ঢাকা, বুধবার 6 November 2019, ২২ কার্তিক ১৪২৬, ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

বাংলাকে বিশ্বমঞ্চে তুলে ধরতে লিট ফেস্ট শুরু ৭ নভেম্বর

স্টাফ রিপোর্টার : বিশ্বের পাঁচটি মহাদেশের দুই শতাধিক সাহিত্যিক, বক্তা, পারফরমার ও চিন্তাবিদের অংশগ্রহণে আগামী ৭ নভেম্বর থেকে বাংলা একাডেমি চত্বরে শুরু হচ্ছে ঢাকা আন্তর্জাতিক লিট ফেস্ট ২০১৯। তিন দিনের এই আয়োজনে অতিথিরা শতাধিক সেশনে অংশ নেবেন। সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের পৃষ্ঠপোষকতায় আয়োজিত এই উৎসবে বরাবরের মতো এবারের থাকছে জেমকন সাহিত্য পুরস্কার।
গতকাল মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে উৎসবের আয়োজকরা এসব তথ্য জানান। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা লিট ফেস্টের ডিরেক্টর সাদাফ সাজ, মাশরুর আরেফিন, কাজী আনিস আহমেদ, আহসান আকবর, বাংলা ট্রিবিউন সম্পাদক জুলফিকার রাসেল ও ঢাকা ট্রিবিউন সম্পাদক জাফর সোবহান প্রমুখ।
সাংবাদিক সম্মেলনে জানানো হয়, তিন দিনের এই আয়োজনে আলোচনা, পারফরম্যান্স, চলচ্চিত্র প্রদর্শনী ও আনপ্লাগড মিউজিক কনসার্টসহ থাকবে নানা আয়োজন। সাহিত্যের আন্তর্জাতিক এই উৎসবে বিশ্ব সাহিত্যের সঙ্গে বাংলা সাহিত্যের মেলবন্ধনে একই মঞ্চে নিজেদের অভিজ্ঞতার গল্প বলবেন বিশ্ব সাহিত্যাঙ্গনের গুণীরা।
এ বছর আয়োজনে অংশ নেবেন ম্যানবুকার পুরস্কারের চূড়ান্ত তালিকাভুক্ত সাহিত্যিক মনিকা আলী, উপমহাদেশের অন্যতম সাহিত্য ব্যক্তিত্ব শংকর, পুলিৎজার বিজয়ী লেখক জেফরি গেলটম্যান, ডিএসসি পুরস্কারজয়ী সাহিত্যিক এইচএম নাকভি, ইতিহাসভিত্তিক লেখক উইলিয়াম ডালরিম্পল, ভারতীয় রাজনীতিবিদ ও লেখক শশী থারুর, কবি তিশানী দোশি, সাহিত্যিক স্বপ্নময় চক্রবর্তী, কবি ও সাংবাদিক মৃদুল দাশগুপ্ত, কথাসাহিত্যিক সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম, ইমদাদুল হক মিলন, শাহীন আক্তার, সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম, আসাদ চৌধুরী, রুবী রহমান, সেলিনা হোসেন প্রমুখ।
সাদাফ সাজ বলেন, আগামী ৭-৯ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া এ সাহিত্য উৎসবে পাঁচটি মহাদেশের ১৮টি দেশ থেকে শতাধিক বিদেশি এবং দুই শতাধিক বাংলাদেশি সাহিত্যিক, লেখক, গবেষক, সাংবাদিক, রাজনীতিক অংশ নিচ্ছেন। দেশি-বিদেশি অতিথিদের সঙ্গে সরাসরি সাহিত্যসহ সমাজের বিভিন্ন প্রসঙ্গ নিয়ে আলোচনা-পর্যালোচনার সুযোগ থাকছে জনসাধারণের জন্য।
সাদাফ আরও বলেন, শুধুই যে লিট ফেস্টের ৯০টির বেশি সেশন অনুষ্ঠিত হবে তা নয়, এখানে রয়েছে বইয়ের সমারোহ, দেশীয় ঐতিহ্যকে তুলে ধরার উন্মুক্ত মঞ্চ। বই প্রকাশ এবং বইয়ের মোড়ক উন্মোচনও অনুষ্ঠিত হবে এই আয়োজনে। লোকশিল্পীদের উপস্থিতি থাকবে, থাকছেন শিল্পী চন্দনা, মাইজভান্ডারি শিল্পীগোষ্ঠী। আমাদের একমাত্র উদ্দেশ্য বাংলাদেশের অসাম্প্রদায়িকতা, গণতন্ত্র ও সাহিত্য বিশ্বের কাছে তুলে ধরা। এছাড়া অংশ নিচ্ছেন ভারতীয় সাংবাদিক প্রেয়াগ আকবর, প্রিয়াঙ্কা দুবে, ফিনিশ সাংবাদিক মিন্না লিন্ডগ্রেন, ডিএসসি পুরস্কারপ্রাপ্ত লেখক এইচএম নাকভি, ব্রাজিলের কথাসাহিত্যিক ইয়ারা রড্রিগেজসহ অনেকে।
তিন দিনব্যাপী এ আয়োজনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে থাকছে সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ ও কথাসাহিত্যিক মনিকা আলীর উপস্থিতি। এ ছাড়া এবারের অনুষ্ঠানের অন্যতম আকর্ষণ হিসেবে থাকছে চলচ্চিত্র ‘হাসিনা: আ ডটার্স টেল’-এর প্রদর্শনী। ঢাকা লিট ফেস্ট সবার জন্য থাকবে উন্মুক্ত। উৎসবের শেষ দিন পর্যন্ত অনলাইনে রেজিস্ট্রেশন করে অংশ নেওয়া যাবে এই উৎসবে। রেজিস্ট্রেশন করতে হব www.dhakalitfest.com ওয়েবসাইট থেকে।
প্রথমদিন এই উৎসবে দেওয়া হবে বাংলাদেশের জনপ্রিয় সাহিত্য সম্মাননা জেমকন সাহিত্য পুরস্কার। এই উৎসবের দ্বিতীয় দিনে প্রদর্শিত হবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওপর নির্মিত ডকুফিল্ম ‘হাসিনা: অ্যা ডটার্স টেল’। প্রদর্শন শেষে চলচ্চিত্র নির্মাতা পিপলু খান বলবেন এর নির্মাণ অভিজ্ঞতা নিয়ে। এছাড়া ভারতীয় চলচ্চিত্র নির্মাতা কৌশিক মুখার্জি আসছেন তার চলচ্চিত্র নিয়ে আলাপ করতে। উৎসবটি প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে রাত ৭টা পর্যন্ত সবার জন্য মুখর থাকবে বিভিন্ন আয়োজনে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ