ্য Ñতালিকাভুক্ত ছিল। সে হিসাবে একসময় এর বহুল প্রচার ছিল।

 ফররুখ আহমদের রচিত শিশু- কিশোর রচনাবলির তালিকা দেখে স্পষ্টতই ধারণা করা চলে যে, বাংলা  শিশু- কিশোর সাহিত্যে তাঁর অবদান বিশাল ও বৈচিত্র্যপূর্ণ। মূলত বাংলা সাহিত্যের শ্রেষ্ঠ শিশু সাহিত্যিকদের অন্যতম ফররুখ আহমদ। বাংলা সাহিত্যের শ্রেষ্ঠ শিশু সাহিত্যিক হিসাবে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর (১৮৬১- ১৯৪১), সুকুমার রায় (১৮৮৭- ১৯২৩), কবি গোলাম মোস্তফা (১৮৯৫-১৯৬৪), কাজী নজরুল ইসলাম, (১৮৯৯- ১৯৭৬) ,জসীম উদ্দীন (১৯০৩-), ফররুখ আহমদ বিশেষ উল্লেখযোগ্য। সংখ্যা বিচারে উপরোক্ত বিশিষ্ট কবিদের শিশুসাহিত্যিকদের মধ্যে ফররুখ আহমদ অন্যতম শ্রেষ্ঠ।  তাছাড়া, শুধু সংখ্যার বিচারে নয়, মানগত বিচারেও ফররুখ আহমদের শিশুতোষ ছড়া- কবিতা নিঃসন্দেহে উৎকর্ষমন্ডিত ও বাংলা শিশু সাহিত্যের অমূল্য সম্পদ ।

 শিশুতোষ রচনার ক্ষেত্রে বিশেষ কয়েকটি বিষয়ের প্রতি সচেতন থাকা জরুরি। প্রথমত, শিশুÑ মনস্তত্ত্ব, দ্বিতীয়ত, শিশু- কিশোরদের উপযোগী ভাব ও বিষয় নির্বাচন, তৃতীয়ত, শিশু-কিশোরদের বোধগম্য সহজ, সরল শব্দ ও  চতুর্থত, প্রাঞ্জল বর্ণনা। উপরোক্ত বিষয়গুলো বিবেচনায় নিয়ে ফররুখ আহমদের শিশু-কিশোর রচনাবলি পাঠ করলে রীতিমতো বিস্মিত হতে হয়। কারণ তাঁর রচিত মহাকাব্য, গীতিকাব্য ইত্যাদি কাব্যের ভাব- ভাষা, বিষয়- বর্ণনা ইত্যাদির সাথে শিশু-কিশোরদের জন্য রচিত রচনাবলির আদৌ কোন মিল খুঁজে পাওয়া যাবে না। বিশেষত তাঁর রচিত সুবিখ্যাত ‘সাত সাগরের মাঝি’, ‘সিরাজুম মুনীরা’ ইত্যাদি কাব্যের ভাষায় আরবি- ফারসি শব্দের ব্যাপক ব্যবহার, কাব্যের উন্নত মহিমান্বিত ভাব, বিষয়ের গভীরতা, মাধুর্যময়, অলঙ্কারবহুল উচ্চাঙ্গের বর্ণনা ইত্যাদি কাব্যামোদী বোদ্ধা পাঠককে অভিভূত করে। 

অন্যদিকে, তাঁর শিশুতোষ ছড়া- কবিতা- গল্পের ভাষা অতি সহজ , সরল ও অনায়াসে বোধগম্য। বলতে গেলে, তাঁর সমগ্র শিশু সাহিত্যে আরবি- ফারসি শব্দ নেই বললেই চলে। এ সাহিত্যের ভাব, বিষয় ও বর্ণনা অত্যন্ত সহজ, সরল ও সকলের বোধগম্য। সর্বোপরি, তাঁর শিশু সাহিত্যের একটি প্রধান বৈশিষ্ট্য এই যে, খেলার ছলে, মজা করে, গল্পের মতো করে অত্যন্ত আকর্ষণীয়ভাবে তিনি একটির পর একটি যেন ছবি এঁকে গেছেন, যা শিশু- কিশোরদের জন্য অত্যন্ত আকর্ষণীয় ও চিত্তাকর্ষক হয়ে উঠেছে। তাঁর সমগ্র শিশুসাহিত্যে আমাদের পরিচিত পরিবেশ, প্রকৃতি, মানুষ ও কাছের  জানাশোনা পৃথিবী সম্পর্কে একটি সুস্পষ্ট ধারণা দেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছে। যেমন, বিভিন্ন- বিচিত্র ফুল, পাখি, শস্য, জন্তু-জানোয়ার ইত্যাদি বিভিন্ন বিষয়ের পরিচয় তুলে ধরা হয়েছে। এর মাধ্যমে শিশু- কিশোরদেরকে তাঁর পরিচিত জগৎ সম্পর্কে  সম্যক জ্ঞান প্রদান করা হয়েছে।

ফররুখ আহমদের শিশু সাহিত্যের একটি বিশেষ বৈশিষ্ট্য এই যে, এতে খেলার ছলে, মজা করে বলতে বলতে তিনি শেষ পর্যন্ত এমন একটি শিক্ষণীয় বিষয় উপস্থাপন করেছেন, যা শিশু- কিশোরদের সুস্থ মানস গঠনে অত্যন্ত সহায়ক। মূলত: শিশু- কিশোরদেরকে উন্নত চরিত্র, মানবীয় মহৎ গুণাবলি ও আদর্শিক চেতনায় উদ্বুদ্ধ- পরিগঠিত করাই তাঁর প্রধান উদ্দেশ্য। একারণে ফররুখ আহমদের শিশুতোষ রচনাবলির একটি আলাদা গুরুত্ব ও মর্যাদা রয়েছে। তাই শিশু- কিশোরদের সুষ্ঠু মানস -গঠন, উন্নত চরিত্র, মহৎ চিন্তা ও জগৎ- জীবনকে জানার উদগ্র বাসনা সৃষ্টির জন্য ফররুখ আহমদের শিশুতোষ ছড়া- কবিতা- গান- গল্প ইত্যাদি অক্যন্ত উপযোগী। এজন্য তাঁর শিশু সাহিত্যের ব্যাপক প্রচার- প্রসার একান্ত জরুরি।

 দুর্ভাগ্যবশত, ফররুখ আহমদের সমগ্র  শিশু সাহিত্য এখনো অপ্রকাশিত।  তাঁর রচিত সমগ্র শিশু সাহিত্য অবিলম্বে প্রকাশিত হওয়া প্রয়োজন। তাহলে বাংলা শিশু সাহিত্য যেমন সুসমৃদ্ধ হবে, তেমনি শিশু সাহিত্যে ফররুখ আহমদের অনবদ্য মূল্যবান অবদান সম্পর্কেও সকলে সম্যক অবহিত হবেন এবং শিশু- কিশোর এমনকি বড়রাও তাঁর শিশু সাহিত্য পাঠে অপরিসীম আনন্দ লাভ করার সাথে সাথে সবিশেষ উপকৃত হবেন। 

‘ফররুখ আহমদ : শ্রেষ্ঠ শিশু-কিশোর সাহিত্য’। প্রকাশক: দেশজ প্রকাশন, খ-৬২, শাহজাদপুর, গুলশান, ঢাকা-১২১২। প্রকাশকাল: ফেব্রুয়ারি ২০১৯। প্রচ্ছদ: মোমিন উদ্দীন খালেদ। অলঙ্করণ: সবীহ উল আলম, মোমিন উদ্দীন খালেদ ও ফরিদী  নুমান। পৃষ্ঠা-১৮৭। মূল্য: ৫০০ টাকা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ