ঢাকা, বুধবার 18 September 2019, ৩ আশ্বিন ১৪২৬, ১৮ মহররম ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

বাংলাদেশ দল আজ নেপাল যাচ্ছে

স্পোর্টস রিপোর্টার: সাফ অনূর্ধ্ব-১৮ ফুটবলের তৃতীয় আসরে অংশ নিতে আজ বুধবার নেপাল যাচ্ছে বাংলাদেশ দল। আগামী ২০ থেকে ২৯ সেপ্টেম্বর নেপালের কাঠমান্ডুতে হবে সাফ অনূর্ধ্ব-১৮ চ্যাম্পিয়নশিপ। এ টুর্নামেন্টের জন্য প্রস্তুত বাংলার যুবারা। গত জুন-জুলাইয়ে ব্রাজিলে এক মাসের অনুশীলন করে আসা চার ফুটবলারের একজন-ওমর ফারুক মিঠু সুযোগ পেয়েছেন জাতীয় অনূর্ধ্ব-১৮ দলে। ম্যাচ বাই ম্যাচ পরিকল্পনা মাফিক খেলতে পারলে সাফল্য নিশ্চিত। এমনটাই জানিয়েছেন যুবাদের প্রধান কোচ অ্যান্ড্রু পিটার টার্নার। আর কোচের আস্থার প্রতিদান দিয়ে দেশের জন্য ট্রফি জিততে প্রত্যয়ী ফাহিম-নাইম-মেরাজরা। সাত দেশের এই টুর্নামেন্টে বাংলাদেশ খেলবে ‘বি’ গ্রুপে ভারত ও শ্রীলংকার সঙ্গে। ‘এ’ গ্রুপের দলগুলো হচ্ছে-নেপাল, মালদ্বীপ, ভুটান ও পাকিস্তান। ২১ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ প্রথম ম্যাচ খেলবে শ্রীলংকার বিরুদ্ধে।এই টুর্নামেন্ট সামনে রেখে, তিন সপ্তাহ ধরে অনুশীলন করছে যুবারা।

বেরাইদের ফর্টিজ ফুটবল একাডেমিতে প্রখর রোদকে উপেক্ষা করে, শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতিতে অদম্য ইয়াসিন-মিঠুরা। ফিটনেসের পাশাপাশি কৌশলেও গুরুত্ব দিয়েছেন প্রধান কোচ অ্যান্ড্রু পিটার টার্নার। লম্বা ক্যাম্পের পাশাপাশি দেশি-বিদেশি কোচের দীক্ষায় বেশ অনুপ্রাণিত ফুটবলাররা।এদিকে, ক্যাম্পে থাকা বেশিরভাগ ফুটবলারের পেশাদার লিগ খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে। ডিফেন্ডার ইয়াসিন আরাফাত ছিলেন জাতীয় দলের স্কোয়াডেও। তাইতো প্রথমবারের মতো সাফের মঞ্চে নিজেদের স্বপ্নযাত্রাটা রাঙ্গাতে চান ফাহিম-নাইম-মেরাজরা। নেপালের কন্ডিশনকে জয় করে ট্রফি নিয়ে দেশে ফেরার প্রত্যয় লাল-সবুজ জার্সিধারীদের। ব্রাজিল থেকে ট্রেনিং নিয়ে আসা মিঠু বলেন, ‘আমি এখানে নিজের সেরাটা দিয়ে খেলার চেষ্টা করবো। আমাদের লক্ষ্য থাকবে নেপাল থেকে চ্যাম্পিয়ন হয়ে ফেরা।’

এদিকে, শিষ্যদের প্রস্তুতিতে সন্তুষ্ট টিমের কোচিং স্টাফরা। প্রতিপক্ষ যেই হোক ফুটবলাররা মাঠে পরিকল্পনা মাফিক খেলতে পারলে সাফল্য আসবে, বিশ্বাস তাদের।বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব ১৮ ফুটবল দলের প্রধান কোচ অ্যান্ড্রু পিটার টার্নার বলেন, দেখুন, তিন সপ্তাহ ধরে ফুটবলাররা কঠোর অনুশীলন করেছে। আমার ফুটবলাররা সাফের জন্য শতভাগ প্রস্তুত। তারা নিজেদের সেরাটা দেয়ার জন্য মুখিয়ে আছে। আসরে প্রতিপক্ষকে সমীহ করেই আপাতত সেমিফাইনালে পা রাখতে চাই। দলে আছেন জাতীয় দলে অভিষেকের অপেক্ষায় থাকা ডিফেন্ডার ইয়াছিন আরাফাত। এই দলের অধিনায়কও তিনি। গতকাল মঙ্গলবার বাফুফে ভবনে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে ইয়াছিন আরাফাত বলেছেন, ‘আমরা যদি সবাই নিজ নিজ পজিশন থেকে নিজেদের সেরাটা দিতে পারি তাহলে ভালো ফল করা সম্ভব। আমাদের দলের সব বিভাগের খেলোয়াড়রাই ভালো। মাঠে ভালো পারফরম্যান্স করতে পারলে নেপাল থেকে চ্যাম্পিয়ন হয়ে আসাও সম্ভব।’

বাংলাদেশ স্কোয়াড:গোলরক্ষক : মহিউদ্দিন, মিতুল মারমা ও শান্ত কুমার রায়।রক্ষণভাগ : ইয়াসিন আরাফাত, উত্তর রায়, সাদেকুজ্জামান ফাহিম, ইমন খান, কাজী রাহাদ মিয়া, রাকিবুল ইসলাম, তানভীর হোসেন।মধ্যমাঠ : মো. রিদয়, ফাহিম মোর্শেদ, ওমর ফারুক মিঠু, ইমন আলী, সাগর হোসেন, দিপক রায়। আক্রমণভাগ : জমির উদ্দিন, ফয়সাল আহমেদ ফাহিম, সম্রাট আহমেদ, নাইম হোসেন, নিহাত জামান উচ্ছ্বাস, মিরাজ হোসেন ও আমির হাকিম বাপ্পী।

গ্রুপ ‘এ’ : নেপাল, মালদ্বীপ, ভুটান ও পাকিস্তান।গ্রুপ ‘বি’ : বাংলাদেশ, ভারত ও শ্রীলংকা।

বাংলাদেশের ম্যাচগুলো

২১ সেপ্টেম্বর : বাংলাদেশ-শ্রীলংকা

২৫ সেপ্টেম্বর : বাংলাদেশ-ভারত

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ