ঢাকা, বুধবার 23 October 2019, ৮ কার্তিক ১৪২৬, ২৩ সফর ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

সফিকের বিরুদ্ধে ধানমণ্ডি থানায় দুই মামলা

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: ইয়াবাসহ আটক হওয়া কলাবাগান ক্রীড়াচক্রের সভাপতি কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় নেতা সফিকুল ইসলাম ফিরোজের বিরুদ্ধে অস্ত্র ও মাদক আইনে ধানমণ্ডি থানায় দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

আজ শনিবার সকালে মামলা দুটি দায়ের করে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। ধানমণ্ডি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল লতিফ বিষয়টি নিশ্চিত করেন। 

এর আগে শুক্রবার (২০ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে আটটার দিকে কলাবাগান ক্রীড়াচক্রে অভিযান চালায় র‌্যাব। সেখান থেকে হলুদ রংয়ের বিশেষ ধরনের ইয়াবাসহ কলাবাগান ক্রীড়াচক্রের সভাপতিকে আটক করা হয়।

এছাড়া অভিযানে একটি বিদেশি পিস্তল, ক্যাসিনো সামগ্রী ও বিপুল পরিমাণ জুয়া খেলার সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়। আটক করা হয় আরো কয়েকজনকে।

অভিযান শেষে র‍্যাব-২’র অধিনায়ক আশিক বিল্লাহ গণমাধ্যমকে বলেন, আমাদের কাছে তথ্য ছিল, এই ক্লাবের ক্রীড়া সংস্থার আড়ালে বিভিন্ন অবৈধ কর্মকাণ্ড পরিচালিত হতো। এর ভিত্তিতেই অভিযান চালানো হয়।অভিযান শেষে এ ক্লাব থেকে গন্ধবিহীন ইয়াবা, একটা বিদেশি পিস্তুলসহ তিন রাউন্ড গুলি, যুক্তরাষ্ট্রের তৈরি ক্যাসিনোতে খেলার কয়েন, স্কোরবোর্ড ও ৫৭২ প্যাকেট তাস উদ্ধার করা হয়। ক্লাবটিতে যেসব জিনিসপত্র পাওয়া গেছে ধারণা করা হচ্ছে আগে এ ক্লাবে ক্যাসিনো খেলা হত।

আশিক বিল্লাহ বলেন, এখান এখান থেকে ৫৭২ পিস আমেরিকার তৈরি প্লেয়িং কার্ড, একটি বিদেশি পিস্তল, তিন রাউন্ড গুলি, ক্যাসিনো খেলার কয়েন ও গন্ধ নেই এমন নতুন ধরনের হলুদ ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে। ক্লাবের ভেতর দেখেছি ক্যাসিনো খেলার বিভিন্ন সরঞ্জাম রয়েছে, এ থেকে আমরা মনে করছি এখানে একসময় ক্যাসিনো খেলা হতো।

এ র‌্যাব কর্মকর্তা বলেন, এই অভিযানে সুনির্দিষ্ট অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে কলাবাগান ক্রীড়াচক্রের সভাপতিসহ মোট পাঁচজনকে আটক করা হয়েছে। ধানমন্ডি থানায় তাদের বিরুদ্ধে মামলা করা হবে।

অভিযানের রাতে ক্লাবটি বন্ধ থাকায় র‌্যাব সদর দফতরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট গাউসুল আজম ক্লাবটির বার ২৪ ঘণ্টার জন্য সিলগালা করে দেন। 

রাজধানীতে ক্লাবের অন্তরালে মাদক, ক্যাসিনো ও জুয়ার বিরুদ্ধে চলা অভিযানের অংশ হিসেবে ধানমন্ডি ক্লাবে অভিযান পরিচালনা করা হয়। 

উল্লেখ্য, গত ১৮ সেপ্টেম্বর অবৈধ জুয়া ও ক্যাসিনো চালানোর অভিযোগে র‌্যাবের হাতে আটক হন খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়া। অস্ত্র ও মাদকের পৃথক দুই মামলায় তাকে সাতদিনের রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ। শুক্রবার তাকে যুবলীগ থেকে বহিষ্কার করা হয়।

ডিএস/এএইচ

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ