ঢাকা, মঙ্গলবার 19 November 2019, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২১ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

প্রধানমন্ত্রী যুবলীগের যাদের ডেকেছেন তারাই গণভবনে যাবেন: সেতুমন্ত্রী

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: গণভবনে মিটিং ডেকেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেখানে তিনি কাকে ডাকবেন আর কাকে ডাকবেন না সেটা তার বিষয়। যদি এটা পার্টির অফিসে ডাকা  হতো  তাহলে আমি বলতে পারতাম। বললেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের ওবায়দুল কাদের।

শুক্রবার সকালে বঙ্গবন্ধুর কনিষ্ঠপুত্র শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষে রাজধানীর বনানীতে তার কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানো শেষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

যুবলীগের চেয়ারম্যানকে গণভবনে ডাকা হয়নি, তাহলে কি তাকে অপসারণ করা হয়েছে? সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের উত্তরে ওবায়দুল কাদের বলেন, রোববার যুবলীগ নিয়ে গণভবনে মিটিং (বৈঠক) ডেকেছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। যুবলীগের চেয়ারম্যানকে কেন ডাকা হয়নি, কোন বয়স পর্যন্ত যুবলীগ করা যাবে সেসব আলোচনা করা হবে। আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা যুবলীগকে গণভবনে ডেকেছেন। সেখান থেকে  যাদের বলা হয়েছে তারাই মিটিংয়ে যাবেন।

কাদের বলেন, বিএনপির একটি রোগ আছে। সেটা হলো- অভিযোগ। অভিযোগ নামক রোগ বিএনপিকে পেয়ে বসেছে। তারা কথায় কথায় অভিযোগ করে নালিশ করে। এছাড়া তো তাদের আর কিছু করার নেই।

তিনি বলেন, বিএনপি রাজনীতিতে ইতিবাচক ধারায় ফিরে আসুক এটা আমরা চাই। অভিযোগ আর নালিশের রাজনীতি বাদ দিয়ে গণরাজনীতির ধারায় ফিরে আসুক সেটাই আশা করি।

বিএনপি সরকারের বিরুদ্ধে বিষোদগার করছে অভিযোগ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, দায়িত্বশীল বিরোধীদল হিসেবে দায়িত্বজ্ঞানহীন সব কর্মকাণ্ডই করছে তারা। নির্বাচন ও আন্দোলনে ব্যর্থ হয়েছে এখন ইস্যু খুঁজে বেড়াচ্ছে। কোনো একটা ইস্যু পেলেই তারা তার মধ্যে রাজনীতি খুঁজে পায়।

ডিএস/এএইচ

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ