ঢাকা, মঙ্গলবার 8 October 2019, ২৩ আশ্বিন ১৪২৬, ৮ সফর ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

রাজস্থানে ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি না দেয়ায় মুসলিম দম্পতিকে মারধর

৭ অক্টোবর, ইন্টারনেট : ভারতের রাজস্থান রাজ্যের আলওয়ার শহরে এক মুসলিম দম্পতি ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি দিতে অস্বীকার করায় তাদেরকে মারধর করা হয়েছে। ওই ঘটনায় পুলিশ বংশ ভরদ্বাজ (২৩) ও সুরেন্দ্র মোহন ভাটিয়া (৩২) নামে দু'জনকে গ্রেফতার করেছে। গত রোববার তাদেরকে আদালতে পেশ করা হলে ১৮ অক্টোবর পর্যন্ত বিচারবিভাগীয় হেফাজতে পাঠানো হয়েছে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৫৪-এ, ২৯৫, ৫০৯, ৩২৩ ও ৩৮৬ ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে। 

গণমাধ্যম সূত্রে প্রকাশ, অভিযুক্ত বংশ ভরদ্বাজ (২৩) ও সুরেন্দ্র মোহন ভাটিয়া (৩২) এক মুসলিম দম্পতিকে ‘জয় শ্রীরাম ধ্বনি’ দিতে বাধ্য করলে বিবাদের সৃষ্টি হয়। তারা ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি দিতে অস্বীকার করলে, দুই অভিযুক্ত ব্যক্তি মুসলিম যুবককে মারধর করে এবং তার স্ত্রীর শ্লীলতাহানি করে। ঘটনাস্থলে উপস্থিত ব্যক্তিরা অভিযুক্তকে মারধর করে আলওয়ারের কোতয়ালি থানা পুলিশের হাতে হস্তান্তর করেন। হরিয়ানার নুহ মেওয়াতের বাসিন্দা মুসলিম দম্পতি গত শনিবার রাতে আলওয়ারের বাসস্ট্যান্ডে তাঁদের নির্দিষ্ট গন্তব্যস্থলে যাওয়ার বাসের জন্য অপেক্ষা করছিলেন। এসময় দু'জন যুবক এসে ওই দম্পতিকে ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি দিতে বাধ্য করে। ভুক্তভোগীদের অভিযোগ, ওই দু’জন তাদের বলেছিল যে ‘মুসলিমরা হিন্দুস্তানে থাকে কিন্তু রাম-রাম জপ করে না’। তারা মুসলিম যুবককে জয় শ্রীরাম ধ্বনি দিতে আদেশ করলে ওই যুবক তা দিতে অস্বীকার করায়  তাদেরকে মারধর ও নির্যাতন করা হয়। তাঁর স্ত্রী প্রতিবাদ করলে তিনি  যৌন নিগ্রহের শিকার হন। এসময় ওই দম্পতি কেঁদে ফেলেন ও সাহায্যের জন্য আবেদন জানালে আশেপাশের লোকজন জড়ো হয়ে অভিযুক্তদের ধরে তাদেরকে পিটুনি দিয়ে  পুলিশের হাতে হস্তান্তর করে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ