ঢাকা, বৃহস্পতিবার 12 September 2019, ২৮ ভাদ্র ১৪২৬, ১২ মহররম ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

টুইন টাওয়ার ধ্বংসযজ্ঞের সেই দিন

১১ সেপ্টেম্বর, ইন্টারনেট : বুধবার থেকে উনিশ বছর আগে ২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বর এই দিনে গোটা বিশ্ব আঁতকে উঠেছিলো ভিডিও দেখে। ১৯ জন আত্মঘাতী হামলাকারী বহনকারী ৪টি বিমান সোজা আছড়ে পড়লো আমেরিকার ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টার বা টুইন টাওয়ারে। ৪টি বিমানের ২টির লক্ষ্য ছিলো নিউইয়র্কে অবস্থিত ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারের উত্তর ও দক্ষিণ টাওয়ার। অন্য একটি আঘাত করে পেন্টাগনে, যেটির অবস্থান ওয়াশিংটনের ঠিক বাইরে। আর চতুর্থটি আছড়ে পড়ে পেনসিলভানিয়ার একটি মাঠে।

টুইন টাওয়ারে হামলায় মারা যান ২৯৯৬ জন, ৬ হাজারেরও বেশি গুরুতর জখম হন। যাদের মধ্যে ৪শর বেশি ছিলেন পুলিশ ও অগ্নিনির্বাপণ কর্মী।

২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বরের সকাল বেলার আবহাওয়া ছিলো চমৎকার। মানুষ কর্মস্থলের দিকে যাচ্ছিলেন। সকাল ৮:৪৫ মিনিটে আমেরিকান এয়ারলাইন্সের বোয়িং ৭৬৭ বিমানটি প্রায় ২০ হাজার গ্যালন জেট ফুয়েল নিয়ে বিশ্ব বাণিজ্য কেন্দ্র বা ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারের নর্থটাওয়ারের ১১০ তলা ভবনের ৮০ তলায় আঘাত করে। সুদৃশ্য ভবনটি মুহূর্তে ধ্বংসস্থুপে পরিনত হয়। মারা যায় কয়েকশ মানুষ।

এরপরের ঘটনাওগুলোও সবার জানা। ওই ঘটনায় অভিযুক্ত করে আল কায়দা-লাদেনকে নির্মুল করতে আফগানিস্তানে হামলা করলো আমেরিকা। তাতে জঙ্গির চেয়ে বেশি মরলো সাধারণ মানুষ। এর অনেক পরে মরলেন একজন লাদেনও। এবপর আরও লাদেনের জন্ম হলো। টিকে রইলো আল কায়দা, জন্ম নিলো আইএসসহ বিভিন্ন নানের নামের জঙ্গি সংগঠন। তারা মেতে রইলো পুরনো ধ্বংসলীলায়।  হায় ১১ সেপ্টেম্বর ২০০১। ওই একটা দিন যেনো বদলে দিলো গোটা বিশ্বকে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ