ঢাকা, বুধবার 23 October 2019, ৮ কার্তিক ১৪২৬, ২৩ সফর ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

রাজধানীর আরো ৪ ক্লাবে পুলিশের অভিযান

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: রাজধানীর মতিঝিল এলাকায় চারটি ক্লাবে একযোগে অভিযান পরিচালনা করছে পুলিশ। ক্লাবগুলো থেকে নগদ অর্থ, মদ, সিসার যন্ত্রাংশ, টাকা গোনার মেশিন ও জুয়া খেলার কার্ড পাওয়া গেছে। তবে এখনো পর্যন্ত কাউকে আটক বা প্রেপ্তার করা হয়নি।

আজ (২২ সেপ্টেম্বর) দুপুর আড়াইটা থেকে পুলিশ সদস্যরা বিভিন্ন দলে ভাগ হয়ে চারটি ক্লাবে অভিযান শুরু করেন। ক্লাবগুলো হলো- মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব, আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ, ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিং ক্লাব এবং দিলকুশা স্পোর্টিং ক্লাব।

এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব থেকে জব্দকৃত মালামালের তালিকা করা হচ্ছিলো। এর আগে আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ, ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিং ক্লাব এবং দিলকুশা স্পোর্টিং ক্লাবগুলো থেকে মালামাল জব্দ করে ক্লাবগুলোতে তালা লাগিয়ে দেওয়া হয়। ।

ঢাকা মহানগর পুলিশের সহকারী কমিশনার (মতিঝিল জোন) মিশু বিশ্বাস দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, “ক্লাবগুলোর মধ্যে ভিক্টোরিয়া ক্লাবে জুয়া খেলার নয়টি বোর্ড পাওয়া গিয়েছে। এছাড়াও, সেখানে নগদ ১ লাখ টাকা, কয়েকটি মদের বোতল, সিসার যন্ত্রাংশ, টাকা গোনার মেশিন ও জুয়া খেলার কার্ড পাওয়া গেছে বলে জানান তিনি।

তাদের অভিযান অব্যাহত রয়েছে উল্লেখ করে পুলিশ কর্মকর্তা আরো বলেন, কোথাও কিছু শুনলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা অভিযান চালাবে।

ক্যাসিনো ব্যবসায় কারা জড়িত?- প্রশ্ন করা হলে পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (মতিঝিল জোন) শিবলী নোমান সাংবাদিকদের  বলেন, “সেটি তদন্ত করা হচ্ছে এবং ক্লাবগুলোর পরিচালনা পর্ষদে যারা রয়েছেন তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।”

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা জানান, তাদের অভিযান প্রায় শেষ পর্যায়ে। তিনটি ক্লাবের মালামাল জব্দ করে সেগুলো থানায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সেসব ক্লাবে তালা লাগিয়ে দেওয়া হয়েছে। তবে এখনো পর্যন্ত কাউকে আটক বা প্রেপ্তার করা হয়নি।

এর আগে পুলিশের মতিঝিল জোনের উপ-কমিশনার (ডিসি) আনোয়ার হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, সম্প্রতি রাজধানীর কয়েকটি ক্লাবে অভিযান চলানোর পর অন্যান্য ক্লাবের জিনিসপত্র এনে এসব ক্লাবে রাখা হয়েছে। তাছাড়া, এই চারটি ক্লাবেও ক্যাসিনো ব্যবসা চালানোর অভিযোগ রয়েছে।

 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ