ঢাকা, রোববার 17 November 2019, ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

অস্ট্রেলিয়ায় স্থায়ীভাবে বসবাস ও কাজের সুযোগ

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: অস্ট্রেলিয়ায় স্কিলড রিজওনাল প্রভিশনাল নামে পাঁচ বছর মেয়াদি নতুন দুটি ভিসা চালু হতে যাচ্ছে। এ দুটি ভিসা চালু হলে স্থায়ী বসবাস ও কাজের সুযোগ পাওয়া যাবে বলে জানিয়েছে দেশটির অভিবাসন বিভাগ।

চলতি বছরের নভেম্বর থেকেই এ নতুন দুই ভিসা চালুর কথা আছে। ইতোমধ্যে নতুন এ ভিসা প্রণয়নের লিখিত আইনও জারি করা হয়ে গেছে।

এ বিষয়ে অস্ট্রেলিয়ার অভিবাসন বিভাগ জানিয়েছে, নতুন চালু হতে যাওয়া এ দুই ভিসায় দক্ষ অভিবাসী অস্ট্রেলিয়ায় অস্থায়ী ও স্থায়ীভাবে বসবাস ও কাজ করতে পারবেন। অস্ট্রেলিয়ায় সচল ও অনুমোদিত কোনো ব্যবসা দ্বারা মনোনীত হলেই পাওয়া যাবে এ ভিসা, যা সাবক্লাস ৪৯৪ নামে চালু হবে।

তবে মনোনীত হতে হলে শিক্ষা, বয়স, অভিজ্ঞতা, ইংরেজি দক্ষতা ও বৈবাহিক অবস্থা ইত্যাদি বিষয় যাচাই করা হবে।

এসব বিষয়ের ওপর ভিত্তি করে পয়েন্ট দেয়া হবে। বেশি পয়েন্ট অর্জনকারীদের ভিসা আবেদনের জন্য আমন্ত্রণ জানাবে অভিবাসন বিভাগ।

এ ভিসা পেলে ৫০০ এর বেশি পেশায় কাজ করা সুযোগ পাবে অভিবাসীরা।

জানা গেছে, আগামী ১৬ নভেম্বর অস্ট্রেলিয়ার বর্তমান প্রচলিত আঞ্চলিক ভিসা সাবক্লাস ৪৮৯ বাতিল করে সাবক্লাস ৪৯১ ও ৪৯৪ ভিসা দুটি চালু হবে।

এ দুই ভিসাধারীরা তিন বছর অস্ট্রেলিয়ার আঞ্চলিক শহরের বসবাসের পর স্থায়ী বসবাসের জন্য আবেদন করতে পারবেন।

এ ছাড়া ইতিমধ্যে যেসব অভিবাসীরা বসবাস করছেন তারাও আলাদাভাবে তাদের পরিবারের সদস্যদের স্পনসর করতে পারবেন।

এ দুই নতুন ভিসায় প্রতিবছর প্রায় ১৪ হাজার আবেদন গ্রহণ করবে অভিবাসন বিভাগ।

অভিবাসন বিভাগ সূত্রে আরও জানা গেছে, সাবক্লাস ৪৯১ ও ৪৯৪ ভিসা দুটি নিয়ে সিডনি, মেলবোর্ন, পার্থ, ব্রিসবেন ও গোল্ড কোস্ট মহানগর এলাকায় বসবাসের সুযোগ নেই। এছাড়া আর সব রাজ্যের আঞ্চলিক শহরে বসবাসের আবেদন করা যাবে।

জানা গেছে, ভিসাগুলো স্পনসর ও লেবার অ্যাগ্রিমেন্ট এ দুটি ভাগের আওতায় চালু হবে।

সেপ্টেম্বরের শুরুতেই দেশটির অভিবাসন বিভাগ নতুন এ দুটি ভিসার বিষয়ে আরও বিস্তারিত তথ্য প্রকাশ করবে তাদের ওয়েবসাইটে।

ডিএস/এএইচ

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ