ঢাকা, মঙ্গলবার 8 October 2019, ২৩ আশ্বিন ১৪২৬, ৮ সফর ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

নির্ধারিত সময়েই হচ্ছে বঙ্গবন্ধু বিপিএল- জালাল ইউনুস

স্পোর্টস রিপোর্টার : কয়েকদিন আগে নির্ধারিত সময়ে বিপিএল অয়োজন করা নিয়ে শঙ্কার কথা জানিয়েছিলেন মিডিয়া কমিটির প্রধান জালাল ইউনুস। তিনি জানিয়েছিলেন, নির্ধারিত সময়ে বিপিএল অয়োজন করা নিয়ে শঙ্কার মধ্যে রয়েছে বিসিবি। তবে গতকাল বিপিএল নিয়ে সেই শঙ্কা এবার দূর করে দিলেন তিনি। মিরপুরের বিসিবি কার্যালয়ে তিনি জানান, নির্ধারিত সময়েই বিপিএল মাঠে গড়াবে। সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী ০৩ ডিসেম্বর হবে বঙ্গবন্ধু বিপিএলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। আর উদ্বোধনী ম্যাচ হবে ০৬ ডিসেম্বর। মিডিয়া কমিটির প্রধান বলেন, ‘আগে যেটা বলেছিলাম যে ৬ ডিসেম্বর থেকে শুরু হবে বিপিএল, এখনও সেটাই রয়েছে। ইতোমধ্যে কিন্তু ক্রিকেট বোর্ড তাদের কাজ শুরু করে দিয়েছে। আমাদের সিইও, উনি সব দেখছেন। বিপিএল আয়োজনের জন্য যে হোমওয়ার্ক করা দরকার সেগুলো করা শুরু হয়ে গেছে এবং পেপার ওয়ার্কও শুরু হয়েছে। কাজগুলো শেষ হলেই শীঘ্রই আমাদের যে পার্টনার বা স্পন্সর নেওয়ার কথা রয়েছে তাদের সঙ্গে আলোচনায় বসবো।’ বিদেশী ক্রিকেটারদের খেলার নিয়ম আগেরটাই থাকবে বলে জানান তিনি। তিনি বলেন, ‘ফরম্যাট আগে যেমন ছিলো তা একই থাকবে। চারজন বিদেশি খেলোয়াড় যেটা আগে ছিলো এবারও তাই থাকছে। ফ্র্যাঞ্চাইজির সঙ্গে ক্রিকেটাররা যদি আগে চুক্তি করে থাকে আর তারা যদি ফ্রি থাকে তাহলে আমরা তাদেরকে অফার করতে পারি যে তারা অংশগ্রহণ করবে কিনা।’ বিপিএলের ক্রিকেটারদের নিলামের পদ্ধতি শুধু এবারের জন্য কার্যকর থাকবে। জালাল উইনুস বলেন, ‘আমরা আগেই বলেছি এটা বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ। স্পেশাল এক এডিশন এটা। আমরা যখন ই.ও.আই. দিয়েছিলাম সেখানেও উল্লেখ করেছিলাম যে এটা কেবল একবারের জন্য।’ এছাড়া জালাল আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছেন। তাহলো শিগগিরই স্পন্সর পার্টনারদের সাথে বসবেন তারা। এর আগে যতবারই কথা বলেছেন, ঠিক এই কথাটি তার মুখ থেকে উচ্চারিত হয়নি। এবারের বিপিএল জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামে হবে। এ তথ্য নতুন করে জানিয়ে জালাল বলেন, ‘আমরা আগেই বলেছি এটা হবে বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ। এটা স্পেশাল এক এডিশন। এটা একটা আসরেই হবে। অর্থাৎ শুধু এবারই তা হবে। আমরা আগেই উল্লেখ করেছিলাম যে এটা কেবল একবারের জন্য।’ জালাল ইউনুস যোগ করেন, ‘বোর্ড সভাপতি (নাজমুল হাসান পাপন) নিজেই এবার দায়িত্ব নিয়েছেন। উনি বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সঙ্গে বসবেন।’ এক সপ্তাহ আগে ৬ ডিসেম্বর বিপিএল মাঠে গড়ানো নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করে তিনি বলেছিলেন, ‘এখনই বলতে পারছি না। যেহেতু দেরি হয়ে যাচ্ছে, আরও কত দেরি হতে পারে, এখনই বলা মুশকিল। নির্ধারিত তারিখে শুরু হবে কিনা আমারও সন্দেহ আছে! অনেক কিছুই এখনো শেষ হয়নি। এসব শেষ করে টুর্নামেন্ট শুরুর তারিখ ঘোষণা হতে পারে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ