ঢাকা, শুক্রবার 8 November 2019, ২৪ কার্তিক ১৪২৬, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

সাকী মাহবুব এর “মনীষীদের বইয়ের নেশা” প্রাসঙ্গিক দৃষ্টিপাত

ইয়াছিন মাহমুদ : আমার বিশ্ববিদ্যালয়ের যে সকল বন্ধুরা কলমে বারুদের মতো আগুন ছড়ায় তাদের মধ্যে সাকী মাহবুব অন্যতম। আমাদের বাংলা সাহিত্যের সমকালের একজন তরুণ প্রতিভাধর ব্যক্তি তিনি। সাহিত্যের সাথে তার ঘনিষ্ঠতা উল্লেখযোগ্য। চিন্তা, চেতনা, মেধা ও যোগ্যতার সুষম মিশ্রণ তাকে যেমন আরাধ্য করেছে তেমনি তার সৃজনশীলতাও তার মাঝে তৈরি করেছে বাড়তি আকর্ষণ। সাকী মাহবুব আমার প্রিয় লেখকদের একজন। কবিতা দিয়ে লেখালেখি শুরু করলেও তিনি খুব ভালো মাপের একজন প্রাবন্ধিকও। তার অনেকগুলো বই পাঠকদের কাছে এসেছে। কয়েকটি বই অনন্যতা ও অভিনবত্বে ঈর্ষণীয় খ্যাতিও লাভ করেছে। তার বই পড়ে আমি নিজেও মুগ্ধ হয়েছি। পুলকিত হয়েছি। "মনীষীদের বইয়ের নেশা "বইটি আমার দৃষ্টিতে লেখকের অন্যতম সেরা বই। এ ধরনের বই সকল শ্রেণির পাঠকদের অবশ্যই পাঠ্য হওয়ার মতো। বইটি লেখক সাজিয়েছেন নয়টি লোভনীয় প্রবন্ধ দিয়ে। প্রবন্ধগুলোর শিরোনাম শুনলেই আপনার বইটি পড়ার প্রতি মধুর এক আকর্ষণ তৈরি হয়ে যাবে। শিরোনামগুলো হলো ১.বই জীবনের শ্রেষ্ঠ বন্ধু ২.পড়িলে বই আলোকিত হই, ৩. মনীষীদের বইয়ের নেশা, ৪.আল কুরআন পৃথিবীর সর্বাধিক পঠিত গ্রন্থ, ৫.বই বিস্ময়কর এক শক্তি, ৬.বিনোদনের অন্যতম মাধ্যম বই। ৭. মানব সভ্যতার বিকাশে বই।৮ আনন্দের অপর নাম বই এবং ৯,.বই সমাজ বদলের হাতিয়ার। লেখক বইয়ের মধ্যে বিশ্বের সেরা সেরা খ্যাতিমান ব্যক্তিত্বদের বই পড়ার তীব্র নেশার কথা অকপটে লিখে গেছেন। এদের মধ্যে বিখ্যাত চিকিৎসা বিজ্ঞানী ইবনে সীনা, নোবেল লরিয়েট জর্জ বার্নার্ডশ, মাদাম মেরি কুরি, প্রখ্যাত দার্শনিক ইবনে রুশদ, ফ্রান্সিস বেকন,ভারতের অহিংস আন্দোলনের অবিসংবাদিত নেতা গান্ধী মোহনদাস করমচাঁদ, আমেরিকার  সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা, ফ্রান্সের শ্রেষ্ঠ নেতা নেপোলিয়ন বোনাপার্ট, তুখোড় রাজনীতিবিদ, শেরে বাংলা একে ফজলুল হক, হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী, বিশ্বের সেরা ধনী বিল গেটস, ওয়ারেন বাফেট, বিশ্ব টেলিভিশন তারকা অপরাহ উইনফ্রে, প্রখ্যাত সাহিত্যিক জে, কে, রাউলিং, ওমর খৈয়ম, ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর, বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়, জ্ঞান তাপস ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ, কবি আল মাহমুদ, আব্দুল মান্নান সৈয়দ, অধ্যাপক আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ, হাদিস শাস্ত্রের বরণীয় ব্যক্তিত্ব মুসলিম বিশ্বের গর্ব ইমাম বুখারী, ইমাম মুসলিম, ইমাম নববী (রহ:) আনোয়ার শাহ কাশ্মিরী, বিশ্ববিখ্যাত ফুটবল তারকা জেইমে গোমেজ, বাংলাদেশের গর্ব খ্যাতিমান ক্রিকেট তারকা মুশফিকুর রহিম সহ সারা বিশ্বের খ্যাতি ছড়ানো, আলো ছড়ানো  মনীষীদের বই পড়া নিয়ে সুনিপুণ ভাষায় আলোচনা করেছেন। বইটি প্রবন্ধ দিয়ে সাজানো হলেও সাহিত্য রস আর শব্দ প্রাচুর্যে টইটম্বুর। যা পাঠকের তনুমনে অপরিসীম ভালো লাগার ছায়া ফেলবে। বইটির প্রতিটি পৃষ্ঠায় পাঠক খুঁজে পাবেন বিশ্ব মাঝে নিজেকে তুলে ধরার, বড় হওয়ার, স্বপ্ন বোনার রকমারি উপাদান। বিশ্বের খ্যাতিমান ব্যক্তিরা কিভাবে বইয়ের সাথে লেগে থাকতেন, বইয়ের মাঝে ডুবে থাকতেন  সেটা পড়ে পাঠক অনুপ্রাণিত হতে পারবেন। বইটি প্রকাশিত হয়েছে ২০১৮ সালের ঢাকা বইমেলায়। ইতোমধ্যে বইটির পাঠক প্রিয়তার জন্য তৃতীয় সংস্করণ করতে হয়েছে। উদীয়মান প্রচ্ছদ শিল্পী  সাজিদুল ইসলাম সাজিদের রংতুলির আলোকচ্ছটায়, শৈল্পিকতার নান্দনিক ছোঁয়ায় বইটির প্রচ্ছদ হয়ে উঠেছে অত্যন্ত দৃষ্টি নন্দন। অভিজাতও সৃজনশীল প্রকাশন দি পাথফাইন্ডার পাবলিকেশন্স এর স্বত্বাধিকারী ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক সুলতানা আকতার এর ভাষ্যমতে "মনীষীদের বইয়ের নেশা "বইটি তার প্রকাশনার এ যাবৎ কালের প্রকাশিত সেরা বই সমূহের মধ্যে একটি। সাকী মাহবুব  রচিত "মনীষীদের বইয়ের নেশা" বাংলা প্রবন্ধ সাহিত্যের এক অমূল্য সংযোজন। ৪৪ পৃষ্ঠার এ গ্রন্থে উপস্থাপনা যৌক্তিক, বণর্নাভঙ্গি প্রাঞ্জল ও শব্দের গাঁথুনি মানান সই। মাঝে মাঝে ইংরেজী আরবী ও মনীষীদের উদ্বৃতি গ্রন্থটিকে সুখপাঠ্য করে তুলেছে। বইটি প্রতিটি সচেতন পাঠকের সংগ্রহে রাখার মতো একটি সুখপাঠ্য। পাঠক বইটি লুফে নিক, আমি মহান রাব্বুল আলামীনের কাছে সেই কামনা করছি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ