ঢাকা, বুধবার 23 October 2019, ৮ কার্তিক ১৪২৬, ২৩ সফর ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

সৌদি তেল শোধনাগারে ড্রোন হামলা: আরব লীগের প্রতিক্রিয়া

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় তেল কোম্পানি আরামকো’র দুটি তেল শোধনাগারে ইয়েমেনিদের ড্রোন হামলার প্রতিক্রিয়ায় আরব লীগ বলেছে, এ ধরনের হামলা আরব দেশগুলোর জাতীয় নিরাপত্তাকে হুমকিগ্রস্ত করছে। 

আরব লীগের সচিবালয় থেকে প্রকাশিত এক বিবৃতির বরাত দিয়ে মিশরের সংবাদ সংস্থা মিসরি আল-ইয়ায়োম এ খবর জানিয়েছে। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, সৌদি তেল স্থাপনায় ইয়েমেনের প্রতিশোধমূলক হামলা চলমান উত্তেজনাকে ‘বিপজ্জনক মাত্রায়’ বাড়িয়ে দিয়েছে।

আরব লীগের বিবৃতিতে ইয়েমেনের আনসারুল্লাহ আন্দোলনকে ‘সন্ত্রাসী’ আখ্যায়িত করে দাবি করা হয়েছে, আনসারুল্লাহ যোদ্ধাদের সঙ্গে ইয়েমেনের জনগণের কোনো সম্পর্ক নেই। বিবৃতিতে ইরানের বিরুদ্ধেও অভিযোগ উত্থাপন করে দাবি করা হয়েছে, আরব দেশগুলোর অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করছে তেহরান।

আরামকো'র তেল শোধনাগারে ড্রোন হামলার ফলে সৃষ্ট ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড

গত শনিবার সকালে ইয়েমেনের সেনাবাহিনী ও গণ কমিটি ঘোষণা করে তারা তাদের দেশের ওপর গত প্রায় পাঁচ বছরের সৌদি হামলার জবাবে দেশটির দু’টি তেল স্থাপনায় হামলা চালিয়েছে। তাদের ঘোষণায় বলা হয়, সৌদি আরবের জাতীয় তেল কোম্পানি আরামকো পরিচালিত ‘বাকিক’ ও ‘খারিস’ তেল শোধনাগারে ১০টি পাইলটবিহীন বিমান বা ড্রোনের সাহায্যে এ হামলা চালানো হয়েছে।

ওই হামলার পর ইয়েমেনের সশস্ত্র বাহিনীর মুখপাত্র ইয়াহিয়া সারি’ এক বিবৃতিতে বলেন, ইয়েমেনের ওপর পাঁচ বছরের আগ্রাসন ও অবরোধের যে জবাব দেয়া হয়েছে তা সম্পূর্ণ বৈধ ও স্বাভাবিক।

ডিএস/এএইচ

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ