ঢাকা, শনিবার 21 September 2019, ৬ আশ্বিন ১৪২৬, ২১ মহররম ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

আইপিএলের দিকে আফ্রিদির অভিযোগের তীর

অবশেষে তিনটি ওয়ানডে ও তিনটি টি-টোয়েন্টি খেলতে পাকিস্তান সফরে যাচ্ছে শ্রীলঙ্কা। তবে সিনিয়র ১০ ক্রিকেটারকে ছাড়াই। লঙ্কান শীর্ষ তারকাদের পাকিস্তান সফরে না যাওয়ার পেছনে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগকে (আইপিএল) দায়ী করেছেন পাকিস্তানের সাবেক অলরাউন্ডার শহীদ আফ্রিদি। ঘরের মাটিতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফেরাতে প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে পাকিস্তান। তারই অংশ হিসেবে শ্রীলঙ্কাকে আমন্ত্রণ জানায় পিসিবি। লঙ্কান ক্রিকেট বোর্ড তাতে সায়ও দেন। কিন্তু নিরাপত্তার অজুহাতে তাদের টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক লাসিথ মালিঙ্কা ও টেস্ট-ওয়ানডে অধিনায়ক দিমুথ করুনারতেœসহ আরো আট সিনিয়র ক্রিকেটার এই সফরে যেতে অস্বীকৃতি জানান।

বাকি আট ক্রিকেটার হলো অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস, দিনেশ চান্দিমাল, সুরঙ্গা লাকমল, থিসারা পেরেরা, আকিলা ধনাঞ্জয়া, ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা, কুশল পেরেরা ও নিরোশান ডিকভেলা।লঙ্কান ক্রিকেটারদের হঠাৎ নাম প্রত্যাহারে ক্ষেপেছেন আফ্রিদি। তিনি দাবি করেন, শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটাররা নাকি তার কাছে আগে পাকিস্তান সফরে যাওয়ার ব্যাপারে আগ্রহ দেখিয়েছিলেন। এমনকি পাকিস্তান ক্রিকেট লিগ (পিসিএল) খেলারও ইচ্ছে প্রকাশ করেছে। অথচ জাতীয় দলের হয়ে সফরে আসায় তাদের আপত্তি।

পাকিস্তানের সাংবাদিক সাজ সাদিক তার টুইটারে মতামত তুলে দিয়েছেন আফ্রিদির, ‘শ্রীলঙ্কান খেলোয়াড়েরা আইপিএল ফ্র্যাঞ্জাইজির চাপে আছেন। আমি যখন শেষবার শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটারদের সঙ্গে কথা বলেছিলাম তখন তারা পাকিস্তান সফরে আসার এবং পিসিএল খেলার ইচ্ছে প্রকাশ করেছিল। তারা বলেছিল, তারা আসতে চায়। কিন্তু আইপিএলের লোকজন হুমকি দিয়েছে তারা যদি পাকিস্তানে যায় তাহলে চুক্তি বাতিল হবে।’অবশ্য আফ্রিদির অভিযোগে বেশ অবাক হয়েছে আইপিএলের আয়োজকরা। কারণ লঙ্কান তারকাদের মধ্যে কেবল মালিঙ্গার সঙ্গেই মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের চুক্তি আছে। বাকি ৯ তারকাদের সঙ্গে বর্তমানে আর কারও চুক্তি নেই ফ্র্যাঞ্চাইজিটির। ইন্টারনেট।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ