ঢাকা, মঙ্গলবার 19 November 2019, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২১ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

পদ্মায় আটক জেলেদের ছিনিয়ে নিতে এসে বিজিবির গুলিতে বিএসএফ সদস্য নিহত

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: পদ্মায় মাছ ধরার সময় ভারতীয় এক জেলেকে আটক করার পর রাজশাহীর চারঘাট সীমান্তে বিজিবি ও বিএসএফের মধ্যে গোলাগুলিতে এক বিএসএফ সদস্য নিহতের খবর পাওয়া গেছে।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকা দাবি করেছে গোলাগুলিতে নিহত বিজয়ভান সিংহ বিএসএফ-এর হেড কনস্টেবল।

বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে উপজেলা সদরের বালুঘাট এলাকার পদ্মা ও শাখা বড়াল নদীর মোহনায় এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় অন্য এক বিএসএফ সদস্য হাতে গুলিবিদ্ধ হয়েছেন বলে দাবি করে স্থানীয়রা জানান, বিএসএফ হতাহতদের নিয়ে ভারতীয় সীমান্তের অভ্যন্তরে চলে গেছে। তবে বিজিবি ভারতীয় জেলে চাই মন্ডল ও তার নৌকা আটক করেছে।

চারঘাট উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা আরিফুল ইসলাম জানান, প্রজনন মৌসুমের জন্য পদ্মায় ইলিশ শিকারে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। এ অবস্থায় জেলেরা যেন পদ্মায় ইলিশ শিকার করতে না পারে, সে জন্য বিজিবি সদস্যদের নিয়ে তারা বৃহস্পতিবার সকালে অভিযানে যান। এসময় তারা দেখেন, পদ্মা-বড়ালের মোহনায় বাংলাদেশ সীমানার অভ্যন্তরে একটি নৌকায় করে তিনজন ইলিশ শিকার করছে।

তিনি আরও বলেন, তারা কাছাকাছি গিয়ে বুঝতে পারেন, ওই জেলেরা ভারতীয়। এসময় তারা ওই জেলেদের আটকের চেষ্টা করেন। এ সময় দুইজন জেলে নৌকা থেকে লাফিয়ে পড়ে সাঁতরে পালিয়ে যান। ফলে তারা নৌকাসহ একজনকে আটক করতে সক্ষম হন। এ সময় পালিয়ে যাওয়া জেলেরা গিয়ে বিএসএফকে বিষয়টি অবহিত করে। খবর পেয়ে বিএসএফ সদস্যরা ঘটনাস্থলে এসেই গালাগালি শুরু করেন। বিজিবি সদস্যরা প্রতিবাদ করলে বিএসএফ সদস্যরা গুলিবর্ষণ করে। তখন আত্মরক্ষার্থে বিজিবির পক্ষ থেকেও পাল্টা গুলিবর্ষণ করা হয়। একপর্যায়ে বিএসএফ সদস্যরা পিছু হটতে বাধ্য হন। পরে তারা একজন ভারতীয় জেলে এবং তার নৌকা আটক করে বিজিবির চারঘাট করিডর সীমান্ত ফাঁড়িতে নিয়ে আসেন।

এদিকে বিএসএফ'র বরাত দিয়ে আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে, মুর্শিদাবাদের জলঙ্গিতে জলসীমান্ত পেরিয়ে বাংলাদেশেঢুকে গিয়েছিলেন তিনজন ভারতীয় মৎস্যজীবী। তাদের উদ্ধার করতে গিয়েছিল বিএসএফ। 

বিএসএফের দাবি, বৃহস্পতিবার দুই মৎস্যজীবীকে উদ্ধার করে ফেরার পথে আচমকাই বিজিবি গুলি চালায়। ওই ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে বিএসএফ-এর হেড কনস্টেবল বিজয়ভান সিংহের। তার মাথায় গুলি লাগে। অন্য এক কনস্টেবল বিজিবি-র ছোড়া গুলিতে আহত হয়েছেন। তাকে মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি করা হয়েছে।

বিজিবি রাজশাহীর ১ ব্যাটালিয়নের অতিরিক্ত পরিচালক মেজর আসিফ বুলবুল সাংবাদিকদের কাছে বিজিবি-বিএসএফ গুলি বিনিময়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তবে আটক জেলের নাম প্রকাশ করেননি এবং বিএসএফ সদস্য হতাহতের বিষয়ে কিছুই বলেননি। এছাড়া কত রাউন্ড গুলি বিনিময় হয়েছে তাও বলেননি তিনি।

এ বিষয়ে মেজর আসিফ বুলবুল সাংবাদিকদের বলেন, ‘একজন ভারতীয় জেলে বিজিবি’র হাতে আটক রয়েছেন। শুনেছি গুলি বিনিময়ের ঘটনা ঘটেছে। বিকালে দুই বাহিনীর কমান্ডার পর্যায়ে পতাকা বৈঠক ডাকা হয়েছে। পতাকা বৈঠকের পরই বিস্তারিত বলা যাবে।’

ডিএস/এএইচ

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ