ঢাকা, মঙ্গলবার 8 October 2019, ২৩ আশ্বিন ১৪২৬, ৮ সফর ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

১৩ ডিজিটের টিন ছাড়া এলসি না খোলার নির্দেশ

স্টাফ রিপোর্টার: নতুন ১৩ ডিজিট সম্পন্ন নিবন্ধন সংখ্যাবিহীন কোনো আমদানিকারকের পক্ষে এলসি বা ঋণপত্র ইস্যু না করার নির্দেশনা দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এই নির্দেশনা ১ নভেম্বর থেকে কার্যকর হবে।
গতকাল সোমবার বাংলাদেশ ব্যাংকের  বৈদেশিক মুদ্রা নীতি বিভাগের এক প্রজ্ঞাপনে এই নির্দেশনা দেওয়া হয়েছ। এনবিআরের পাঠানো চিঠির পরিপ্রেক্ষিতে এই নির্দেশনা জারি করে বাংলাদেশ ব্যাংক।
এর আগে ২৯ সেপ্টেম্বর জাতীয় রাজস্ব বোর্ড-এনবিআর থেকে এ বিষয়ে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছিল। এতে বলা হয়েছে, ১৩ ডিজিটের নিবন্ধন সংখ্যা ব্যতিত অনলাইনে রিটার্ন দাখিল করা সম্ভব নয়।
এনবিআরের ভ্যাট অনলাইনের প্রকল্প পরিচালক  সৈয়দ মুশফিকুর রহমান স্বাক্ষরিত ওই নির্দেশনায় বলা হয়েছে, এনবিআর ১ জুলাই থেকে মূল্য সংযোজন কর ও সম্পূরক শুল্ক আইন ২০১২ কার্যকর করেছে। এটি অনলাইন ভিত্তিক ব্যবস্থাপনা হওয়ায় এর আওতায় ভ্যাট প্রতিষ্ঠানসমূহের ড্যাটাবেজটি হালনাগাদ করা দরকার। এই জন্য করদাতাগণকে পুরাতন ১১ বা ৯ ডিজিট বিশিষ্ট মূসক নিবন্ধনের পরিবর্তে ১৩ ডিজিট সম্পন্ন মূসক নিবন্ধন ব্যবহারের নির্দেশনা দেয়া হলো। ১৩ ডিজিট সম্পন্ন মূসক নিবন্ধনের প্রথম ৯ ডিজিট ব্যবসা শনাক্তকরণ সংখ্যা। এরপর একটি হাইফেন দিয়ে পরের ৪ ডিজিট অধিক্ষেত্র সনাক্তকরণ সংখ্যা যা ব্যবসার স্থানের পরিবর্তনের সাথে পরিবর্তনশীল।
নতুন নিবন্ধন সংখ্যা গ্রহণের শেষ তারিখ ১৪ আগস্ট হলেও তা বাড়িয়ে ৩১ অক্টোবর করা হয়েছে। এরপর ১৩ ডিজিটের নিবন্ধন সংখ্যা ব্যতিত কোনো এলসি না খুলতে নির্দেশনা দেওয়া হলো। এই আইন ১ নভেসম্বর থেকে কার্যকর হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ