ঢাকা, শুক্রবার 8 November 2019, ২৪ কার্তিক ১৪২৬, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

বঙ্গমাতা আন্তর্জাতিক নারী ভলিবল চ্যাম্পিয়নশিপ শনিবার শুরু

স্পোর্টস রিপোর্টার: বঙ্গমাতা এশিয়ান সিনিয়র ওমেনস সেন্ট্রাল জোন ইন্টারন্যাশনাল ভলিবল চ্যাম্পিয়নশিপের খেলা আগামী ৯ নবেম্বর শনিবার ঢাকায় শুরু হতে যাচ্ছে। মিরপুরস্থ শহীদ সোহরাওয়ার্দী ইনডোর স্টেডিয়ামে শনিবার সকাল ১০ টায় কিরগিজস্তান ও মালদ্বীপের ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে ৫ জাতির এ টুর্নামেন্ট। বিকেল চারটায় বাংলাদেশ খেলবে আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে। মাঝে হবে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। প্রধান অতিথি হিসেবে টুর্নামেন্ট উদ্বোধন করবেন জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরিন শারমীন চৌধুরী। আন্তর্জাতিক এই টুর্নামেন্টের পর্দা নামবে ১৪ নভেম্বর।৫ জাতির এই টুর্নামেন্টে অংশগ্রহনকারী দলগুলো হচ্ছে: আফগানিস্তান, কিরগিজস্তান, মালদ্বীপ, নেপাল ও স্বাগতিক বাংলাদেশ। ঘরে মাঠে এই প্রথম আন্তর্র্জাতিক নারী ভলিবল টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। 

এক সময় বাংলাদেশের মেয়েরা নিয়মিত ভলিবল খেলতেন। কেবল ঘরোয়াভাবেই নয়, আন্তর্র্জাতিক অঙ্গনেও বাংলাদেশের মেয়েদের ছিল সরব উপস্থিতি। কিন্তু অর্ধযুগ ধরে ভলিবলের আন্তর্জাতিক অঙ্গনে উপস্থিতি নেই বাংলাদেশের। অনেক দিন পর বাংলাদেশের মেয়েরা খেলতে যাচ্ছে আন্তর্জাতিক ভলিবল।এই টুর্নামেন্ট অবশ্য বাংলাদেশের আয়োজনেই। এর আগেও বাংলাদেশ ভলিবলের আন্তর্জাতিক আসর একাধিকবার আয়োজন করেছে। তবে মেয়েদের আন্তর্জাতিক আসর প্রথম বাংলাদেশে। যে টুর্নামেন্টের নাম ‘বঙ্গমাতা এশিয়ান সিনিয়র নারী সেন্ট্রাল জোন আন্তর্র্জাতিক ভলিবল চ্যাম্পিয়নশিপ’।

বাংলাদেশের খেলোয়াড়রা একদম নতুন। স্বাগতিক হলেও তাই এই মেয়েদের নিয়ে কোনো প্রত্যাশা করছে না ফেডারেশন। গতকাল বৃহস্পতিবার বিওএ অডিটরিয়ামে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ ভলিবল ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আশিকুর রহমান মিকু বলেন, ‘আশার কথা শুনিয়ে লাভ নেই। আমাদের নতুন দল। তারা যতটুকু ভালো খেলতে পারে, তাতেই আমরা সন্তুষ্ট। অনেক দিন মেয়েদের খেলা ছিল না। নতুন করে শুরু করছি নিজেদের আয়োজনের টুর্নামেন্ট দিয়ে। আশা করি আগামীতে এই মেয়েরাই ভালো করবে।’ সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয় প্রতিযোগিতায় সাংগঠনিক কমিটির চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্বপালন করবেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। স্টিয়ারিং কমিটির চেয়ারম্যান হিসেবে কাজ করবেন ইউনুস গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ ইউনুস। সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে উপস্থিত থাকবেন কৃষি মন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাক।

টুর্নামেন্টের ফিকশ্চার

৯ নবেম্বর : কিরগিজস্তান-মালদ্বীপ এবং বাংলাদেশ-আফগানিস্তান

১০ নবেম্বর : আফগানিস্তান-নেপাল এবং বাংলাদেশ-মালদ্বীপ

১১ নবেম্বর : কিরগিজস্তান-নেপাল এবং আফগানিস্তান-মালদ্বীপ

১২ নবেম্বর : আফগানিস্তান-কিরগিজস্তান এবং বাংলাদেশ-নেপাল

১৩ নবেম্বর : মালদ্বীপ-নেপাল এবং বাংলাদেশ-কিরগিজস্তান

১৪ নবেম্বর : ফাইনাল (একইদিনে তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচ)

 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ