ঢাকা, মঙ্গলবার 10 September 2019, ২৬ ভাদ্র ১৪২৬, ১০ মহররম ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

প্লাস্টিকের বিনিময়ে খাবার

৯ সেপ্টেম্বর, ইন্টারনেট : একদিকে পাহাড় সমান প্লাস্টিক বর্জ্যের সমস্যা, অন্যদিকে দারিদ্র্য। সারবিশ্বে এই দুইয়ের বিপত্তি বেশ প্রকট। সেখান থেকেই দারুণ এক ফমুর্লা বের করেছে ভারত। প্লাস্টিক বর্জ্য জমা দিলেই মিলবে পেটভরা খাবার। 

এতে একদিকে যেমন পরিষ্কার হয়ে উঠছে শহর, তেমনি কমছে দারিদ্র্যও। ঠিক যেন বীজগণিতের সূত্র, মাইনাসে মাইনাসে প্লাস!

সম্প্রতি ছত্তিশগড়ের আম্বিকাপুরে চালু হয়েছে ভারতের প্রথম ‘গার্বেজ ক্যাফে’। সেখানে ৫০০ গ্রাম প্লাস্টিক বর্জ্য আনলেই মিলবে সকালের খাবার। আর এক কেজি প্লাস্টিক বর্জ্য দিলে দুপুরে বা রাতে পেট ভরে খাবার খাওয়া যাবে।

গত জুলাইয়ে শুরু হওয়া এ কার্যক্রম দারুণ সাড়া ফেলেছে ভারতজুড়ে। এরইমধ্যে ফলও পেতে শুরু করেছে কর্তৃপক্ষ। ইনদোরের পর আম্বিকাপুর দেশটির দ্বিতীয় পরিচ্ছন্নতম শহরের স্বীকৃতি পেয়েছে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো জানায়, আম্বিকাপুর মিউনিসিপ্যাল করপোরেশন শহরের প্রধান বাস স্ট্যান্ডে চালু করেছে ‘গার্বেজ ক্যাফে’। শুধু খাবার সরবরাহই নয়, যারা প্লাস্টিকের বর্জ্য কুড়িয়ে দিন চালায়, তাদের জন্য আশ্রয়ের ব্যবস্থাও করা হচ্ছে। তবে, এ উদ্যোগের সবচেয়ে প্রশংসনীয় দিক হচ্ছে, জমা হওয়া প্লাস্টিক বর্জ্য দিয়ে সড়ক নির্মাণ। আম্বিকাপুরে এর আগে আট লাখ প্লাস্টিক ব্যাগ ব্যবহার করে সড়ক তৈরি করা হয়েছে। ‘গার্বেজ ক্যাফে’ প্রকল্পে জমা হওয়া প্লাস্টিকও এ ধরনের কাজেই ব্যবহার করা হবে।

যদিও, প্লাস্টিক দিয়ে সড়ক নির্মাণের এ পদ্ধতি যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপ এমনকি কম্বোডিয়াতেও আগে থেকেই ব্যবহৃত হচ্ছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ