ঢাকা, বৃহস্পতিবার 10 October 2019, ২৫ আশ্বিন ১৪২৬, ১০ সফর ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

দাবানলে পুড়ছে অস্ট্রেলিয়ার নিউ সাউথ ওয়েলস 

৯ অক্টোবর, বিবিসি : দাবানলে পুড়ছে অস্ট্রেলিয়ার নিউ সাউথ ওয়ালেস। আগুনের তীব্রতায় ইতোমধ্যেই পুড়ে গেছে বা ব্যাপক্ষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে রাজ্যের উপদ্রুত এলাকার ৩০টির মতো বাড়িঘর। নিউ সাউথ ওয়ালেস পেরিয়ে গত মঙ্গলবার আগুনের উত্তাপ ছড়িয়েছে সংলগ্ন কুইন্সল্যান্ড এলাকাতেও।

আগুনের তীব্রতায় অন্তত এক ব্যক্তি মারাত্মকভাবে পুড়ে গেছেন। পূর্ব অস্ট্রেলিয়ায় খরা আক্রান্ত এলাকাগুলোতে গত সেপ্টেম্বর থেকেই আগুন ছড়িয়ে পড়ার মতো ঘটনা ঘটছে। কর্তৃপক্ষ বলছে, কিছু এলাকায় ভয়াবহ রকমের আগুনের মৌসুম শুরু হয়েছে।

বর্তমান দাবানলটিতে ইতোমধ্যেই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এক লাখ হেক্টরেরও বেশি এলাকা। কিছু কিছু এলাকা পাঁচ সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে জ্বলছে।

অস্ট্রেলিয়ায় সাধারণত গ্রীষ্মকালে তাপদাহের কারণে জঙ্গলে দাবানল পরিলক্ষিত হয়। স্থানীয়রা একে বলে থাকে বুশফায়ার। এই দাবানল কতটা মারাত্মক আকার ধারণ করতে পারে, টেলিভিশনের পর্দায় মাঝেমধ্যেই উঠে আসে তার করুণ চিত্র। আগুনের এই রোষের মুখে অসহায় হয়ে পড়ে মানুষ। কখনও সংলগ্ন এলাকা থেকে মানুষজনকে উদ্ধার করা অথবা দাবানলের পথে গাছ কেটে আগুন থামানোর চেষ্টাতেই অবলম্বন খোঁজেন স্থানীয়রা। সরকারিভাবে বিমান থেকে বিশেষ তরল মিশ্রণ ঢেলে আগুন নেভানোর চেষ্টাও করা হয়। তবে সে প্রচেষ্টা সব সময় সফল হয় না। তবে বুশফায়ার বা দাবানলপ্রবণ এলাকায় জনবসতি তুলনামূলক কম থাকে। ফলে লোকজনের প্রাণহানি বা ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণও কিছুটা কম হয়। কিন্তু প্রচুর গাছ ও জীবজন্তুর প্রাণহানি ঘটে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ