ঢাকা, মঙ্গলবার 8 October 2019, ২৩ আশ্বিন ১৪২৬, ৮ সফর ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

পেকুয়া আল আরাফাহ ইসলামী ব্যাংকে অগ্নিকান্ড ॥ ক্ষয়ক্ষতি ৫ লক্ষাধিক টাকার

পেকুয়া (কক্সবাজার) সংবাদদাতা : পেকুয়া উপজেলা সদরের চৌমুহনীতে আল আরাফাহ ইসলামি ব্যাংকের পেকুয়া শাখায় লাগা আগুন ফায়ার সার্ভিস নিয়ন্ত্রণে আনে। ক্ষয়ক্ষতি ৫ লক্ষাধিক বলে ধারণা করা হচ্ছে। শনিবার (৫ অক্টোবর) দিবাগত রাত ১১.৫৫ মিনিটের দিকে আগুনের সূত্রপাত হয়। বিষয়টি পেকুয়া থানা পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস নিশ্চিত করেছেন। 

খবর পেয়ে পেকুয়া ফায়ার সার্ভিস তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। দীর্ঘ ২ ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে পেকুয়া ফায়ার সার্ভিসের দুটি গাড়ি কাজে লাগিয়ে রাত ১.৫৫ মিনিটের দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে ব্যাংকের ভেতরে ধোঁয়ায় অন্ধকার হয়ে যাওয়ায় ব্যাংকের প্রধান দরজা ও গ্লাস ভেঙ্গে ফায়ার সার্ভিসের লোকজন ব্যাংকের ভেতরে প্রবেশ করে ধুঁয়া বের করে দেয়। বিদ্যুতের শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সুত্রপাত হয় বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। আগুন লাগার পর বিদ্যুৎ বিভাগের লোকজন এসে বিদ্যুতের লাইন বিচ্ছিন্ন করে দেয়। পেকুয়া চৌমুহনীর বাহাদুর শাহ ভবনের ২য় তলায় আল আরাফাহ ইসলামি ব্যাংকটির পেকুয়া শাখা অবস্থিত। তার নীচে ফুলকলি বেকারী ও ফার্স্ট সিকিউরিটি ব্যাংকের এটিএম বুথ। পাশে রয়েছে পেকুয়া প্রেসক্লাব। ব্যাংকের এ শাখাটি প্রায় ৩ মাস আগে স্থাপন করা হয়। যখন আগুন জ্বলছিল, তখন গুড়ি গুড়ি বৃষ্টিও হচ্ছিল। ফায়ার কর্মীরা এ প্রতিবেদককে জানিয়েছেন, তারা আগুনের ক্ষয়ক্ষতি নিরূপন করতে পারেননি। নিরাপত্তার জন্য ও লোকজনের ভীড় সামলাতে পেকুয়া থানার প্রচুর পুলিশ মোতায়েন ছিল। দু’দিন সাপ্তাহিক ছুটি থাকায় ব্যাংকের কর্মকর্তারা অনেকেই নিজ নিজ বাড়িতে ছিলেন। স্থানীয়ভাবে যারা পেকুয়াতে থাকেন তারা আগুন ব্যাংকে আগুন লাগার খবর পেয়ে ব্যাংকে আসেন। ব্যাংকের পেকুয়া শাখার ম্যানেজার ফয়েজ উল্লাহ জানায়, ব্যাংকের ভিতরে টাকা ও ডকুমেন্টগুলি সুরক্ষিত রয়েছে। তবে গ্রাহকদের তিনি আতংকিত না হওয়ার জন্য অনুরোধ জানান। পেকুয়া ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা হারুন জানায়, ব্যাংকে একটি এসি, বিদ্যুতের বোর্ড, প্রধান দরজা নষ্ট হয়েছে। খবর পেয়ে পেকুয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাঈকা শাহাদাত, পেকুয়া থানার ইনচার্জ কামরুল আজম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ