ঢাকা, বৃহস্পতিবার 10 October 2019, ২৫ আশ্বিন ১৪২৬, ১০ সফর ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

আবরার হত্যার বিচারের দাবিতে ছাত্রদলের বিক্ষোভ

স্টাফ রিপোর্টার: বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যার বিচারের দাবিতে রাজধানীতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের বিভিন্ন ইউনিটের নেতাকর্মীরা। সংগঠনের কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে এ কর্মসূচি পালন করেন তারা। কেন্দ্রীয়ভাবে বেলা ১১টার দিকে নয়াপল্টন বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে ঢাকা মহানগর ছাত্রদলের পূর্ব শাখার সভাপতি খন্দকার এনামুর রহমান এনামের নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে মিছিলটি শুরু হয়ে নাইটিঙ্গেল মোড় ঘুরে আবার দলীয় কার্যালয়ের সামনে এসে শেষ হয়।
এছাড়া গতকাল বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে গুলশান-১ নম্বর থেকে সরকারি তিতুমীর কলেজ শাখার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহবুবুল আলম মাহবুব ও সাধারণ সম্পাদক আমিনুল হকের নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলটি গুলশান-১ ডিসিসি মার্কেট থেকে শুরু হয়ে মহাখালী ওয়ারলেস গেটে গিয়ে শেষ হয়। একই সময় রাজধানীর বনানী এলাকায় বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদল নেতাকর্মীরা বিক্ষোভ মিছিল করে। মিছিলে অংশ নেন কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সাবেক সহসম্পাদক এস এম মামুন হাশেমী দীপু, সাবেক যুগ্ম আহবায়ক ও কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সাবেক সহসম্পাদক আকন মামুন, সহসম্পাদক নাজমুল হুদা, বর্তমান সভাপতি মুক্তাদির হোসেন তরু, সিনিয়র সহসভাপতি বাইজিদ প্রধান, সাধারণ সম্পাদক জিমি, সাংগঠনিক সম্পাদক অহিদুল ইসলাম অপু, সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক পিয়াস, প্রাইম এশিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের সভাপতি মোবারক মিতুল, আশা বিশ্ববিদ্যালয়ের সভাপতি সরোয়ার, সাউথ ইস্ট সভাপতি বিপ্লব, অতীস দিপঙ্কর সভাপতি বিন্দু, সাউথ ইস্ট সাধারণ সম্পাদক মুরসালিনসহ সিরালাত সজিব, নয়ন, জনি, মুন্তাছির, হাবিব, সিফাত, নুরহোসেন, সারা ইয়ামি, তন্নী প্রমুখ। এছাড়া দুপুর ১টার দিকে নীলক্ষেত মোড়ে ঢাকা কলেজ শাখা ছাত্রদল বিক্ষোভ মিছিল করে।
বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের ফাঁসি দাবি করেছেন ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল। তিনি বলছেন, ভারতের সঙ্গে সরকার যেসব চুক্তি করেছে তা দেশের স্বার্থবিরোধী। শ্যামল বলেন, সরকার ভারতের সঙ্গে যেসব চুক্তি করেছে তা দেশের স্বার্থবিরোধী। সেটাই আবরার ফেসবুকে লিখেছিল। সেসব চুক্তি বাতিল করতে হবে। সেইসঙ্গে আবরার হত্যাকারীদের ফাঁসি দিতে হবে এবং ভয়-ভীতিহীন ক্যাম্পাস ও সহাবস্থান নিশ্চিত করতে হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ