ঢাকা, শুক্রবার 30 August 2019, ১৫ ভাদ্র ১৪২৬, ২৮ জিলহজ্ব ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

কয়েক সপ্তাহের মধ্যে আরও তীব্র হবে আমাজনের আগুন? 

উপর থেকে তোলা এ ছবিতে পোর্তো ভেলহোর কাছে আমাজনের একটি পুড়ি যাওয়া এলাকা দেখা যাচ্ছে -ছবি সিএনএন

২৯ আগস্ট, রয়টার্স : ব্রাজিল সরকার দাবি করছে আমাজন বনাঞ্চলের আগুন নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। তবে দেশটির শীর্ষ এক পরিবেশবিদ হুঁশিয়ারি দিয়েছেন, আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যে এই আগুন আরও তীব্র হয়ে উঠতে পারে। বুধবার দেশটির সংবাদমাধ্যম গ্লোবোতে লেখা এক নিবন্ধে তাসো আজেভেদো নামে ওই পরিবেশবিদ সম্ভাব্য ক্ষতি এড়াতে দ্রুত উদ্যোগ নেওয়ার আহ্বান জানান।

এবছর এখন পর্যন্ত ব্রাজিলে প্রায় ৮০ হাজার আগুনের ঘটনা শনাক্ত হয়েছে। এর অর্ধেকেরও বেশি আগুনের ঘটনা ঘটেছে অ্যামাজন বনাঞ্চলে। তবে দেশটির উগ্র ডানপন্থী প্রেসিডেন্ট জইর বলসোনারো দাবি করেছেন, পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে আসছে। সোমবার ব্রাজিলের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ফার্নান্দো আজেভেদো সিলভা সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘পরিস্থিতি কোনও সোজাসাপ্টা পথে নেই কিন্তু নিয়ন্ত্রণে রয়েছে আর ইতিমধ্যে সুন্দরভাবে ঠান্ডা হয়ে আসছে’। তবে আগুনের সবচেয়ে খারাপ পরিস্থিতি এখনও আসেনি বলে মনে করেন দেশটির অরণ্যবিনাশ পর্যবেক্ষণকারী গ্রুপ ম্যাপবায়োমাস-এর সমন্বয়ক তাসো আজেভেদো।

আজেভেদো তার নিবন্ধে বলেন, জুলাই এবং আগস্টে যখন সরকারি পর্যবেক্ষণ ব্যবস্থা বড় ধরনের আগুনের ঘটনা শনাক্ত করে তখন যেসব এলাকায় আগুন লেগেছে সেসব এলাকা এখনও পুরোপুরি জ্বলে ওঠেনি। ব্রাজিলের মহাকাশ পর্যবেক্ষণ সংস্থা আইএনপিই এর তথ্য অনুযায়ী আগস্টের প্রথম ২৬ দিনে আগুনে ব্রাজিলের অ্যামাজনের এক হাজার ১১৪ দশমিট ৮ বর্গকিলোমিটার এলাকা পুড়ে গেছে। পরিবেশবিদ তাসো আজেভেদো লিখেছেন, এখন যা দেখা যাচ্ছে তা সত্যিকার সংকট আর তা ট্রাজেডি হয়ে উঠতে পারে।

প্রকাশিত নিবন্ধে আজেভেদো সতর্ক করেন, এখনই যদি এই আগুন থামানো না হয় তাহলে দৃশ্যমান আগুন তা আরও ব্যাপক হয়ে উঠতে পারে। এজন্য আদিবাসী অঞ্চল ও সংরিক্ষত এলাকায় অরণ্য বিনাশের বিরুদ্ধে বড় ধরণের অভিযান এবং শুষ্ক মওসুম শেষ হওয়ার আগ পর্যন্ত বা অক্টোবরের শেষ পর্যন্ত অ্যামাজনে ইচ্ছাকৃতদ আগুন লাগানো নিষিদ্ধ করতে তড়িৎ ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

বনাঞ্চলকে ধ্বংস করতে রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানকে ‘অকার্যকর’ করেন বোলসোনারো 

২০০৪ থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত ব্রাজিলে বন উজারের ঘটনা ৮০ শতাংশ কমিয়ে আনতে সমর্থ হয়েছিল সে দেশের রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠান ইনস্টিটিউট অব দ্য এনভায়রনমেন্ট অ্যান্ড রিনিউবেল ন্যাচারাল রিসোর্স-ইবামা। তবে ২০১১ সালে প্রেসিডেন্ট দিলমা রুসেফ দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকেই অর্থনৈতিক উন্নয়নের কথা বলে পরিবেশ সুরক্ষা সংক্রান্ত আইন সংকুচিত করতে শুরু করেন। ধাপে ধাপে এই রাষ্ট্রীয় সংস্থার কর্মক্ষেত্র সীমিত করার পাশাপাশি কমিয়ে দেওয়া হয় বাজেট। আর বর্তমান ডানপন্থী প্রেসিডেন্ট বোলসোনারো ক্ষমতায় আসার আগে থেকেই সংস্থাটির বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেন। ক্ষমতায় আসীন হয়ে তিনি এর বাজেট ২৫ শতাংশ কমিয়ে দেন। সংস্থাটির শীর্ষ পদে এমন একজনকে নিয়োগ দেন, যিনি বন সুরক্ষার বদলে তার ধ্বংসের পথ করে দিচ্ছেন।

রেকর্ড গতিতে প্রতিদিন পুড়ছে ‘পৃথিবীর ফুসফুস’ খ্যাত অ্যামাজন। ব্রাজিলের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট ফর স্পেস রিসার্স (আইএনপিই) বলছে, এ বছর জুন পর্যন্ত ব্রাজিলে ৭২ হাজার ৮৪৩টি অগ্নিকা- হয়েছে। এর মধ্যে অর্ধেকের বেশি আগুনের ঘটনা অ্যামাজন জঙ্গলে, যা আগের বছরের তুলনায় ৮৮ শতাংশ বেশি। এসব অগ্নিকা-ের জন্য সরকারের পক্ষ থেকে দায়ী করা হচ্ছে পশুপালক ও কৃষকদের। ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট অভিযোগ করেছেন, এনজিও সংগঠনের পক্ষ থেকে লাগানো হচ্ছে এসব আগুন।

আদিবাসী পরিবেশবাদীরা বলছেন, অ্যামাজনকে বাণিজ্যের জন্য উন্মুক্ত করার সরকারি নীতির কারণেই আগুন লাগানোর মহোৎসব শুরু হয়েছে। এই বক্তব্যের সমর্থন মিলেছে রয়টার্স প্রকাশিত এক অনুসন্ধানী প্রতিবেদনে। ওই প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, সে দেশের বন সুরক্ষায় নিয়োজিত রাষ্ট্রীয় সংস্থা ইবামাকে ‘অকার্যকর’ করার মধ্য দিয়েই অ্যামাজনকে বাণিজ্যের জন্য উন্মুক্ত করার পথ প্রশস্ত করা হয়েছে। ইবামার বর্তমান ও সাবেক ১০ জনের সাক্ষাতকার নিয়ে, সরকারি নথি ও অভ্যন্তরীণ প্রতিবেদন বিশ্লেষণ করে এসব তথ্য সামনে এনেছে রয়টার্স।   

২০০৪ থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত ব্রাজিলে বন সংরক্ষণে দৃষ্টান্তমূলক ভূমিকার কারণে বিশ্বজুড়ে প্রশংসিত হয়েছিল ইবামা। স্যাটেলাইট ছবি ও মাঠ পর্যায়ে কর্মীদের দেওয়া তথ্য বিশ্লেষণ করে ব্যবস্থা নিতো তারা। তবে বামপন্থী প্রেসিডেন্ট দিলমা রুসেফ ২০১১ সালে দায়িত্ব নেওয়ার পর ইবামার ১৬৮টি স্থানীয় দফতরের ৯১টিই বন্ধ করে দেওয়া হয়। ২০১৫-১৬ সালে এই সংস্থার বাজেটও সংকোচন করা হয়। ২০১০ থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত পরিবেশ মন্ত্রীর দায়িত্বপালন করা ইজাবেলা তেইশেইরা দাবি করেন, ‘অর্থনৈতিক সংকটের কারণে আমাদের অনেক সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে, এটা শুধু পরিবেশে নয়, সবার জন্যই।’

ডানপন্থী বোলসোনারোর প্রশাসন ইবামার সঙ্গে প্রায় যুদ্ধাচরণ করেছে। নির্বাচনী  প্রচারণার সময়ই ইবামার বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলেছিলেন তিনি। তার অভিযোগ এটা ‘জরিমানার কারখানা’। দায়িত্ব নেওয়ার পর পাল্টে যায় পরিবেশ নীতি। রয়টার্স জানায়, সংস্থাটিতে বড়জোর এখন ৭৮০ জন এজেন্ট রয়েছেন; যা ১১ হাজার বর্গকিলোমিটারে একজন। আর এর ২৫ শতাংশ কর্মী যেকোনও সময় অবসরে যেতে পারেন। কর্মীরা জানান, তারা নিজেরাও নতুন বিধিনিষেধে অস্বস্তিতে রয়েছেন। অবৈধ এলাকায় পাওয়া গাছ কাটা ও খননের জিনিসপত্র ধ্বংস করতে পারেন না তারা।

গাছ সরানো ও কাটার ভারী জিনিসপত্র ধ্বংস করে দিলে অপরাধীরা আবারও এই কাজ করে না। আগের প্রশাসনে এই কাজটা করতে পারতেন মাঠ পর্যায়ের কর্মীরা। তবে গত এপ্রিলে অ্যামাজনের রোনডনিয়ায় এমন কিছু জিনিসপত্র পুড়িয়ে দেওয়ার পর প্রেসিডেন্ট বোলসোনারো এই নিয়ম বাতিল করেন। তিনি বলেন, কোনও কিছুই পোড়ানো ঠিক নয়। এটা নিয়ম না।’ এরপর থেকে ইবামায় নিয়োগ দেওয়া বোলসোনারোর নতুন প্রধান অলিভাদি অজেভেদো আর কোনও যন্ত্র পোড়ানোর অনুমতি দেন না। এ বছর এমন কতগুলো অনুরোধ প্রত্যাখ্যান হয়েছে তা নির্দিষ্ট করে জানাতে পারেনি রয়টার্স। ২২ এপ্রিল  বিমের কাছে দেওয়া এক চিঠিতে প্রেসিডেন্ট বলেছিলেন, ২৫ জন বিভাগীয় প্রধান, এসপি এবং বিশ্লেষকরা এই কঠিন নীতির ব্যাপারে প্রশ্ন তুলেছেন।  এই বিষয়ে অ্যাজেভোদো কোনও মন্তব্য করতে রাজি হননি। তবে  ইবামার প্রেস অফিস থেকে জানানো হয় তখন পরিবেশ মন্ত্রণালয়ে ওই অনুরোধ পাঠানো হয়।

এ বছর আরেকটি পরিবর্তন ছিলো পরিবেশ সুরক্ষায় কাজ করা বিশেষ বাহিনীকে অকার্যকর করে দেওয়া। বিষয়টির সঙ্গে সরাসরি সংশ্লিষ্ট চারজন রয়টার্সকে বলেন, ইবামা বিপজ্জনক ও দুর্গম এলাকায় অভিযানের জন্য এই বিশেষ বাহিনীর ওপর নির্ভর করতো। কিন্তু বোলসোনারো প্রশাসনের কর্মকর্তারা তা পরিবর্তন করে ফেলেছে।  এই বিশেষ বাহিনীর নাম জিইএফ। তাদের সদস্য সংখ্যা ১৩। তাদের নিয়োগের ক্ষেত্রে সামরিক বাহিনীর মতো পরীক্ষা হয়। ইবামা তাদের পরিকল্পনা জিইএফকে জানালে তারা বাস্তবায়ন করে। তবে চলতি বছর বড়জোর ১০ বার তাদের মাঠে নামানো হয়েছে। অ্যামাজনের যেসব স্থানে বেশি অবৈধ কাজ হয় সেখানে জিইএফ এর অভিযান চালাতে চলতি বছর অন্তত দুইবার অনুরোধ করেছিলো ইবামা কর্মীরা। তবে পরিচালক আজেভোদো রাজি হননি। আর অন্যদিকে প্রতি মিনিটে হাজার হাজার বর্গফুট পুড়ে যাচ্ছে অ্যামাজনের।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ